মেন্যু
siratun nobi package

সীরাতুন নবি প্যাকেজ

নবিজি ﷺ-কে নিয়ে অনেক গ্রন্থই লেখা হয়েছে। হাদীস সহ নানান ইতিহাস গ্রন্থের সহায়তায় লেখা হয়। ফলে অনেক সময় খুব দুর্বল বর্ণনাও স্থান পায় সীরাতে। এই দিকে সীরাত বিষয়ক শুধু বিশুদ্ধ... আরো পড়ুন
পরিমাণ

1,064  1,520 (30% ছাড়ে)

প্যাকেজে যা যা থাকছে -
সীরাতুন নবি-১ম খণ্ড (হার্ড কভার)
সীরাতুন নবি ২ (হার্ড কভার)
সীরাতুন নবি ৩য় খণ্ড (হার্ড কভার)
সীরাতুন নবি ৪
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

2 রিভিউ এবং রেটিং - সীরাতুন নবি প্যাকেজ

5.0
Based on 2 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published.

  1. 5 out of 5

    imran1038277:

    বিসমিল্লাহ হির রাহমানির রাহিম

    সীরাত গ্রন্থ হচ্ছে আমাদের নবিজীর জীবনী নিয়ে রচিত গ্রন্থ। নবিজির জীবনী নিয়ে সারা বিশ্বে অনেক সীরাত গ্রন্থ লিখা হয়েছে আরও অনেক সীরাত গ্রন্থ লিখা হবে। তার মধ্যে অন্যতম একটি সীরাত গ্রন্থ হচ্ছে ইবরাহীম আলি রচিত সীরাতুন নবি বইটি।
    প্রত্যেক মুসমানের উচিত নবিজীর জীবনী সম্পর্কে জানা কারণ আল্লাহ্ তায়লা পবিত্র কোরআন এ বলেছেন, “তোমাদের মধ্যে যারা আল্লাহ্ ও পরকাল দিবস কামনা করে, তাদের জন্য আল্লাহর রাসূল (সা:) এর জীবনে রয়েছে উত্তম আদর্শ।
    সুরা আল-আহযাব ৩৩:২১
    পরিপূর্ণ মুত্তাকি হওয়ার জন্যে নবী(সা:) জীবনীর কোনো বিকল্প নেই।
    এবার মূল আলোচনায় আসি।আপনি কেন ইবরাহীম আলি রচিত সীরাতুন নবি বইটি পড়বেন?
    ইবরাহীম আলি রচিত সীরাত গ্রন্থটির সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য হচ্ছে বইটি রচিত হয়েছে বিশুদ্ধ হাদিসের ভিত্তিতে। এই বইয়ের মধ্যে আমরা লেখকের ভাষ্য খুব কমই খুঁজে পাই। লেখক যে কাজটি করেছেন সেটি হচ্ছে তিনি নবি (সা:) এর জীবনীর ক্রমধারা ঠিক রেখে বিশুদ্ধ হাদিস সংগ্রহ করে বইটি সাজিয়েছেন। যা এই বইটিকে অনন্য করে তুলেছে,এতে করে এই বইয়ে মিথ্যা বা বানোয়াট তথ্য পাওয়ার সম্ভাবনা প্রায় শুন্য। বইটিকে সাজানো হয়েছে চারটি খন্ডে প্রত্যেক খন্ডকে আবার অনেকগুলো পরিচ্ছেদে ভাগ করা হয়েছে যাতে করে বইটি পাঠকের কাছে হয়ে উঠেছে সহজবোধ্য।
    বইটির প্রথম খন্ডে নবিজির জন্ম থেকে হিজরত পর্যন্ত ঘটনাবলি নিয়ে সাজানো হয়েছে। এতে উঠে এসেছে কোন পরিস্থিতে নবিজির জন্ম হয়েছিল , কিভাবে দ্বীন প্রচার করতে গিয়ে তিনি নিজ গোত্রের লোকদের দ্বারা নির্যাতিত হয়েছিলেন এবং হিজরত করতে বাধ্য হয়েছিলেন।
    বইটির দ্বিতীয় খন্ডে হিজরত থেকে খন্দক পর্যন্ত এই অংশে আলোচিত হয়েছে।নবিজির মদিনায় আগমন মদিনার মানুষ কতৃক নবিজিকে বরণ নিয়ে আলোচনা উঠে এসেছে। এই অংশে দুইটি উল্লেখ্যোগ্য যুদ্ধ বদর এবং উহুদ যুদ্ধের আলোচনা উঠে এসেছে।
    বইটির তৃতীয় খন্ডে খন্দক থেকে মূতা পর্যন্ত ঘটনাবলি স্থান পেয়েছে। খন্দকের যুদ্ধ, হুদাইবিয়ার সন্ধি, খাইবার এর যুদ্ধ সম্পর্কিত আলোচনা এই খন্ডে উঠে এসেছে।
    বইটির চতুর্থ অর্থাৎ শেষ খন্ডে মূতা থেকে নবিজির মৃত্যু পর্যন্ত ঘটনাবলির উল্লেখ রয়েছে। এই খন্ডে মূতা যুদ্ধ নিয়ে আলোচনা হয়েছে, নবিজির মক্কা বিজয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তাবুক যুদ্ধ নিয়ে আলোচনা হয়েছে । বিদায় হজ্জ সম্পর্কিত আলোচনা হয়েছে । সর্বশেষ নবিজির অসুস্থতা এবং মৃত্যু নিয়ে আলোচনার মাধ্যমে বইটি সমাপ্ত হয়েছে।
    বইটি আরবি থেকে বাংলা ভাষায় সহজ,সরল এবং প্রাঞ্জল ভাষায় অনুবাদ করে শাইখ জিয়াউর রহমান মুন্সী পাঠকদের জন্য সহজপাঠ্য করে তুলেছেন।
    বইটি মাকতাবুল বায়ান থেকে প্রকাশিত হয়েছে বইয়ের প্রচ্ছদ,পৃষ্টা ,বিন্যাস সবিকিছু আলহামদুলিল্লাহ্‌ উন্নতমানের।
    সবশেষে বলতে ইবরাহীম আলি রচিত সীরাতুন নবি(সা:) গ্রন্থটি এককথায় একটি অসাধারণ সীরাত গ্রন্থ। আশা করি সবাই সীরাত গ্রন্থটি পড়বেন এবং নবি (সা:) এর জীবন সর্ম্পকে জেনে সে অনুযায়ী জীবন পরিচালনায় অগ্রগামী হবেন। আমিন।

    11 out of 11 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    Khaleda Mubasshera:

    ~সীরাতুন নবী
    পরম করুণাময় অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি
    সারা বিশ্বজাহানের রহমতস্বরূপ আল্লাহ্ তায়লা নবী(সা:) কে প্রেরণ করেছেন।তার জীবন,তার প্রতিটি উপদেশ সারা বিশ্ববাসীর জন্য ফয়সালাস্বরূপ।হযরত মুহাম্মদ (সা:) এর আগে যত নবী-রাসুল এসেছিলেন তারা ছিলেন একটি নির্দিষ্ট জাতি কিংবা নির্দিষ্ট এলাকার লোকদের মধ্যে আল্লাহর মনোনীত বান্দা,কিন্তু বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) হলেন সমগ্র বিশ্বের জন্য উপদেষ্টা।প্রত্যেক মুসলমানের উচিত নবী (সা:) এর জীবন সম্পর্কে জানা,কেমন ছিলেন বিশ্বনবী (সা:)।
    ______________________
    বইয়ের শ্রেষ্ঠত্ব:বইটিতে যেমন রয়েছে সহীহ হাদিস থেকে বর্ণনা, তেমনি রয়েছে একাধিক হাদিসের মধ্যে সুষ্ঠু সমন্বয়,যাতে করে আমরা খুব সহজেই অনুধাবন করতে পারি।কুরআন, সুন্নাহ ও মাগাযী, সিয়ার সংক্রান্ত গ্রন্থাবলি থেকে রচিত এ বইটিতে নবী (সা:) এর সুবাসিত জীবনের নানান দিক তুলে ধরা হয়েছে।নবী মুহাম্মদ (সা:) এর জীবদ্দশায় যেসব কাজ সম্পন্ন হয়েছে,নিছক সেসবের ভিত্তিতে তাঁর অনুপম ব্যক্তিত্বকে মূল্যায়ন করা যায় না।তবে তাঁর ব্যক্তিত্ব মূল্যায়ন করা সম্ভব,যদি তাঁর কার্যাবলির যেসব ফলাফল তাঁর জীবদ্দশায় ও পরবর্তীকালে প্রকাশিত হয়েছে,সেগুলো সামনে রাখা হয়।
    _____________
    কেন পড়ব:আল্লাহ্ তায়লা পবিত্র কোরআন এ বলেছেন, “তোমাদের মধ্যে যারা আল্লাহ্ ও পরকাল দিবস কামনা করে, তাদের জন্য আল্লাহর রাসূল (সা:) এর জীবনে রয়েছে উত্তম আদর্শ।
    সুরা আল-আহযাব ৩৩:২১
    পরিপূর্ণ মুত্তাকি হওয়ার দারসে নবীর (সা:) জীবনীর কোনো বিকল্প নেই।
    __________________
    শেষ কথা:ব্যক্তিগতভাবে আমি যদি বইটি না পড়তাম তাহলে হয়ত জানাই হতো না রাসূলের জীবন কেমন ছিল।বইটি পড়ে সীরাত সম্পর্কে আরো জানার তীব্রতা অনুভব করছি।নবীকে জানার জন্য বইটির প্রশংসা অকৃত্রিম।
    4 out of 4 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top