মেন্যু
tini abar asben

তিনি আবার আসবেন

প্রকাশনী : আযান প্রকাশনী
সম্পাদক : শাইখ আব্দুল্লাহ মাহমুদ
পৃষ্ঠা : 120, কভার : পেপার ব্যাক
ভাষা : বাংলা
কিয়ামতের বড় আলামতের একটি আলামত ঈসা ইবনু মারইয়াম (আঃ) এর অবতরণ। আল্লাহর সুনির্দিষ্ট বেঁধে দেওয়া সময়ে তিনি আসমান থেকে অবতরণ করবেন। তিনি পুনরায় ইসলামের সুশীতল ছায়ায় এই উম্মতকে একত্রিত করবেন।... আরো পড়ুন
পরিমাণ

127  172 (26% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

2 রিভিউ এবং রেটিং - তিনি আবার আসবেন

5.0
Based on 2 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
Showing 2 of 2 reviews (5 star). See all 2 reviews
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    Ahmed Shamim Hasan:

    আমরা মুসলিমরা বিশ্বাস করি সাইয়্যিদুনা ঈসা (আঃ) আবার আসবেন, এ ব্যাপারে আল্লাহর রাসূলের ভবিষ্যৎবাণী সহীহ রেওয়ায়াতে বর্ণিত আছে। এরপরেও এই বিষয়ে মানুষকে ভুল বুঝিয়ে, ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে খ্রিস্টান মিশনারিরা এবং কাদিয়ানীরা বিভ্রান্ত করছে। সংক্ষিপ্ত পরিসরে হজরত ঈসা (আঃ) আর পুনরাগমনের ব্যাপারে জানতে এই বইটা একটা চমৎকার রেফারেন্স বুক হতে পারে।
    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    muhammad ashraful:

    পাঠ্যানুভূতি: যেহেতু কালামে মাজীদে ঈসা (আ.) -এর কথা বর্ণিত হয়েছে; সে হিসেবে তাঁর সম্পর্কে আকিদা শুদ্ধ করার জন্য দালিলিক আলোচনা, সালাফদের মতামত ও যুক্তি নির্ভর এ বইটি পড়া আমার জন্য আবশ্যক ছিলো। জন্মগত মুসলমানদেরকে ঈসা (আ.) সম্পর্কে জিজ্ঞেস করলে বড়জোর বলতে পারবে, তিনি আল্লাহর একজন নবী ছিলেন এবং খ্রীস্ট|নর| তাকে আল্লাহর পুত্র দাবি করে। তিনি যে আল্লাহর একজন রাসূল ছিলেন সে কথা তাঁরা জানেও না।
    আরো অবাক হওয়ার মতো কথা! এ দেশের খাগড়াছড়ি, বান্দরবন ইত্যাদি জেলা সমূহে কীভাবে খ্রী-স্টা-ন ধর্মপ্রচ|রকর| ইসলামি পরিভাষা ব্যবহার করে সরল, গরীব ও ইসলাম সম্পর্কে অজ্ঞ মুসলমানদেরকে বেদ্বীন বানাচ্ছে সে খবর এখনও তাদের কানে পৌঁছায়নি। এ বইটা পড়ার মাধ্যমে ঈসা (আ.) সম্পর্কে পরিষ্কার একটা ধারণা পাওয়া যাবে। যারা আর্থিক সমস্যার কারণে ঈসা (আ.) সম্পর্কিত একাধিক বই কিনে পড়ার সামর্থ রাখে না, তাঁরা এ ছোট কিন্তু গ্রহণযোগ্য আলোচনায় পরিপূর্ণ বইটার বদৌলতে বেশ উপকৃত হতে পারবেন ইনশাআল্লাহ।

    বইটির প্রয়োজনীয়তা: বইটা থেকে প্রাপ্ত জ্ঞান আপনার দাওয়াতি কাজকে কিছুটা হলেও সাহায্য করবে। যারা ঈসা (আ.) সম্পর্কে বলার মতো জ্ঞান রাখে না, বা সংশয়বাদী অথবা ভ্রান্ত লোকদের কবলে পড়ে ঈসা (আ.) সম্পর্কে মন্দ ধারণা পোষণ করে ঈমান এবং আমল দুটো’ হারিয়েছেন তাঁদের আকিদা সংশোধনে এ বইটা একজন পথ প্রদর্শনকারীর মতো ভূমিকা রাখবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

    লেখকের লেখার মান: রাজীব হাসান ভাই কেমন লেখেন সেটা আযান প্রকাশনীর পাঠকমাত্রই অবগত আছে। নতুন করে বলার মতো কিছু নাই। দুআ করি আল্লাহ সুবহানাহু ওয়াতাআ’লা ওনার খেদমত কবুল করে বইটিকে পরকালের নাজাতের উচিলা বানিয়ে দিন, আমিন।

    বইয়ের প্রচ্ছদ, ছাপা, বাঁধাই, কাগজের মান সবকিছু পছন্দ হয়েছে। হাতেগোনা কয়েকটি শব্দের টাইপজনিত বানান ভুল ছাড়া অন্যকোনো ত্রুটি দেখিনি।
    সর্বশেষ কুরআনের এ আয়াতটি বলে আলোচনার ইতি টানছি,

    “নিশ্চয় তিনি (ঈসা) কিয়ামতের নিদর্শন। সুতরাং তোমরা কিয়ামতের ব্যাপারে কোনো প্রকার সন্দেহ পোষণ করো না। আমার অনুসরণ করো। এটাই সরল পথ। [ সূরা যুখরূফ, আয়াত:৬১]

    1 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top