মেন্যু
char imam ebong madarijus salikin (package)

চার ইমাম এবং মাদারিজুস সালিকীন (প্যাকেজ)

কভার : হার্ড কভার, সংস্করণ : 444

প্যাকেজটিতে যা যা রয়েছে :
ইসলামের চার নক্ষত্র: চার ইমাম
মাআল আইম্মাহ। বাংলায় বললে, ইমাম আবু হানিফা, ইমাম মালেক, ইমাম শাফেঈ, ইমাম আহমাদ (রহ.)-এর সাথে। আমরা অনেকে চার ইমাম বলতে চারটি মতাদর্শ বুঝি। মনে করি, চার ইমাম চার দলের প্রবর্তক। প্রত্যেক দল নিজ নিজ মতের ওপর অবিচল। সত্যিই কি তাই? আমাদের মহান ইমামগণ কি এই উদ্দেশ্যেই ফিকহ চর্চা শুরু করেছিলেন? উম্মতকে নানান দলে বিভক্ত করার উদ্দেশ্যে? ইমামগণের প্রধান অনুসারীগণ কি এভাবে বিভেদ-বিদ্বেষ ছড়িয়ে বেড়াতেন?আসলে উম্মাহ যে ইমাম আবু হানিফা, ইমাম মালেক, ইমাম শাফেয়ী এবং ইমাম আহমাদ (রহ.)-গণের ব্যাপারে একমত হয়েছে, এটা কোনো কাকতালীয় ব্যাপার নয়। আবার তাদেরকে কেন্দ্র করে বিভেদ সৃষ্টিকারীদের সংখ্যাও ইতিহাসে নেহায়েত কম নয়। এজন্য ইলমে-দ্বীন চর্চাকারী মাত্রই আমাদের সবার দায়িত্ব মহান ইমামগণের জীবন-কর্ম জানা। তাদের রেখে যাওয়া খেদমত, অনুসৃত মূলনীতি সম্পর্কে জানা অর্থ ইসলামের শিক্ষাকেই জানা। তাদের জীবনাদর্শ, আদব আখলাকের মাঝে আমাদের জন্য যে অকৃত্রিম শিক্ষা রয়েছে, সকলের জন্য অনুসরণীয়। এই বিষয়ে চমৎকার একটি বই ড. সালমান আল আওদাহ (হাফি.) রচিত ‘মাআল আইম্মাহ’। এতে ইমাম আবু হানিফা, ইমাম মালেক, ইমাম শাফেঈ, ইমাম আহমাদ—এই চার ইমামের জন্ম মৃত্যু থেকে শুরু করে তাদের কর্মপন্থা, জীবনের পরতে পরতে ছড়িয়ে থাকা আমাদের জন্য অনুপম শিক্ষা এবং মণিমুক্তাগুলো একত্র করা হয়েছে।আলহামদুলিল্লাহ, ওয়াফি পাবলিকেশন থেকে ‘ইসলামের চার নক্ষত্র: চার ইমাম’ নামে বইটি আজ প্রকাশিত হলো। চার ইমামের জীবনাদর্শের ওপর সম্ভবত এই প্রথম এমন একটি গবেষণা-ধর্মী বই প্রকাশিত হলো, যেখানে তাদের জীবন কর্মের পাশাপাশি তাদেরকে কেন্দ্র করে তৈরি হওয়া বিভিন্ন মিথ্যাচার-অভিযোগ-আপত্তির খণ্ডন করা হয়েছে।

মাদারিজুস সালিকীন (আল্লাহর পানে যাত্রা)
ইমাম ইবনুল-কাইয়্যিম (রহ.)। মহান এই ইমামকে নতুন করে পরিচয় করে দেবার কিছু নেই। তিনি নিজেই বিশাল এক মহীরুহ। যার প্রতিটি ডালপালা আকায়িদ, তাফসীর, ফিকহ, আখলাক ইত্যাদি শাস্ত্র-গুণে গুণান্বিত। মূলত আত্মশুদ্ধি জগতে যেসকল সালাফ ও খালাফের খেদমত অনস্বীকার্য, তাদের ভিতর তিনি অন্যতম। কুরআন-সুন্নাহকে শতভাগ প্রাধান্য দিয়ে যে দর্শন জ্ঞান রেখে গেছেন, তা অনবদ্য।
তাঁর বিখ্যাত ‘মাদারিজুস সালিকীন’ গ্রন্থের নাম শোনে নি, ইসলামি অঙ্গনে এমন পাঠক মেলা ভার। বরং বছরের পর বছর ধরে আমরা অনেকেই অপেক্ষার প্রহর গুনছি, এই মহান গ্রন্থের বঙ্গানুবাদ কবে প্রকাশিত হবে। মাদারিজুস সালিকীন গ্রন্থটি মূলত একটি আয়াতের ওপর রচিত। সূরা ফাতিহার আয়াত ৫ নং আয়াত। মুমিনের আল্লাহ পর্যন্ত পৌঁছতে যে সকল গুণ অর্জন আবশ্যক, সেগুলো নিয়ে সবিস্তার আলোচনা করেছেন এই আয়াতের আলোকে। তাকওয়া, ইখলাস, আশা, সবর, তাওয়াক্কুল, ভালোবাসা, মোট কথা অন্তরের যাবতীয় আমল এতে একীভূত করা হয়েছে অত্যন্ত প্রাঞ্জল ভাষায়। গ্রন্থটির বিভিন্ন আলোচনা এত গভীর, এত তাৎপর্যপূর্ণ যে, একটি প্যারাগ্রাফ অবলম্বন করে পূর্ণ একটি প্রবন্ধ রচনা করা সম্ভব, সম্ভব ঘন্টাখানেক বক্তৃতা করাও।
মাদারিজুস সালিকীনের মতো দার্শনিক কিতাব সহজবোধ্য সাবলীল গদ্যে অনুবাদ করা দুরূহ। বিশেষ করে এর ভাষাশৈলী এত উন্নত যে, আরব পাঠকরাও সম্পূর্ণ আত্মস্থ করতে হিমসিম খান। আলহামদুলিল্লাহ, হাজার পৃষ্ঠার মাদারিজুস সালিকীন বইটির সংক্ষিপ্তসার নিয়ে এসেছে ওয়াফি পাবলিকেশন। সংক্ষিপ্ত হলেও প্রতিটি অধ্যায়ের শিক্ষা এতে উঠে এসেছে ইবনুল কাইয়্যিমের ভাষায়।

প্যাকেজটি অর্ডার করলে সাথে পাচ্ছেন প্রতিদিন একটি আয়াত বইটি হাদিয়া

Out of stock

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

 প্রথম রিভিউটি আপনিই লিখুন - "চার ইমাম এবং মাদারিজুস সালিকীন (প্যাকেজ)"

Your email address will not be published. Required fields are marked *

পাঠক অথবা ক্রেতাদের মন্তব্য