মেন্যু
tomay valobasi allahr jonno

তোমায় ভালোবাসি আল্লাহর জন্য

প্রকাশনী : মাকতাবাতুন নূর
পৃষ্ঠা : 272, কভার : হার্ড কভার
ভাষা : বাংলা
পৃথিবীতে পবিত্রতম সম্পর্কগুলোর একটি হচ্ছে নারীপুরুষের সম্পর্ক। এই সম্পর্ক হয়ে উঠুক আল্লাহর জন্য। একই সঙ্গে ঈমান ও আমলের মাঝে প্রতিবন্ধকতা আনে যে সম্পর্ক, তা আল্লাহর জন্যই পরিত্যাজ্য হোক। মুসলমানের জীবনযাপন,... আরো পড়ুন
পরিমাণ

258  354 (27% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

5 রিভিউ এবং রেটিং - তোমায় ভালোবাসি আল্লাহর জন্য

5.0
Based on 5 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published.

  1. 5 out of 5

    Azmin Akther Eva:

    ◾গল্পকে মানব জীবনের দর্পণ বলা যায়। কারণ জীবনের বাঁক থেকে উঠে আসা গল্পের প্রতিটা চরিত্র, ঘটনা, পরিবেশ কখনো তো নিজেদের জীবনের সাথে মিলে যায়, কখনোবা পরিচিত দের সাথে। যা আমাদের বাস্তবতা শেখায়। এমন নির্মল জীবনবোধের এক ঝুড়ি গল্প নিয়ে এসেছে “তোমায় ভালবাসি আল্লাহর জন্য” যা জীবন ঘনিষ্ঠ ১৭টি গল্পের ডালি নিয়ে সজ্জিত। প্রতিটি গল্পেরই মূল উপজীব্য হলো ভালোবাসা। এই ভালোবাসাকে কেন্দ্র করে সমাজের বর্তমান চিত্র ফুটে উঠেছে সার্থকভাবে। যা বাস্তব জীবনের আসল পাঠ ও বিশ্বাসীদের ইসলামি মূল্যবোধ শেখায়। যা বাস্তব জীবনের আসল পাঠ ও বিশ্বাসীদের ইসলামি মূল্যবোধ শেখায়। সেগুলো জানতে হলে আপনাদের পাড়ি দিতে হবে “তোমায় ভালবাসি আল্লাহর জন্য” বইয়ের সাথে। যা ২৭২ পৃষ্ঠার নাতিদীর্ঘ যাত্রা।

    ◾গল্পের নামগুলো দেখলেই গল্পের ভেতরের কী লুকিয়ে আছে, সেটা জানার তীব্র অধীরতা সৃষ্টি হয়। সেই অধীরতা থেকেই নাম গুলো উল্লেখ করছি:-
    আল্লাহর জন্য ভালোবাসা, পবিত্র জীবন, না বলা কথা, বহু বছর পর, অসময়ের ভালোবাসা, অযাচিত প্রেম, উপহারে ভালোবাসা, প্রবাস প্রেম, বিশুদ্ধ পরশ। বর্তমানের যে সব যুবক যুবতীরা ভালোবাসার নামে হারামে জড়িয়ে আছে, তাদের সেই হারাম থেকে বের করে আনার জন্য এই বইটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে আমি মনে করি।

    ◾অত্যন্ত সহজবোধ্য কথা সাবলীল গদ্যের বাহারী রুপে সাজানো হয়েছে বইটি। বইটির পাতায় পাতায় রবের ভালোবাসার অনবদ্য অলঙ্কার ভরপুর। নিজের অজান্তেই গল্প শেষে কেঁদে দিচ্ছিলাম। বিশেষ করে ” উপেক্ষা & কুঁড়েঘরে ভালোবাসা ” আমার কাছে বেশ লেগেছে। বইটি এমন অনবদ্য রঙে-বর্ণে সুশোভিত ও সুখপাঠ্য করে তুলেছেন লেখক, যা যে কোনো সাধারণ পাঠক খুব সহজেই আকৃষ্ট করবে।

    ◾এছাড়াও আকর্ষণীয় প্রচ্ছদ, সুনিপুণ বাইন্ডিং, উন্নত কাগজ, ঝকঝকে ছাপা সব মিলিয়ে চমৎকার এই বইটি পাঠকদের মন ছুঁয়ে দিতে সক্ষম। টুকটাক বানানভুল চোখে পড়েছে, ওটুকু বইয়ের অভ্যন্তরীণ বিশেষত্বে প্রভাব ফেলবার মতো না অবশ্য। আর মাখোমাখো সাহিত্য নেই, তবুও কি ভীষণ ভাবে পাঠক ধরে রাখার ক্ষমতা আছে লিখায়, না পড়লে বোঝানো সম্ভব নয়।

    ◾সর্বশেষ, এইটুকুই বলবো, মাকতাবাতুন নূরের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা, এমন একটি মূল্যবান বইয়ের সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্য। লেখক, প্রকাশক এবং বইটির সাথে জড়িত সকলের পরিশ্রমকে ইসলামের জন্য কবুল করে নিন। সেই সাথে পাঠকদেরও কবুল করে নিক। আমীন।

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    Kamrun Nahar Kotha:

    “তোমায় ভালবাসি আল্লাহর জন্য” বইটি খুবই যুগোপযোগী একটি বই। বইটি সহজসরল ভাষায় রচিত এবং গল্পগুলো ছোট আকারের হওয়ায় পাঠকের পড়ায় কোনো অনীহা আসবে না।

    বইটিতে বর্তমান সমাজের বাস্তব সব চিত্র তুলে ধরা হয়েছে।আল্লাহর জন্য যে ভালোবাসা গড়ে ওঠে সেই ভালোবাসা থাকে পবিত্র ,অপরদিকে আল্লাহকে ভুলে হারামের প্রতি যে ভালোবাসা গড়ে ওঠে সেখানে শুধুই নোংরামী থাকে। এই দিকগুলোই মূলত এই বইয়ে তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে। বর্তমানের যুবক যুবতীরা ভালোবাসার নামে যে হারামের প্রতি আসক্ত হচ্ছে তাদের সেই হারাম থেকে বের করে আনার জন্য এই বইটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে আমি মনে করি।

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    Habiba Akter:

    বুক রিভিউ
    বইয়ের নাম- তোমায় ভালোবাসি আল্লাহর জন্য

    “কিছু ভালোবাসা বট গাছের মতো। মাটির উপরে যতটুকু দেখা যায়, মাটির নিচে তার প্রান্তসীমার হদিস পাওয়া মুসকিল।”

    তোমায় ভালোবাসি আল্লাহর জন্য বইটি একটি গল্পগ্রন্থ। এখানে লেখক সাহেব খুব সহজ ও সাবলিল ভাষায় সমাজের বাস্তবতা, বর্তমান চিত্র তুলে ধরেছেন সার্থক ভাবে।
    বইটিতে মোট সতেরোটি গল্প রয়েছে। প্রতিটি গল্পেরই উপজীব্য হলো ভালোবাসা। যে ভালোবাসা হয় কেবল আল্লাহর জন্য। তবে এমন ভালোবাসা খুঁজে পাওয়া বেশ মুশকিল। কারন বর্তমানে ভালোবাসার জাল চারদিকে ছড়ানো। এই জালে খুব সহজেই ফেঁসে যায় যুবক যুবতী। মরীচিকা হয়ে যায় নিঃস্বার্থ ভালোবাসাগুলো। জীবনের অন্তিম মুহুর্তেও নিঃস্বার্থ ভালোবাসার দেখা হয় না আর।
    ভালোবাসার নামে সে সব মরীচিকা আর ফাঁদের কথা খুব সুন্দর ভাবে বলা হয়েছে গল্পগুলোর পরতে পরতে।

    ♦ ১ম গল্প- আল্লাহর জন্য ভালোবাসা।

    গল্পটি শুরু হয়েছে এভাবে,

    ডাক্তার বলেছে আমি মা হবো। ডাক্তার বলা অবধি আমি চিন্তাও করিনি আমি যে মা হতে যাচ্ছি। আমার মাঝে আরেকটি ব্যক্তিসত্তা অস্তিত্বে আসছে। কীভাবে আমার জীবনের পরিবর্তন হলো, সেটাই এখন রাত দিন ভাবি।

    এই গল্পে ভার্সিটি পড়ুয়া একজন আধুনিক মেয়ের জীবন তুলে ধরা হয়েছে। তার জীবনের বিভিন্ন দিক ফুটিয়ে তুলে মুক্ত জীবন পরিবর্তনের ম্যাসেজ দেওয়া হয়েছে।

    ♦২য় গল্প- আল্লাহর জন্য ভালোবাসা- ২

    সিদ্ধান্ত নিয়েছি চলে যাবো। বাবা-মা, আত্মীয়-স্বজন, দুই তিন দিন কেঁদে এক সময় বলবে, মেয়েটা ভালোই করেছে। নিজেকে সরিয়ে আমাদের সুন্দর করে বাঁচার পথ করে গেছে। আমরা এখন আমাদের মত চলতে পারবো। কেউ আর খারাপ কিছু বলবে না।

    এই গল্পে একজন কোরআনে হাফেজা মেয়ের জীবন আলোকপাত করা হয়েছে। মেয়েটি নানাগুণে গুণান্বিত হলেও তার গায়ের রং কালো। আর তাতেই অন্যসবগুণ যেন নষ্ট হয়ে গেলো। কীভাবে আল্লাহ তাআলা তাকে প্রিয়জনের সাথে মিলিয়ে দিলেন তাই বলা হয়েছে এ গল্পে।

    ♦৩য় গল্প- পবিত্র জীবন

    এটি গরীব একজন মহিলার জীবনের গল্প। নুন আনতেই যাদের পান্তা ফুরায়। থাকার ভালো কোন জায়গা নেই। পরার ভালো কোন কাপড় নেই। স্বামী দিনমজুর। ঘটনাক্রমে স্বামী একসিডেন্টে হাত হারায়। পরিশেষে বাধ্য হয়ে সে মহিলাকে অন্যের বাসায় কাজ করতে হয়। আর তখনি তাদের সুখের সংসার আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে যায়। জীবন দিয়ে নিজের ইজ্জত ও আব্রু রক্ষাকারী এক অভাগা নারীর জীবনের গল্প এটি।

    ♦৪র্থ গল্প- না বলা কথা

    একটি গরীব পরিবারের কথাগুলো লেখা হয়েছে। যে পরিবারের স্বামী স্ত্রীর মাঝে বাহ্যিক দৃষ্টিতে মনে হয় কোন প্রেম ভালোবাসা নেই। অর্থের টানাপোড়েনে কখনো মুখ ফুটে ভালোবাসার কথা ও বলা হয়নি দুজনের। সে স্বামী পুলিশের কাছে বন্দি হলে নিজেই চিন্তায় পড়ে যায়! আমার স্ত্রী কি আমাকে দেখতে আসবে!

    প্রকৃত অর্থে তাদের ভেতর ভালোবাসা ছিলো কিনা তাই খোঁজার চেষ্টা করা হয়েছে গল্পটিতে।

    ♦৫ম গল্প- উপেক্ষা।

    স্ত্রী তার স্বামীকে প্রচন্ড ভালোবাসতো। সবাই তাদের এ ভালোবাসার কথা জানতো। কিন্তু হঠাৎই এ ভালোবাসা পাল্টে যায়। স্ত্রী তার প্রিয় স্বামীকে উপেক্ষা করতে থাকে। স্বামী এ উপেক্ষার কোন কারণ খুঁজে পায় না। অবশেষে যখন পায় তখন দু’ চোখ বেয়ে কেবল অশ্রু ঝরে।

    ♦৬ষ্ট গল্প- বহু বছর পর

    ছোট ক্লাসে পড়াকালীন সময় ছোট্ট একটি ছেলেকে বিরক্ত করতো ক্লাসের সব থেকে দস্যি মেয়েটি। তাকে ভেংচি কাটতো। বহু বছর পর সেই স্কুলের সামনে একটি ছোট মেয়েকে দেখতে পায় ছেলেটি। দেখতে পরিচিত কারো মতো মনে হয়। মেয়েটির সাথে কথা বলেই বুঝতে পারে এ আর কারো নয় সেই দস্যি মেয়েটির কন্যা। তাকে জিজ্ঞেস করে, তুমি কি তোমার মায়ের সব কিছুই রপ্ত করেছো?
    সে তখন বললো, না, আমি কাঁদতে পারি না। মা খুব কাঁদতে পারে!

    সেই দস্যি ও হাসি খুশি মেয়েটি এখন কেন এমন কান্না করে! ছেলেটি অবাক হয়ে ভাবেতে থাকে।

    ♦৭ম গল্প- অসময়ের ভালোবাসা- ১

    ওর লজ্জা-শরম বলতে কিছু নেই। মেয়েদের সম্পর্কে হেন কথা নেই বলতে পারে না। মেয়েরা মেয়েদের সম্পর্কে যা না জানে, তার থেকেও মনে হয় বেশি জানে সে।

    এই গল্পে দুটি ছেলের গল্প বলা হয়েছে সমান্তরালে।
    একটি ছেলে পড়াশুনা বাদ দিয়ে প্রেম ভালোবাসা নিয়ে পড়ে থাকে। এক সাথে অনেকগুলো প্রেম করে। তার প্রস্তাব কোন মেয়ে নাকচ করতে পারে না। এতোটাই রোমান্টিক সে।

    আরেকটি ছেলে লাজুক। পড়া লেখা নিয়ে পড়ে থাকে। একটি মেয়ে তার ভালো লাগে কিন্তু লজ্জায় তাকে কিছু বলতে পারে না।

    বেশ কয়েক বছর পর হিসাবের খাতা মিলাতে বসলে সব কেমন যেনো ওলট পালট দেখায়।

    ♦৮ম গল্প- অসময়ের ভালোবাসা- ২

    এখানেও দুই বন্ধুর গল্প বলা হয়েছে। একজন যথারীতি পড়াশুনায় ভালো। অন্যজন প্রেম নিয়ে ব্যস্ত। পড়াশুনো না করে কেবল দার্শনিক সব উক্তি করে বেড়ায়। ভালোবাসা মানে তার কাছে টাকা পয়সা খরচ করা। যে যতবেশি খরচ করতে পারে তার প্রেম আর ভালোবাসা নাকি ততো বেশি পোক্ত হয়।

    দ্বিতীয় বন্ধুর এগুলোতে তেমন মন ছিলো না। কিন্তু পড়াশোনা শেষে যখন বৈবাহিক জীবন শুরু করে তখন তার কাছে ভালোবাসা মানে ভিন্ন এক অর্থ দাঁড়ায়। যা তার সেই দার্শনিক বন্ধু এখন ইচ্ছে করলেও আর খুঁজে পাবে না।

    ♦৯ম গল্প- অযাচিত প্রেম

    মেসেঞ্জারের এক প্রেম কাহিনী নিয়ে গল্পটি। যেখানে দীর্ঘ দিন একটি মেয়ের সাথে প্রেম করে ছেলেটি। দেখা করতে গিয়ে সে দেখে সে মেয়ে নয় মাঝ বয়সি একজন মহিলা।

    মহিলার প্রতি অনেক বিরক্ত ও খারাপ লাগলেও গল্পের শেষে সে মহিলার জন্যই তার চরম দুঃখ হয়। আক্ষেপ তৈরি হয় পৃথিবীর ভালোবাসার প্রতি।

    ♦১০ম গল্প- কুঁড়ে ঘরে ভালোবাসা

    ছোট একটি দরিদ্র পরিবারের ভালোবাসার চিত্র তুলে ধরা হয়েছে। যেখানে বাবা- মা ঈদের জামা কাপড় কেনার পরিকল্পনা করে। বাবা এক অজুহাতে জামা কেনা থেকে বিরত থাকে আবার মা আরেক অজুহাতে সরে আসে। তখন ছেট্ট মেয়ে বাবা মায়ের মন জয় করে তার ছোট একটি কাজে।

    ♦১১ তম গল্প- উপহারে ভালোবাসা।

    ভালোবাসা পেতে আসলে কোন কিছুর প্রয়োজন নেই। উপহার, উপঢৌকনের ও দরকার হয় না। কিন্তু কিছু ভালোবাসায় তা প্রয়োজন হয়। যে ভালোবাসা উপহারে নির্ভর তেমন একটি ভালোবাসার গল্প এটি।

    ♦১২তম গল্প- প্রবাস প্রেম।

    একজন প্রবাসি স্বামীর গল্প এটি। পরিবারের জন্য যে রাত দিন খেটে যায়। ইট মাথায় দিয়ে ঘুমাতে হয়। দিনশেষে প্রিয়তমার একটু ভালোবাসা চায় কেবল।

    ♦১৩তম গল্প- বিশুদ্ধ পরশ

    একটি ভালো মেয়ের গল্প । যার পরশে সব কিছু সুন্দর হয়। মেধাবি ও ভালো ছাত্রী হলেও যার কোন দাম্ভিকতা, অহংবোধ এসবের ছিঁটেফোঁটাও নেই। ক্লাসের দুর্বল ছাত্রী গুলোর সাথেই তার সখ্যতা বরং বেশি।

    ♦১৪তম গল্প- শকুনের চোখ

    এই গল্পে একটি মেয়ের কথা বলা হয়েছে যার দৈহিক লাবণ্যে মুগ্ধ পুরো এলাকা। মেয়েটি যখন ছোট ছিল পাড়ার লোকেরা তাকে ভালোবাসত। সময়ের সাথে সেই ভালোবাসা মোড় নিয়েছে ভিন্ন দিকে। সব লোকের চাহিদা এক বৃত্তে এসে ঠেকে। অথচ সে এখনো আগের মতোই সেই নিষ্পাপ কোমল হৃদয়ের। যেখানে মানুষের প্রতি ভক্তি ভালোবাসা ছাড়া দ্বিতীয় কিছুর স্থান নেই। সেই ভক্তি ভালোবাসার সুযোগ নেয় একদল মানুষরুপী অমানুষ। যার জন্য মেয়েটিকে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে হয়।

    ♦১৫তম গল্প- ভালোবাসার ফাঁদ-১

    পার্কের জায়গাটা বেশ নিরিবিলি। এদিকটায় আকাশপ্রেমী ছেলেটা রোজ একটি বেঞ্চিতে বসে আকাশের দিকে তাকিয়ে থাকে। আর ক্যানভাসে রং তুলি দিয়ে চিত্র আঁকে। একদিন একটি মেয়ে ছেলেটাকে দেখে মুগ্ধ হয়। পাশে থাকা বান্ধবীকে বলে একদিন অনেক বড় শিল্পি হবে ছেলেটা। বান্ধবীটি ছেলেটার আঁকা একটি ছবির দিকে চোখ যায়। দেখে ছেলেটিকে বাজে ভাবে আর ওখান থেকে বান্ধবীকে নিয়ে চলে আসতে চায় কিন্তু মেয়েটি রাজি হয়নি। তারপর ছেলেটির সাথে মেয়েটির সম্পর্ক গড়ে উঠে। আর এ সম্পর্কটি মেয়েটির কাল হয়ে দাঁড়ায়।

    ♦১৬তম গল্প- ভালোবাসার ফাঁদ-২

    একটি ছেলে ভালোবাসার নাম করে একাধিক মেয়ের সাথে প্রতারণা করে। কিন্তু কেউ তা প্রথমে বুঝতে পারে নি। পরবর্তীতে সেই ছেলে তার পাপের শাস্তি পায়।

    ♦১৭তম গল্প- ভালোবাসা হবে আল্লাহর জন্য

    আবু উমামা রা. রাসূল (সাঃ) থেকে বর্ণনা করে বলেন, রাসূল (সাঃ) বলেছেন, যে ব্যক্তি আল্লাহর জন্য ভালোবাসে, আল্লাহর জন্য রাগ করে, আল্লাহর জন্য দান করে, আল্লাহর জন্য বাধা প্রদান করে তাহলে সে ঈমানকে পূর্ণতায় পৌঁছালো। (সুনানে আবু দাউদ, হাদিস-৪৬৮১)

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  4. 5 out of 5

    kulsuma mily:

    এ পৃথিবীতে ভালোবাসার গল্প অনেক। মায়ের প্রতি সন্তানের ভালোবাসা, স্বামী স্ত্রীর প্রতি একে অন্যের ভালোবাসা। দুনিয়াবি সব ভালোবাসাই কিছু না কিছু খাঁদ থাকে কিছু স্বার্থ থাকে কিন্তু আল্লাহর জন্য ভালোবাসা হয় পুরোপুরি নিখাঁদ। যেটা ইহকাল থেকে শুরু করে পরকালেও বিদ্যমান থাকে।আমাদের আশেপাশে এমন অনেক ঘটনা ঘটে থাকে যেগুলো আমরা বুঝতে পারিনা জ্ঞানী-গুণী লেখকদের মাধ্যমে সেগুলো উঠে আসে বইয়ের পাতায় আর তখন মানুষ উপলব্ধি করে জীবনের গল্পের। ‘ তোমায় ভালোবাসি আল্লাহর জন্য ‘ বইটি বাস্তবতা আলোকে সেরকম ই একটি বই যেখানে উঠে এসে আল্লাহর জন্য ভালোবাসা গল্প গুলো।

    বইটি পর্যালোচনা-
    ——————
    ‘তোমায় ভালোবাসি আল্লাহর জন্য’ একটি গল্পগ্রন্থ। মোট ষোলটি গল্প দিয়ে সাজানো হয়েছে গ্রন্থটি। বেঁচে থাকার একটি উৎস হলো ভালোবাসা যা প্রতিটি মানুষের জন্য অপরিহার্য আর সেই ভালোবাসা যদি হয় একে অন্যের প্রতি শুধুমাত্র আল্লাহর জন্য তাহলে কেমন হয়! আল্লাহর জন্য ভালোবাসা হয় নিঃস্বার্থ যেখানে থাকে শুধু পরকালের ভাবনা। বক্ষ্যমাণ গ্রন্থটিও তেমনই একটি বই যেখানে উপস্থাপন করা হয়েছে কিছু নিঃস্বার্থ ভালোবাসার দৃশ্য। বইটি থেকে সংক্ষেপে কয়েকটি গল্প –

    ▪️আল্লাহর জন্য ভালোবাসা-

    কলেজ পড়ুয়া নেহা একজন ভালো নৃত্যশিল্পী বলা যায়, নৃত্যের সুবাদে তার পরিচয় এবং সম্পর্ক হয় সামির সাথে যে কি-না মাদক এবং নারী পাচার চক্রের সাথে যুক্ত। অবশেষে একদিন তার আসল চেহারা প্রকাশ পায়। অতঃপর নেহা প্রত্যাবর্তন করে দ্বীনের পথে।

    ▪️আল্লাহর জন্য ভালোবাসা-২
    এ গল্পে একজন কালো মেয়ে বারবার অবহেলিত হয়েছে পাত্র পক্ষের কাছে, যখনই সিদ্ধান্ত নেয় সবকিছু ছেড়ে চলে যাবে অজানা কোথাও তখনই আল্লাহর হুকুমে হাজির হয় তার যোগ্য জীবনসঙ্গী।

    ▪️পবিত্র জীবন-
    ‘ধর্ষিতার জীবন থেকে খুনির জীবন ভালো’ এই চমৎকার একটি বাক্য রয়েছে এই গল্পে। এক দারিদ্র্য পরিবাররের করুণ দৃশ্য তুলে ধরেছেন এ গল্পে। স্বামীর হাত কেটে যাওয়ার পর স্ত্রী সংসারের ভার তুলে নেয় নিজের কাঁধে অতঃপর চরিত্রহীন পুরুষের হাত থেকে নিজেকে বাঁচাতে খুন করে তাকে।

    ▪️উপেক্ষা-
    এ গল্পে স্বামী স্ত্রীর একে অন্যের প্রতি ভালোবাসা ছিল দৃঢ়। কিন্তু হঠাৎ ই স্ত্রী সামান্য তুচ্ছ জিনিসে রাগ দেখিয়ে চলে যায় বাপের বাড়ি শুরু হয় স্বামীর প্রতি অবহেলা। গল্পটি পড়ে প্রথমে অনেকে হয়তো ভাববে পরকীয়া কিন্তু শেষ টা ছিল করুণ। খুব অল্প সময়ে ধরা পড়ে স্ত্রীর ব্লাড ক্যান্সার তাই সেটা বলে স্বামীকে কষ্ট দিতে চায়নি যে তার হায়াত খুব অল্প।

    ▪️কুঁড়েঘরে ভালোবাসা-
    এ গল্পে এক দারিদ্র্য পরিবারে একে অন্যের প্রতি ভালোবাসার দৃশ্য তুলে ধরেছেন।

    লেখক প্রতিটি গল্পেই তুলে ধরেছেন কিছু বাস্তবতার মেলবন্ধন ও নিঃস্বার্থভাবে ভালোবাসা যা কেবলই আল্লাহর জন্য।

    সমালোচনা-
    ————-
    ‘ মাকতাবাতুন নূর ‘ একটি বিশুদ্ধ চেতনা লালনকারী প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান। সৃজনশীল চিন্তা এবং পরিশুদ্ধ ভাবনা নিয়েই তাদের পথচলা তাদের প্রতিটি বই’ই যেন নতুন দিগন্তের ছোঁয়া নতুন কিছু জানার এবং শেখার অসাধারণ মাধ্যম। ‘ তোমায় ভালোবাসি আল্লাহর জন্য ‘ এটি একটি গল্পের বই হলে পাঠক বুঝতে পারবে নারীপুরুষের সম্পর্ক এবং ঈমান ও আমলের মাঝে প্রতিবন্ধকতা আনে যে সম্পর্ক, তা আল্লাহর জন্য দরকার পরিত্যাজ্য। বইটির বিষয় বস্তু সহজ ও সাবলীল এবং গল্প গুলোও ঘটনাপ্রবাহ। বইটির সাথে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের আল্লাহ সুবহানাল্লাহু ওয়া তায়ালা উত্তম প্রতিদান দান করুন।

    পাঠ্যনুভূতি-
    ————-
    আমাদের প্রত্যেকের জীবনই যেন রহস্যেঘেরা এক একটি গল্প উপন্যাস। বই’য়ে পড়া কিছু কিছু গল্প যেন আমাদের জীবন থেকেই নেওয়া। ‘ তোমায় ভালোবাসি আল্লাহর জন্য ‘ সে রকম ই একটি রহস্যেময় জীবনের গল্পে ভরপুর যেখানে তুলে ধরা হয়েছে সমাজের কিছু বাস্তব চিত্র। দীর্ঘ মেয়াদি গল্প গুলো অনেক সময় পাঠকের বিরক্তির কারণ হয় কিন্তু এই বইটিতে গল্প গুলো ছোট নয় আবার বড়ও নয় এমনই কিছু গল্পে সাজানো, যেটি পড়ে পাঠকের মাঝে বিরক্তির চাপ পাওয়া যাবে না। পরিশেষে অশেষ কৃতজ্ঞতা মাকতাবাতুন নূরের কাছে আমাদের সামনে অসাধারণ একটি গল্পের বই উপস্থাপন করার জন্য।

    ভালো লাগার কিছু বাক্যাংশ-
    ——————————
    ▪️যে ভালোবাসা আল্লাহর জন্য হয়, সে ভালোবাসায় স্বার্থ থাকে না। সেই ভালোবাসার মানুষটির জন্য সবকিছু করা সম্ভব। সবকিছু বিসর্জন দেওয়া সহজ।

    ▪️কিছু ভালোবাসা বটগাছের মতো। মাটির উপরে যতটুকু দেখা যায়, মাটির নিচে তার প্রান্তসীমার হদিস পাওয়া মুশকিল।

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  5. 5 out of 5

    Sakib Molla:

    books is really good.
    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top