মেন্যু
sobdarthe hisnul muslim

শব্দার্থে হিসনুল মুসলিম (পকেট সাইজ)

আল্লাহ কুরআনে বলেন, "তোমরা আমাকে স্মরণ কর আমিও তোমাদেরকে স্মরণ করব এবং শোকর গোযারি কর, না-শোকরি করো না।-[সূরা বাকারাঃ ১৫২] আর এজন্য প্রয়োজন কুরআন এবং সুন্নাহর আলোকে দুয়াগুলোকে একত্রিত করা।... আরো পড়ুন
পরিমাণ

69  125 (45% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
- ১,৪৯৯+ টাকার অর্ডারে সারাদেশে ফ্রি শিপিং!

প্রসাধনী প্রসাধনী প্রসাধনী

3 রিভিউ এবং রেটিং - শব্দার্থে হিসনুল মুসলিম (পকেট সাইজ)

5.0
Based on 3 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    আলহামদুলিল্লাহ্‌। অনেক প্রয়োজনীয় দোয়া শিখছি বইটি থেকে।
    4 out of 4 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    :

    ♦বই পরিচিতি:
    মিশরীয় আলীম সাঈদ ইবনে আলী আল কাহতানীর অমর সৃষ্টি এই ‘হিসনুল মুসলিম’।মূল বইটি বিশাল কলেবরে লেখা হলেও এর একটি সুলভ,ছোট্ট সংস্করণ ও আছে।মূল আরবীতে লেখা বইটি প্রায় ৫৮টি ভাষায় অনুদিত হয়েছে।সারা পৃথিবীতেই সুন্নাহ মেনে চলা মানুষের কাছে অত্যন্ত পরিচিত একটি দুআ ও যিকিরের বই এই ‘হিসনুল মুসলিম’।

    ♦আলোচ্য বিষয়:
    রাসূল সা. শেখানো দুআ,যিকিরের সমন্বয়েই বইটি।একজন মুসলিম ঘুম থেকে জাগ্রত হওয়ার পর থেকে ঘুমাতে যাওয়া পর্যন্ত সারাদিনে প্রত্যেকটি মুহুর্তে সুন্নাহ অনুসারে কিভাবে আল্লাহকে স্মরণ করবে সেটার একটা গাইড লাইন এই বইটি।বোনাস হিসেবে আছে কুরআনে আল্লাহ নবী-রাসূল আ.-দের কে শিখিয়েছেন এমন দুআর সমাহার।

    ♦বইটি কেন পড়ব?:
    আসলে বলা উচিৎ কেন সংগ্রহে রাখব?প্রত্যেক মুসলিমের উচিৎ বইটিকে নিজের সার্বক্ষণিক সঙ্গী বানিয়ে নেয়া।বইটির সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য, এখানে সন্নিবেশিত দুআ,যিকির গুলো কুরআন এবং হাদীস থেকে নেয়া অতএব তা বানোয়াট এবং বিদাত মুক্ত।
    মুমিনের জীবনে যিকির এবং দুআর ফযিলত অনেক,অনেক বেশি।
    কুরআন কারীমে আল্লাহপাক বলেছেন,
    “অতএব তোমরা আমাকে স্মরণ কর, আমিও তোমাদেরকে স্মরণ করব। আর তোমরা আমার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ কর এবং আমার প্রতি অকৃতজ্ঞ হয়ো না।”[সূরা আল-বাকারাহ্‌ – ২:১৫২]
    আর আল্লাহকে স্মরণ করার জন্য তো তাঁর রাসূলের বাতলে দেয়া তরীকা নির্দ্বিধায় সর্বোত্তম।
    দুআকে রাসূল সা. বলেছেন,ইবাদাতের মগজ।আল্লাহর কাছে তাঁর বান্দা হাত উঠালে তিনি তা ফিরিয়ে দিতে লজ্জাবোধ করেন।
    মহান আল্লাহ বলেন: “তোমাদের পালনকর্তা বলেন, তোমরা আমাকে ডাক, আমি সাড়া দিব।” [আল-মুমিন: ৬০]
    আল্লাহ কে ডাকার ভাষা যদি হয় তাঁর প্রিয় রাসূলের ভাষা তাহলে তা;তাঁর কাছে আরো প্রিয় হবে বলায় বাহূল্য।
    রাসূল সা. কি ভাষায় আল্লাহর কাছে চাইতেন সেগুলো হাদীসের দুআগুলো বর্ণিত হয়েছে।সেগুলোই শায়খ কাহতানী হিসুনুল মুসলিমে একত্র করেছেন বিভিন্ন শিরোনামে।

    ♦পাঠক হিসেবে অনূভুতি:
    বইটি সংগ্রহ করার পর থেকে আমার নিত্য সঙ্গী।প্রিয় বন্ধুর মত হয়ে গেছে।নিজে পড়ার পর অন্যদেরও গিফট করেছি।এবং দুআ-যিকিরের প্রসঙ্গে সবাইকে এই বইটির কথায় বলি। ভীষণ প্রয়োজনীয় একটি বই।আকার ছোট হওয়া সাথে রাখাও সহজ।

    ♦দারুস সালাম, বাংলাদেশ থেকে প্রকাশিত হিসুনুল মুসলিম কেন আলাদা?: বেশ কয়েকটি প্রকাশনীই পকেট সংস্করনের বাংলা অনুবাদ করেছে।কয়েকটি দেখার সুযোগ হয়েছে।এর মধ্যে দারুস সালাম,বাংলাদেশ প্রকাশিত হিসনুল মুসলিম টা বেশ ভালো লেগেছে।ঝকঝবে সাদা পৃষ্ঠায় সুন্দর শিরোনামে সাজানো।প্রত্যেকটি আরবী শব্দের অর্থ দেয়া,যা আরবী ভাষার শব্দ ভান্ডার বৃদ্ধিতে সহায়ক।

    অন্তরকে প্রশান্ত করতে দুআ, যিকিরের বিকল্প নেই। কুর’আনে আল্লাহ বলেন, “যারা বিশ্বাস স্থাপন করে এবং তাদের অন্তর আল্লাহর যিকির দ্বারা শান্তি লাভ করে; জেনে রাখ, আল্লাহর যিকির দ্বারাই অন্তর সমূহ শান্তি পায়। ( সূরা রা’দ ২৮)
    আর আল্লাহকে স্মরণের জন্য রাসূল সা. শেখানো দুআ-যিকির গুলো আত্মস্থ করার জন্য হিসুনুল মুসলিম অত্যন্ত সহায়ক একটি বই।
    আল্লাহ আমাদের কে তাঁর পথে চলা সহজ করে দিন।

    11 out of 11 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    :

    ড. সাঈদ ইবনু আলি কাহতানি (রহিমাহুল্লাহ) আরব বিশ্বে সাড়াজাগানো এক নাম। তিনি রাসূল (স:) থেকে প্রাপ্ত দুয়া সমূহ সংকলণ করে নামে একটি বই প্রকাশ করেন। যেটি পরবর্তীতে এত জনপ্রিয় হয় যে তা এ পর্যন্ত ৩০ এরও অধিক ভাষায় অনূদিত হয়। বাংলা ভাষাতেও এর বেশ কয়েকটি অনূবাদ প্রকাশিত হয়েছে। তারই ধারাবাহিকতায় বইটির এক ছোটখাট সংকলন বাজারে নিয়ে এসেছে দারুস সালাম বাংলাদেশ।
    বইটি যৌথভাবে বাংলায় অনুবাদ করেছেন মো: এনামুল হক ও মো: রকীবুদ্দীন হুসাইন।
    ,
    ▶ সার-সংক্ষেপঃ-
    ৪৪৭ পৃষ্ঠাব্যাপী বিস্তৃত বইটির শুরুতে যিকর এর ফযীলত সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছে। এরপর দৈনন্দিন জীবনে প্রয়োজনীয় প্রায় ১২০ এর অধিক দুয়া ও জিকির এর বর্ণনা দেয়া হয়েছে। যেমন- কাপড় পরিধানের দুআ, বাড়ী থেকে বের হওয়ার দু’আ, বৃষ্টি দেখলে দুআ, রোগী দেখার দুআ, মোরগ ও গাধার স্বর শুনলে পড়ার দুআ ইত্যাদি সহ আরো অসংখ্য দুআ। এছাড়াও বইয়ের শেষে পাবেন তাসবীহ, তাহমীদ, তাহলীল ও তাকবীর এর ফজীলস, দুআর আদব এবং রাসূল (স:) কিভাবে দুআ পাঠ করতেন সে সম্পর্কে আলোচনা।
    .
    বইটির কিছু অনন্য বৈশিষ্ট্যঃ-
    ১। সহজ ও সাবলীল বাংলা অনুবাদ।
    ২। পকেট সাইজ তাই সহজে বহনযোগ্য।
    ৩। বাংলা অনুবাদের পাশাপাশি শব্দে শব্দে অনুবাদ সংযোজন। যার ফলে প্রতিটি দুয়ার অর্থ সহজে বোঝা যাবে।
    ৪। প্রতিটি দুআ শেষে উক্ত দুআ রেফারেন্স বা তথ্যসুত্র উল্লেখকরণ।
    ৫। বইটির তাহকীক করেছেন বিংশ শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ মুহাদ্দিস আল্লামা নাসিরুদ্দিন আলবানী (রহিমাহুল্লাহ)।
    .
    ▶ ব্যক্তিগত অনূভুতিঃ-
     বইতে লেখক মুসলিম উম্মাহর সামনে রাসূল (স:) হতে বর্ণিত দোয়া সমূহ সগৌরবে তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন। বইটি পড়ার পর বুঝতে পেরেছি রাসূল (স:) হতে প্রাপ্ত দোয়া সমূহ শব্দে শব্দে অর্থসহ পড়লে এক অন্যরকম ভালোলাগা কাজ করে। কিন্তু এগুলো আমরা অর্থসহ খুব অল্প পরিমানই জানি। অথচ প্রত্যেকটি দোয়া আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ও অনুসরণীয়। তাছাড়াও দৈনন্দিন জীবনের প্রয়জনীয় সহীহ দুয়া ও জিকির সমুহ স্বল্প পরিসরে এই বইতেই পাওয়া সম্ভব।  এবং বইটি পকেট সাইজ হওয়ায় যেকোনো স্থানে সজজে বহন করে পড়া যায়।
    সব মিলিয়ে বইটি খুবই ভালো এবং উপকারী হবে বলে আশা করি।
    তাই বাংলাভাষী সকলের প্রতি  অনুরোধ “বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া” বইটি একবার হলেও পড়ুন এবং নিজের প্রিয় মানুষ গুলোকেও পড়তে দিন। সেই দোয়ার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে সাহায্য প্রার্থনা করুন। দোয়াই হোক নির্ভরতার সোপান।
    .
    10 out of 10 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No