মেন্যু
iman vonger karon

ঈমান ভঙ্গের কারণ

ইমাম মুহাম্মাদ বিন আব্দুল ওয়াহহাব (রহঃ)-এর "নাওয়াকিদুল ইসলাম। যেখানে তিনি বলেছেন এমন দশটি বিষয় যার কারণে একজন মুসলিমের ঈমান নষ্ট হয়ে যায়। আর সেই ১০টি কারণ সবিস্তারে ব্যাখ্যা করেছেন শাইখ... আরো পড়ুন
পরিমাণ

125  167 (25% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

9 রিভিউ এবং রেটিং - ঈমান ভঙ্গের কারণ

4.7
Based on 9 reviews
5 star
66%
4 star
33%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
Showing 3 of 9 reviews (4 star). See all 9 reviews
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published.

  1. 4 out of 5

    কামরুল হাসান:

    বিসমিল্লাহ..

    ঈমান।আপনার-আমার জীবনের সবচেয়ে দামি সম্পদ।এত দামি সম্পদ পাবার জন্যে আমাদের সংগ্রাম বা অধ্যবসায় করতে হয়নি বলে সম্পদটির মূল্য আমরা বুঝতে পারি না।মানুষের মাঝে ঈমান ভঙ্গের কারণ এর ভয়াবহতা গুরুতর ও ব্যাপক।অনেক মানুষ নিজেকে মুসলিম বলে পরিচয় দেয় কিন্তু ইসলামের বাস্তবতা সম্পর্কে জ্ঞান রাখে না।তাদের আকিদা-বিশ্বাস,ধ্যান-ধারণা ইসলাম ও কোরআন সুন্নাহর পরিপন্থী। কোরআন ও সুন্নাহর সাথে তাদের মতানৈক্যর কারণে জীবনের সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি ঈমান কে তারা হারিয়ে ফেলে দিকভ্রান্তের মতো জীবনযাপনকরে ।অথচ সাহবারা যখন কোথাও একত্রিত হলে বলতেন, এসো ভাই আমরা একসঙ্গে বসে দ্বীনি আলোচনা করি, যার দ্বারা আমাদের ঈমান আরো চাঙ্গা হবে।

    সাহাবারা (রা) তাদের ঈমানকে চাঙ্গা করার জন্য সবসময় ব্যস্ত থাকতেন,অথচ আমরা নিজেদের ঈমান হারিয়ে দুনিয়াবি বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছি।কখন যে আমদের ঈমান আমাদের থেকে অনেক দূরে চলে গেলো, সেটাও বুঝতে পারি না, বুঝার চেষ্টাও করি না।কাটাতে থাকি ঈমানহারা এক কলুষিত জীবন।

    আমরা মণি-মু, হীরা-জহরত,মূল্যবান সম্পদ, টাকা-পয়সা অনেক যত্ন করে আগলে রাখি কিন্তু ঈমানের সুরক্ষায় কতটুকু সচেতন হই?ঈমানহীনতার কারণে আমাদের পোহাতে হবে ভয়াবহ দুর্ভোগ,জ্বলতে হবে জাহান্নামের লেলিহান শিখায়।

    বক্ষ্যমান বইটি ঈমানের অস্তিত্ব পরীক্ষার মাপকাঠি।’ঈমান ভঙ্গের কারণ’ বইটি শাইখ মুহাম্মদ বিন আবদুল ওয়াহহাবের ‘নাওয়াকিদুল ইসলাম’ গ্রন্থের বিস্তারিত রুপ।সাবলীল ভাষায় বইটির সুন্দর ব্যাখ্যা লিখেছেন শাইখ সুলায়মান ইবনু নাসির আল উলওয়ান।ঝরঝরে অনুবাদ করেছেন তারণ্যদীপ্ত প্রতিভাবাণ আলিম মাওলানা মাডউদ আলিমী।
    জাহান্নামের লেলিহান অগ্নি হতে বাঁচার জন্য এবং ঈমানকে মজবুতভাবে নিজের মধ্যে শক্তভাবে ধরে রাখার জন্য বক্ষ্যমান বইটি প্রতিটি মুসলমানের জন্য পড়া অতীব জরুরি।

    9 out of 9 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 4 out of 5

    Suraiya Akter:

    #ওয়াফিলাইফ_পাঠকের_ভাল_লাগা_জুলাই ২০২০

    ইসলাম মানেই ঈমান আর একজন মুসলিম মানেই ঈমানের মিষ্টবাহক। ঈমান ছাড়া একজন মুসলিম আর মুসলিমের কাতারে থাকে না, খারিজ হয়ে কাফিরের কাতারে চলে যায়। তাই ঈমান রক্ষা করা একজন মুসলিমের কেবল দায়িত্ব-ই নয় বরং সর্বসাকুল্যে প্ৰয়োজন।

    বইটির বিষয়বস্তু :
    বইটিতে ঈমান ভঙ্গের দশটি কারণ অধ্যায় আকারে আলোচনা করা হয়েছে। শিরক, দ্বীন ইসলাম কে নিয়ে ঠাট্টা, কাউকে কাফির বলার প্রেক্ষাপট ছাড়াও ঈমান বিধ্বংসীকারি বিষয়গুলো এই দশটি কারণে উঠে এসেছে। কারণগুলো ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বিভিন্ন ধরনের মাসআলার বর্ণনা লেখক পয়েন্ট আকারে খুব সুন্দরভাবে উপস্থাপন করেছেন। কুরআন ,হাদীস সহ বিভিন্ন ইমামদের মতও তুলে ধরেছেন, সাবলীল এবং প্রাণচাঞ্চল্য ভাষায়।
    .
    পাঠ্যানুভূতি:
    বইটি পড়তে গিয়ে মনে হয়ছে এমন কোন কাজ করেছি বা করছি না তো যা ঈমান ভঙ্গের কারণ হয়ে গেছে! লেখকের সুন্দরভাবে গুছিয়ে লেখার সিস্টেমকে বরাবরই প্রশংসা করব। যেখানে পুরো বই পড়ে বুঝতে কিংবা হৃদয়গম করতে এতটুকু সমস্যা হয় নি, আলহামদুলিল্লাহ।
    .
    বইটি কেন পড়ব?
    ঈমানকে সঠিক ভাবে অবিচল রাখতে। জীবনের সব চড়াই-উতরাই পরিস্থিতিতে ঈমানের ঝান্ডার ভিত্তিকে মজবুত করতে। সর্বোপরি ঈমান নিয়ে যেন রাব্বের সামনে হাজির হতে পারি সেই নিমিত্তে।

    মূল- ইমাম মুহাম্মাদ বিন আব্দুল ওয়াহ্হাব
    আরবী (ব্যাখ্যা)- শাইখ সুলায়মান ইবনু নাসির আল উলওয়ান
    অনুবাদ- মাসউদ আলিমী
    সম্পাদনা- মুফতি হারুন ইজহার, মুফতি হুমাইদ সাঈদ কাসেমী
    প্রকাশন: সীরাত পাবলিকেশন
    পৃষ্ঠা সংখ্যা : ১১১
    মুদ্রিত মূল্য : ১৬৭৳

    8 out of 9 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 4 out of 5

    রেজাউল বাবলু:

    পড়ছিলাম সীরাত পাবলিকেশন এর “ঈমান ভঙ্গের কারণ” বইটি। বইটা পড়াটা কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। একজন মুসলিম হলেই যে সে সারাজীবন মুসলিম থাকবে তার কোনো গ্যারান্টি নেই। এমন কিছু কাজ রয়েছে যা করলে একজন মুসলিম, মুরতাদ-কাফিরে পরিণত হতে পারে। তাই কি সেইসব কাজ তা জানার জন্যে এই বইটি পড়া খুবই দরকার। আর আজকাল আমাদের অবস্থা এমন যে আমরা ওযু ভংগের কারণ জানি কিন্তু ঈমান ভংগের কারণ জানিনা। অথচ ঈমানই যদি না থাকে আপনি ওযু করে কি করবেন?
    .
    যাইহোক,বইটি একটি অনুবাদগ্রন্থ। বইয়ের মূল বিষয় গুলো সম্পর্কে বলার তো আমার কিছুই নেই। একজন মুসলিমের জীবনে ঐ বিষয়গুলা জানা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। মূল বিষয়ের বাইরে, অনুবাদকের কিছু সংযুক্ত টীকা পড়ে কয়েকটি বিষয় নতুনভাবে জানলাম। এমন কিছু বিষয় জানতে পারলাম যার সম্পর্কে আমার ধারণা ছিল কিন্তু এতটা ক্লিয়ার ছিলনা। বইটির ৩৩,৩৪ আর ৩৫ নম্বর টীকা গুলোর কথা বলছি। ৩৩ নম্বর টীকা নিচে দিলাম ৩৪,৩৫ নম্বরটা পড়ে নিয়েন, লিখতে কষ্ট হয়।
    .
    “সমষ্টিগতভাবে নারীরা পুরুষদের সমপর্যায়ের নয়।”(৩৩)

    এই অংশের টীকায় যা আছে-
    “এখানে তিনটি বিষয়- মর্যাদা,অধিকার ও দায়িত্ব। মর্যাদায় আল্লাহর কাছে নারী-পুরুষ সমান। তারতম্য হবে তাকওয়া ও আমালে সালিহার ভিত্তিতে। অধিকারের দিক থেকে তো ইসলাম নারীকে অগ্রাধিকার দিয়েছে। প্রায়োরিটির সর্বোচ্চ আসনে সমাসীন করেছে। বাকি রইল দায়িত্ব কিংবা নেতৃত্ব। এক্ষেত্রে পুরুষকে আল্লাহ তা’য়ালা আগে রেখেছেন। কেননা সৃষ্টিগতভাবেই নারীর তনু-মন নরম,কোমল ও আবেগপ্রবণ। “

    8 out of 8 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top