মেন্যু
mrittusojjay soitaner dhoka

মৃত্যুশয্যায় শয়তানের ধোঁকা

পরিমাণ

22  40 (45% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

2 রিভিউ এবং রেটিং - মৃত্যুশয্যায় শয়তানের ধোঁকা

5.0
Based on 2 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    মোহাম্মদ তানভীর হক:

    বইটি এমন একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে লেখা যে বিষয়ে আমাদের মাঝে অনেকে অজ্ঞ ও ভুলতে বসেছে। লেখক একজন সনামধন্য আলেম।এই বইটি হতে মৃত্যুর সময়ের শয়তানের ধোঁকা বিষয় টি নিয়ে নতুন ভাবে জানতে ও ভাবতে আগ্রহী করবে পাঠকদের। আমি বই সংশ্লিষ্টদের ও ওয়াফি লাইফ কে বইটি সম্পর্কে জানার ব্যাবস্হা করে দেয়ার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি। شكرا جزا ك الله خيراً
    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    nishu9ag:

    মৃত্যু হলো জীবনের এক সাংঘাতিক বাস্তবতা। কারও হয়তো শিশুকাল নাও আসতে পারে, কিশোর কাল নাও আসতে পারে, না আসতে পারে যৌবনকাল, হয়তো না আসতে বৃদ্ধকাল। কিন্তু মৃত্যু প্রত্যেকের আসবেই আসবে। এক চরম সত্য যা জীবনের পরতে পরতে বলে দেয় যে, এই দুনিয়া কোন ব্যক্তিকেই ধরে রাখে নি এ যাবত, তোমাকেও রাখবে না। 
    আফসোস মৃত্যুর মতো এই কঠিন সত্যকে আজ আমরা ভুলে দুনিয়ার জীবনকেই ভালবেসে ফেলেছি, যেন চিরকাল এখানে থাকবো। অথচ বাস্তবতা ভিন্ন। সবাইকে এই দুনিয়া ছেড়ে চলে যেতে হবে অন্ততকালে যাত্রায় আখিরাতে, যেখানে শুরু মৃত্যু দিয়ে, শেষ হবে হয়তো জান্নাত অথবা জাহান্নামে গিয়ে। মৃত্যুর বাস্তবতা আজ বেশির ভাগ মানুষের কাছেই অপরিস্কার। গত শতাব্দীর শ্রেষ্ঠ আলেমদের অন্যতম একজন হলেন মুফতি শফী রহ., যিনি এই মৃত্যুর সময়ে শয়তানের ধোঁকা নিয়ে একটি ছোট পুস্তক লিখে গেছেন। যেটা মূলত মৃত্যুর সময় একজন ব্যক্তির সারাজীবনের কর্মফল কিভাবে তার সামনে এসে যায় এবং উক্ত ব্যক্তির কি প্রতিক্রিয়া হয়, তা তুলে ধরেছেন। 
    বইটির শুরুতে কুরআন ও হাদীস থেকে মৃত্যু ব্যক্তির সাথে শয়তানের কথোপকথনের সত্যতা তুলে ধরা হয়েছে। অনন্ত আখিরাতের প্রথম ধাপ হলো মৃত্যু। এই মৃত্যুর সময় যে শয়তানের ধোঁকাকে নস্যাৎ করে দিয়ে ঈমানের নূরের আলোকিত হবে, সেই মূলত আখিরাতের দীর্ঘ পথের নিশ্চিত পথিক হতে পারবে। গ্রন্থে বেশ কিছু মহান আলমদের মৃত্যুকালীন সেই অবস্থা তুলে ধরেছেন। এরপর তিনি মৃত্যু সময়ে শয়তানের ধোঁকায় পতিত হওয়ার বেশ কিছু কারণ ও উদাহরণস্বরুপ কিছু ঘটনাও উল্লেখ করেছেন। অতপর সেই ধোঁকা থেকে পরিত্রাণের জন্য কিছু আমলও উল্লেখ করেছেন। শেষভাগে লেখক তাঁর স্বচোক্ষে অবলম্বন করা মাওলানা মুহাম্মাদ নাঈম দেওবন্দী রহ এর ঈর্ষণীয় মৃত্যুর সময়ের ঘটনা উল্লেখ করেছেন, যেখানে একজন আল্লাহর বান্দা শয়তানকে হারিয়ে আল্লাহর রহমতে প্রবেশ করেছেন।
    দুনিয়ার জীবন খুব সংক্ষিপ্ত, যেখানে জন্ম নেয়ার তো শৃঙ্খলা আছে, কিন্তু মৃত্যুবরণ করার কোন শৃঙ্খলা নেই। যে কোন সময় মৃত্যুর ফেরেশতা আপনার আমার সামনে হাজির হয়ে যেতে পারে। হয়তো তওবা করার সুযোগ আর নাও হতে পারে। মৃত্যুর সময় শয়তানের ধোঁকা যে সত্য এবং প্রত্যেকেই তা পার করতে হবে, সেটা বোঝার জন্য বইটি খুবই গুরুত্ব বহন করে।
    3 out of 3 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No