মেন্যু


সেলজুক সাম্রাজ্যের ইতিহাস (দুই খণ্ড)

পৃষ্ঠা : 1088, কভার : হার্ড কভার

অনুবাদ : আরশাদ ইলয়াস, হামেদ বিন ফরিদ, শাহরিয়ার মাহমুদ, মিসবাহ উদ্দিন
সম্পাদনা : নেসারুদ্দীন রুম্মান, খন্দকার মুহাম্মদ হামিদুল্লাহ
নিরীক্ষণ : মাহদি হাসান, ইমরান রাইহান
শরয়ি সম্পাদনা : শাইখ আবদুল্লাহ আল মামুন

ইতিহাস অতীতের নীরব সাক্ষী। ইতিহাস চির-মুখর। যুগ-যুগান্তর ধরে মানব-সভ্যতার চলমান জীবনধারাই ইতিহাস। সে চক্রতীর্থের পথে পথে ছড়িয়ে আছে কত শত ভাঙা-গড়ার অর্ধলুপ্ত অবশেষ—কত রক্তরঞ্জিত দৃশ্যপটের পরিবর্তন; কত নিশীথকালের দুঃস্বপ্ন-কাহিনি; কত উত্থান-পতন, কত চেষ্টার তরঙ্গ, কত সামাজিক বিবর্তন।
.
আজ যা বর্তমান, কালই তা অতীত। ইতিহাস ত্রি-কাল-সূত্রে গ্রথিত। ইতিহাস তো অতীতেরই সত্য-স্বরূপ উদ্ঘাটন—এক অনন্ত মানব-জীবনপ্রবাহের অনির্বাণ দীপ-শিখা। ইতিহাস অতীতের অভিজ্ঞতা, বর্তমানের সাধনা, ভবিষ্যতের ইঙ্গিত।
.
ইতিহাস পাঠের মাধ্যমে আমরা মানবসমাজের শুরু থেকে এর যাবতীয় কর্মকাণ্ড, চিন্তা-চেতনা ও জীবনযাত্রার অগ্রগতি সম্পর্কে জ্ঞান লাভ করতে পারি। এজন্যই ইতিহাসকে বলা হয় জাতির দর্পণ।
.
এ ইতিহাসের সাথে সম্পর্কসূত্রের ধারাবাহিকতায় আমাদের এবারের প্রকাশনা—সেলজুক সাম্রাজ্যের ইতিহাস। ইসলামি ইতিহাসে সেলজুকদের রয়েছে এক স্মরণীয় অধ্যায়। প্রায় ২০০ বছর ধরে তারা অর্ধ পৃথিবী শাসন করেছে অত্যন্ত প্রতাপ, বিক্রম ও ভাঙনের চড়াই-উৎরাই নিয়ে। মুসলিম-ইতিহাস অধ্যয়নে সেলজুক সাম্রাজ্যের ইতিহাসের রয়েছে অন্যতম ভূমিকা। রক্তাক্ত ক্রুসেড যুদ্ধের ইতিহাসের অগ্রসেনানি ছিলেন এ সেলজুকরা।
সমৃদ্ধ সেলজুক সাম্রাজ্যের সূচনা, স্থিরতা, ভাঙা-গড়া এবং নানা চড়াই-উৎরাই নিয়ে রচিত আখ্যান সেলজুক সাম্রাজ্যের ইতিহাস।
.
সমকালীন মুসলিম বিশ্বের সুপরিচিত ইতিহাসবিদ ড. আলি মুহাম্মাদ সাল্লাবির বিশ্বস্ত কলমে উঠে এসেছে এই দীর্ঘ ইতিহাসের ফিরিস্তি। তার এই গ্রন্থনার বাংলা অনূদিত রূপ সেলজুক সাম্রাজ্যের ইতিহাস; যা পাঠককে পরিচিত করে দেবে মুসলিম-ইতিহাসের গুরুত্বপূর্ণ এক অধ্যায়ের সাথে।

পরিমাণ

774  1,290 (40% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

1 রিভিউ এবং রেটিং - সেলজুক সাম্রাজ্যের ইতিহাস (দুই খণ্ড)

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    আলহামদুলিল্লাহ, মুহাম্মদ পাবলিকেশন্স থেকে সদ্য প্রকাশিত ড. আলি মুহাম্মদ সাল্লাবি রচিত সেলজুক সাম্রাজ্যের ইতিহাস বইটি আমার নেবার সৌভাগ্য হয়েছে।ইতিমধ্যেই আমি বইটির ১০০ পৃষ্ঠা পড়েছি।তো এই ১০০ পৃষ্ঠা পড়ার পর বইটি নিয়ে আমি আমার অনুভূতিগুলো তুলে ধরছি।
    ১) বইটির প্রচ্ছদ, বাঁধাই, পেজ কোয়ালিটি মাশাল্লাহ মুহাম্মদ পাবলিকেশন্সের অন্য সব বইয়ের চেয়েও আরো উন্নত মানের হয়েছে।
    ২) বইটির অনুবাদ এতাটাই সাবলীল ও প্রাঞ্জল লাগছে যে,মনে হচ্ছে আমি মৌলিক বইই পড়ছি।
    ৩) বইটির উপস্থাপনা ও বচনভঙ্গী অনেক ভালো হয়েছে।
    ৪) এখন পর্যন্ত যতটুকু আমি পড়েছি তাতে আমার কাছে কোন বানান ভুল নজরে আসেনি।
    ৫) বইটির সাথে যে বক্স ও দুইটি বুকমার্ক দিয়েছে,এর কোয়ালিটিও মাশাল্লাহ অনেক সুন্দর।
    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No