মেন্যু
hadiser name jaliati

হাদীসের নামে জালিয়াতি

কুরআন কারীমের পরে রাসূলুলাহ (সাঃ)-এর হাদীস ইসলামী জ্ঞানের দ্বিতীয় উৎস ও ইসলামী জীবন ব্যবস্থার দ্বিতীয় ভিত্তি। মুমিনের জীবন আবর্তিত হয় রাসূলুলাহ (সাঃ)-এর হাদীসকে কেন্দ্র করে। হাদীস ছাড়া কুরাআন বুঝা ও... আরো পড়ুন
পরিমাণ

324  540 (40% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

12 রিভিউ এবং রেটিং - হাদীসের নামে জালিয়াতি

5.0
Based on 12 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published.

  1. 5 out of 5

    Md Nazmul Hasan:

    ওয়াফি লাইফ বাংলাদেশে অনলাইন জগতে অনন্য লাইব্রেরি নাম। আমার প্রায় বইগুলো ওয়াফিলাইফ থেকে কেনা হয়। যখন যে বইয়ের প্রয়োজন হয়, তখনি আমি ওয়াফি লাইফের শরণাপন্ন হই। আল্লাহ আপনাদের এই খেদমতকে কবুল করুক। আমিন
    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    sklina552:

    যদি জিজ্ঞেস করা হয় কোন বই আপনাকে রাতে ঘুমাতে দেয়নি? কোন বই পড়ে রবের কাছে শুকরিয়া আদায় করে অনেক কেঁদেছেন? এই প্রশ্নের উত্তর একটাই “হাদীসের নামে জালিয়াতি”। সত্য জানার প্রবল স্পৃহা নিয়ে বই পড়া শুরু করি আর রবের প্রতি কৃতজ্ঞ হয়ে অশ্রুসিক্ত চোখে পুরো বইটা পড়ে শেষ করেছি। শুধু ভেবেছি, লেখক যে বিষয়গুলো এই বইতে তুলে ধরেছেন এই বিষয়গুলো যদি আমার অজানা থাকত আর ঐ অবস্থায় মৃত্যু চলে আসত তাহলে কবরে আমার অবস্থান কোথায় থাকতো!! আলহামদুলিল্লাহ আল্লাহ আমার প্রতি অশেষ অনুগ্রহ করে এই বইটা পড়ার তাওফিক দিয়েছেন। এই বইটিতে আমি আমার অধিকাংশ সন্দেহজনক প্রশ্নের উত্তর ব্যাখ্যা এবং রেফারেন্সসহ একসাথে পেয়ে গিয়েছি যা আমাকে সঠিক পথ চিনে নিতে সাহায্য করেছে। আর প্রত্যেকের উচিত এই বইটি অধ্যয়ন করা বিশেষ করে দ্বীনের পথে যারা একদমই নতুন তাদের জন্য এই বইটি অত্যাবশকীয় করে নেয়া উচিত।

    জাল হাদীস আমলের ভয়াবহতা- কুরআনে কারীমের পরে রাসূলুল্লাহ(স) এর হাদীস ইসলামী জ্ঞানের দ্বিতীয় উৎস। হাদীসের প্রতি আমাদের ভালবাসা ও নির্ভরতার সুযোগে অনেক জালিয়াত যুগ যুগ ধরে অগণিত বানোয়াট, ভিত্তিহীন ও মিথ্যা কথা আমাদের সমাজে “হাদীস” নামে প্রচারিত করছে। এর ফলে আমরা যেমন রাসূলুল্লাহ(স) এর নামে মিথ্যা বলার কঠিন পাপের মধ্যে নিমজ্জিত হচ্ছি পাশাপাশি এ সকল বানোয়াট হাদীস আমাদেরকে সহীহ হাদীসের শিক্ষা থেকে বিরত রেখেছে আর এগুলোর উপর আমল করে আমরা আল্লাহর কাছে পুরস্কার বদলে শাস্তি পাওনা করে নিচ্ছি। এর থেকে বাঁচার একটাই উপায় তা হল- সত্য অন্বেষণ করা।

    এ বইয়ের মাধ্যমে আমরা জানতে পারবো- হাদিসের সনদ সম্পর্কে , কিভাবে হাদীসের নামে ভ্রান্ত মিথ্যে কথাগুলো সমাজে ছড়িয়েছে, আল্লাহ, নবী-রাসূল, তাবেয়ীগণ, আউলিয়া কেরাম সম্পর্কে মিথ্যে ভিত্তিহীন কথা। এছাড়া বার চাঁদের সালাত ও ফযীলত, মৃত্যু, শুভ-অশুভ, বিবাহ-পরিবার, সমাজ সম্পর্কিত ভিত্তিহীন ও বানোয়াট কথা। যা সমাজে প্রচলিত এবং প্রসিদ্ধ কিন্তু সনদের দিক থেকে কোনো সহীহ, যয়ীফ বা মাঊযূ সনদেও এই কথা রাসূলুল্লাহ (ﷺ) হতে বর্ণিত হয়েছে বলে জানা যায় না।

    এই বই পড়ার একমাত্র উদ্দেশ্য হচ্ছে- অনির্ভরযোগ্য, ভিত্তিহীন ও বানোয়াট হাদীসের পরিবর্তে সহীহ হাদীসগুলির উপর নির্ভর করে নিজেদের কর্ম ও বিশ্বাসকে আরো উন্নত করা। সহীহ হাদীস পালনের করার চেষ্টা করা ও অন্যকে উৎসাহিত করা। জাল হাদীসের বিষয়ে যা জানতে পারব সেগুলি কখনোই আর হাদীস হিসেবে না বলা বা পালন না করা। কেউ তা করলে সম্ভব হলে ভালবাসা ও শ্রদ্ধাবোধের সাথে সংশোধনের চেষ্টা করা এবং নিজেদের ও তাদের কবুলিয়াতের জন্য দুয়া করা।

    0 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top