মেন্যু


সবার ওপরে ঈমান

পৃষ্ঠা : 452, কভার : হার্ড কভার
ভাষা : বাংলা

চলুন বইটির বিভিন্ন বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে একনজরে জেনে নেওয়া যাক।

১. বইটিতে ঈমান বিষয়ক প্রায় সকল হাদীস একত্রিত করা হয়েছে। এরকম সংকলন বাংলা ভাষায় এটাই প্রথম।

২. হাদীসগুলোকে প্রায় ৯০টি সুবিশাল হাদীসগ্রন্থ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে। অর্থাৎ একটি বই পড়লেই পড়া হয়ে যাবে প্রায় ৯০টি হাদীসের কিতাব। সেই সাথে হাজার হাজার হাদীসও জানা হয়ে যাবে।

৩. ঈমান সংক্রান্ত ৪৪৬২টি হাদীস একত্র করে মাত্র ৪৬৯টি হাদীসে পরিণত করা হয়েছে।

৪. প্রতিটি হাদীসের ক্ষেত্রেই ঈমান বিষয়ক একটি প্রামাণ্য হাদীসের টেক্সট উল্লেখ করার পর প্রাসঙ্গিক বাকি হাদীসগুলোকে টীকা আকারে একত্রিত করে দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিষ্ট হাদীসের ভিন্নপাঠও তুলে ধরা হয়েছে।

৫. পাঠকের সুবিধার জন্য পুরো বইটিকে মোট ২৮টি অধ্যায়ে এবং ২৬টি শিরোনামের অধীনে বিন্যস্ত করা হয়েছে।

৬. প্রিয় নবিজি সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর কথাগুলো হাইলাইট করতে রঙিন কালিতে ছাপানো হয়েছে।

৭. সাবলীল, বাহুল্যবর্জিত ও আকর্ষণীয় অনুবাদ।

৮. বিস্তারিত রেফারেন্স, তাহকীক ও টীকা যুক্ত করা হয়েছে। বিভিন্ন শব্দ ও বাক্যের অস্পষ্টতা টীকার মাধ্যমে দূর করা হয়েছে।

৯. বইটির শেষে বিস্তারিত পরিসরে একটি নির্ঘণ্ট সংযুক্ত করা হয়েছে, যা পাঠকের জন্যে বহুগুণে উপকারী হবে ইন শা আল্লাহ।

১০. ঈমান-আকীদা ঠিক রাখার জন্য নিয়মিত তালিম করার মতো একটি বই।

১১. স্বয়ং নবিজি সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর জবানিতে ঈমানের পরিপূর্ণ ধারণা পেতে বইটি এককভাবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে ইন শা আল্লাহ।

পরিমাণ

412  634 (35% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
প্রসাধনী
- ১৪৯৯+ টাকার অর্ডারে সারাদেশে ফ্রি শিপিং!

2 রিভিউ এবং রেটিং - সবার ওপরে ঈমান

4.5
Based on 2 reviews
5 star
50%
4 star
50%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    সবকিছুই ভাল,আলহামদুলিল্লাহ।
    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 4 out of 5

    :

    বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম
    ভিত্তি যদি নড়বড়ে হয়, তাহলে যে কোন স্থাপনা ধসে যাবার সম্ভাবনা থেকে যায়। তেমনি কারো যদি ঈমান পরিপূর্ণ না থাকে তাহলে সেও যখন তখন পতিত হবে, শয়তানের অতল গহ্বরে৷ ঈমান খুবই মূল্যবান এক সম্পদ প্রত্যেক মুমিনের জন্য। ঈমান সবার আগে ও সবার ওপরে ঈমান ।
    🔸আমরা নিজেদের মুসলিম দাবি করি, মুমিন দাবি করি কিসের ভিত্তিতে?
    🔸চিরস্থায়ী জান্নাত কামনা করি কিসের ভিত্তিতে?
    উত্তর হলো, এই ঈমানের ভিত্তিতে এসব দাবি করি আমরা। ঈমান কে তুলনা করা চলে পাওয়ার হাউজের সাথে৷ ঈমানের কারনে মুমিন আল্লাহর ভয়ে গুনাহ থেকে বিরত থাকে, কোন ভালো কাজ করে মনে মিষ্টতা অনুভব করে, গোনাহ করলে অন্তর অশান্তি, বিষন্নতার মেঘ ছেয়ে যায়। মুমিন একমাত্র আল্লাহর পরিপূর্ণ দাসত্বে প্রশান্তি লাভ করে৷ ঈমান হলো আল্লাহর সকল দাবি মুখে স্বীকার করে, অন্তরে বিশ্বাস স্থাপন করা, এবং নিজ অঙ্গ প্রতঙ্গের সাহায্যে দাবির সত্যায়ন করা। ঈমান হলো সকল ভালোর মূল, ঈমান ব্যতীত একজন মানুষের সকল ভালো কাজের মূল্য শূন্য। আর সেই হাজারো শূন্যের শুরুর দিকে মূল্যবান এক হলো ঈমান৷ ঈমান বা হিদায়াত হলো সেই কাংখিত বস্তু যা আল্লাহ যাকে চান দান করে। ঈমান ও ঈমান সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আমাদের জানাশুনা অনেক কম, যার দরুন আমরা সহজেই ঈমান নিয়ে শয়তানের চক্রান্তে নিপতিত হই।

    🔸চলুন দুইটি উদাহরণ দেখে নেই___
    ০১.ধরুন, আপনি একটি পাচতলা বিল্ডিং করতে চাচ্ছেন,কিন্তু নিচে কলম দেয়া ব্যাতীত এটা কি সম্ভব? উপরের তলা করতে হলে, আপনাকে নিচে কলম দিয়ে ভিত শক্ত করেই তারপর পর্যায়ক্রমিক ফ্লোর চাপাতে হবে।
    ০২. আপনি একটি মূল্যবান গাছ লাগালেন, পরে দেখলেন গাছের আশে পাশে দিয়ে বিভিন্ন আগাছা জন্মিয়েছে, এবং আপনি অনুধাবন করলেন এতে গাছটার ক্ষতি হচ্ছে আপনি কি করবেন সেই মূহুর্তে?

    ঈমান হলো সেই মূল্যবান ভিত বা কলম যা আপনাকে আমাকে আল্লাহর বান্দা হিসেবে নাম লেখাবে। ঈমান হলো আলো,কুফর হলো অন্ধকার। ঈমান সীরাতুল মুস্তাকীমের পথ আর কুফর গোমরাহি পথ। ঈমান হলো একজন মানুষের সকল ভালো কাজ কর্মের ফলাফল পাবার মাধ্যম। এবং পরকালে নাজাতের একমাত্র পথ৷ তাই ঈমান আনার পরে চারিদিক থেকে শয়তান ও তার দোসররা আপনার ঈমান হরনের চেষ্টা করতে থাকবে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত। তাই ঈমান এনে, এর শর্ত ও দাবি অনুধাবন ও পূরন করা এবং সাথে সাথে ঈমানের জন্য ক্ষতিকর বিষয়াদি থেকে হেফাজত করতে হবে, নিজেকে ও পরিবার আত্মীয় স্বজনদের। মুমিন হবার প্রথম শর্ত ঈমান আনা। ইসলামের পাঁচটি খুটির মধ্যের ঈমান সর্বোত্তম ও প্রথম খুটি৷ যা ছাড়া আমি আপনি মুসলিম, মুমিন হিসেবে নিজেকে পরিচয় দিতে পারবো না। ঈমানের সকল গুরুত্বপূর্ণ বিষয়সমূহের আলোচনা আরবি কিতাবের সাইজ এনে, আমাদের জন্য পেশ করতে যাচ্ছেন, শায়খ জিয়াউর রহমান মুন্সি ও মাকতাবাতুল বায়ান।
    তারা বইটির নাম দিয়েছেন “সবার ওপরে ঈমান”।

    🔸বইটির আর্কষণীয় দিক বা বিশেষত্বঃ বইটিতে আল্লাহর রাসুল (সা) কথাগুলো কে কালার কোডেড করা হয়েছে। বইটি পড়া মাত্রই প্রায় ৯০ টি হাদিসের কিতাব পড়া হবে, ঈমান সংক্রান্ত প্রায় সব হাদিস আনা হয়েছে আলহামদুলিল্লাহ। ঈমান সংক্রান্ত ৪৪৬২ হাদিস একত্র করে ৪৬৯ টি হাদিসে পরিণত করেছেন। পর্যাপ্ত টিকা যুক্ত, রেফারেন্স সংযোজন ও তাহকীক করা হয়েছে। ২৮ টি অধ্যায়ে ২৬ টি শিরোনাম দিয়ে বিন্যস্ত করা হয়েছে। বইটি আরবি কিতাবের সাইজে প্রকাশ করা হবে যা দেশে অপ্রতুল। সাবলীল ও প্রাঞ্জলতাপূর্ণ ভাষা প্রয়োগ হয়েছে আলহামদুলিল্লাহ।

    পরিশেষে বলতে চাই, যার নিজের ঈমান আকিদা ঠিক রাখতে চাই, ঈমানকে ক্ষতিকর বিষয়াদি থেকে সুরক্ষা দিতে চাই, নিজ পরিবার-পরিজন, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু- বান্ধব কে ঈমানের গুরুত্ব ও ক্ষতিকর বিষয়াদি থেকে সর্তক করতে চাই ও স্বয়ং রাসুল (সা) জবানিতে ঈমানের স্বাদ পেতে চাই, বইটি তাদের জন্য ও সর্বোপরি প্রত্যেক মুসলিমের জন্য অবশ্যপাঠ্য৷

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No