মেন্যু
salat nobijir shesh adesh

সালাত নবীজির শেষ আদেশ

অনুবাদক : শাফায়েত উল্লাহ শারঈ নিরীক্ষণ : মাওলানা আব্দুল্লাহ আল হাসান পৃষ্ঠা: ৮০ দ্বীনকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য নবী ﷺ-কে কী পরিমাণ কষ্ট সহ্য করতে হয়েছিল, তা আমাদের সবারই জানা আছে। তাঁর ওপর অপবাদ... আরো পড়ুন

Out of stock

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

9 রিভিউ এবং রেটিং - সালাত নবীজির শেষ আদেশ

5.0
Based on 9 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    অনেক সুন্দর একটি বই, আলহামদুলিল্লাহ❤
    শয়তান একটি সিজদাহ্ না করার জন্য সে শয়তান হয়ে গেছে,আর আমি আপনি যদি নামাজ না আদায় করি তাহলে প্রতিদিন ৩৪টি সিজদাহ্ করা হচ্ছে না,তাহলে কে নিকৃষ্ট ???….এভাবেই বইটি শুরু হয়েছে।

    ∎ যা আছে বইটি তেঃ-
    ——————————-
    দিনটি ছিল সোমবার। এ দিনেই রাসূল সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম দুনিয়া ছেড়ে তাঁর রবের কাছে চলে যান। ইন্তেকালের পূর্ব-মূহূর্তে তিনি আমাদের জন্য কী উপদেশ দিয়েছিলেন, জানতে চান? আনাস রা. বলেছেন, নবী সাল্লাল্লাহু সর্বশেষ যে উপদেশ দিয়েছিলেন তা হলো,
    আস্সালাত, আস্সালাত-সালাত,সালাত।

    ∎ বইটি কেন পড়বে?
    —————————–
    সালাত যারা আদায় করে না এবং অবহেলা করে তারা কেন সালাত আদায় করবে, না পড়লে কি শাম্তি হবে, আর পড়লে কি পুরষ্কার পাবেন। এই বিষয়গুলো নিয়ে বইটি লেখা।
    ইনশাআল্লাহ বইটি পড়লে নামাজ পড়ার আগ্রহ জন্মাবে।

    ∎ বইটি যাদের পড়তে উৎসাহিত করবেনঃ-
    ————————————————————–
    ★যারা সালাত ঠিক মতো পড়ে না, তারা যদি বইটি পড়ে আল্লাহ চাইয়ে এই বইয়ের মাধ্যমে হেদায়াত পাবে এবং সালাত নিয়মতি পড়বে বলে আমার মনে হয়।
    ★যারা সালাত পড়েন তবে মাঝে মাঝে ছেড়ে দেন,তারা যদি বইটি পড়ে তবে সালাত সম্পর্কে সচেতন হবে, ইনশা আল্লাহ্।

    ∎ শিক্ষাঃ-
    —————
    সালাত যে জান্নাতের চাবি আর সালাত পড়লে যা যা পুরষ্কারের পাওয়া যায় তা জানলে হয়তো কেউ সালাত থেকে বিরত থাকতো না।। সালাত সেচ্ছায় না পড়লে যে কঠিন শাস্তির কথা বলা আছে সেই শান্তি গুলো যদি একবার চোখের সামনে দেখতে পেতো বা তা জানলে হয়তো কেউ সালাত মিস দিত না।। হামাগুড়ি দিয়ে হলেও আদায় করতো। সালাত এমন একটা মাধ্যম যার মাধ্যমে আল্লাহুর সাথে সরাসরি সাক্ষাত করা যায়। আল্লাহর কাছে সালাতের মর্যাদা কথা যদি সবাই জানতো তবে সালাতে অমনোযোগী থাকতে পারতো না। নিজে সালাত আদায় কারার পাশাপাশি অন্যদের ও যে বলতে হবে কারণ আমাদের সালাত কায়েম করতে বলা হয়েছে এটা যদি সবাই জানতো তবে নিজে আদায় করার পাশাপাশি অন্যকেও তা আদায় করতে উৎসাহ দিত৷

    ∎ ভালো লাগাঃ-
    ————————-
    বইটির প্রচ্ছদ ছিলো মাসা আল্লাহ্ অনেক সুন্দর৷ পেজে মান খুব ভালো যা দেখে অনেক ভালো লেগেছে। খারাপ লাগার মতো কিছুই পাইনি বইটিতে।

    ∎ শেষ কথাঃ-
    ———————
    বইটির সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আল্লাহ উত্তম প্রতিদান দান করুক,আমিন ।

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    :

    ✽বই- সালাত,(নবীজির শেষ আদেশ)
    ◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍◍

    ∎ বইটি কী নিয়ে লেখা?
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    সালাত না পড়া ও অবহেলা করা ব্যক্তিদের সালাতের গুরুত্ব বোঝানো, কেন পড়বেন সালাত? কেন এত জরুরি? না পড়লে কি শাস্তি হবে? আর পড়লে কি পুরষ্কার পাবেন?এই বিষয়গুলো নিয়ে বইটি লেখা।

    ∎ কী কী পাবেন বইতে?
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    • সালাত পড়তে পুরষ্কারের কথার মাধ্যমে উৎসাহ পাবেন।
    • সালাত না পড়লে শাস্তিমূলক বিধানগুলোর মাধ্যমে ভয় পাবেন,এবং নামায পড়তে বাধ্য হবেন যদি এতটুকু ঈমান ও থেকে থাকে।
    • নিজে সালাত পড়লে অন্যকেও তা আদায় করতে উৎসাহ দেওয়ার অনুপ্রেরণা পাবেন।
    • আল্লাহর কাছে সালাতের মর্যাদা কতখানি তা বুঝতে পারবেন।
    • সালাত না আদায়ে যে আপনার সব আমলই ভেস্তে যাবে তা অন্তত বুঝবেন।

    ∎ কাদের পড়তে সাজেস্ট করবো?
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    • যারা সালাত পড়েন না, তারা পড়বেন নিজেকে নামাজী করতে।
    • যারা সালাত পড়েন তবে মাঝে মাঝে ছেড়ে দেন,তারা পড়বেন ওয়াক্ত মতো সালাত আদায়ের জন্যে বদ্ধপরিকর হতে।
    • আর যারা সালাত পড়েন তারা বইটি স্কিপ করবেন না একদমই, কারণ দাওয়াত কার্য টা কিন্তু আপনারাই চালাবেন, শুধু নিজে সালাত পড়লে হবে? অন্যকেও তো দাওয়াত দিতে হবে, তাইনা?

    ∎ বেস্ট পার্ট কী?
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    একটা বই পড়া শেষ করে, শুধু শেষ করে না… মন দিয়ে উপলব্ধি করার পর যদি আপনি ৫ ওয়াক্ত নামাজী হয়ে যেতে পারেন,বেহেশতের চাবিটা কিন্তু আল্লাহ আপনার হাতেই দিয়ে দিচ্ছেন।
    এই সৌভাগ্য অর্জনটাই কী এর বেস্ট পার্ট নয়?

    ∎ কোনো সমালোচনা আছে কি?
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    এর প্রচ্ছদের স্পট ল্যামিনেশনটা (লেখার উপরে যে প্লাস্টিকের প্রলেপ থাকে) একটু গরবর লেগেছে,কিছু কিছু জায়গায় ল্যামিনেশন পরেনি। তাই পরবর্তীতে স্পট ল্যামিনেশনের ব্যাপারটা একটু লক্ষ্য রাখার অনুরোধ জানাচ্ছি।

    ∎ মন্তব্য
    ▔▔▔▔▔
    সালাত নিয়ে আলসেমি কাটিয়ে উঠতে একটা বই খুজছিলাম ঠিক সেই মুহুর্তেই এই বইটা প্রকাশিত হয়,আর চট করে কম মূল্যে বাইতুল মোকাররম বইলেমা থেকে কিনে নেই আর সত্যি যেমটা ফল চেয়েছি তার চেয়ে বেশি পেয়েছি,আলহামদুলিল্লাহ! আপনারাও পাবেন ঈন শা আল্লাহ!

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    :

    বর্তমানে মুসলিম উম্মাহ’র বিশাল একটা অংশ সালাতকে ‘মুবাহ’-র কাতারে ফেলে রেখেছে। মানে পড়লেও চলে, না পড়লেও চলে। সালাতের মর্ম, সালাত আদায়ের বাধ্যবাধকতা, সালাত আদায়ের পুরস্কার কিংবা অনাদায়ের শ্বাস্তি ইত্যাদি বিষয়ে জানার পরিসর অধিকাংশের’ই পর্যাপ্ত নয়। অথবা জানলেও এর তীব্রতা তাদের হৃদয়ের জমিনে উর্বরতা আনতে পারেনি।
    অনেকে আবার সপ্তাহে জুম্মার সালাত আদায় করেই সালাতের পাঠ চুকিয়ে ফেলেন।
    সালাত পড়েই না এমন লোকেদের আদমশুমারী করতে গেলেও কিন্তু অবাকের সীমানা পাড়ি দিয়ে হতবাক হতে হবে।
    এই এমনই কতক শ্রেণির মুসলিম, যারা সালাত সম্পর্কে উদাসীন, তাদের সালাতমুখী করতে এই বইটি ফার্স্ট চয়েজ হওয়া দরকার বলে মনে হয়।
    তবে, একটা কথা! নিয়মিত সালাত আদায় করেন বলে, আপনি বইটা পড়বেন না এমন কিন্তু নয়। বরং সালাত আদায়কারীদের জন্য ও বইটা সমান গুরুত্বপূর্ণ। সালাত পড়ুক বা না পড়ুক, আমি মনে করি সালাত সম্পর্কিত বই মানেই সর্বজন পাঠ্য হওয়া উচিত।
    .
    |বই নিয়ে কথাঃ|
    মোট ছয়টি বিষয়কে কেন্দ্র করেই মূলত বইয়ের সম্প্রসারণ। সেগুলো হলোঃ
    • সালাতের উপকার ও গুরুত্ব
    • যথাসময়ে সালাত আদায়ের মর্ম
    • সালাত আদায়ের ব্যাপারে তারহীব
    • সালাত আদায়ের ব্যাপারে সালাফদের চিন্তাধারা
    • সালফে সালেহীনদের দৃষ্টিতে সালাতের গুরুত্ব ও মর্যাদা
    • মানুষ কেন সালাত আদায় করেনা, তা সম্পর্কিত কিছু প্রশ্নের খন্ডায়ন।
    .
    বইয়ের লেখক- শাইখ আহমাদ মূসা জিবরীল’কে নিয়ে ভূমিকার প্রয়োজন আছে বলে মনে হয়না। “সালাত” নিয়ে তারই একটি লেকচারের অনুবাদ মলাটবদ্ধ করে পাঠকের সামনে তুলে ধরেছে নুসুস পাবলিকেশন। যেহেতু বইটা শাইখের লেকচার থেকে গৃহীত হয়েছে, তাই মোটাদাগে বলা চলে, এটি একপ্রকার আলোচনামূলক বই। তবে কাঠখোট্টা আলোচনা নয়, অন্তর প্রলুব্ধকারী আলোচনা। কখনো অন্তর্ভেদী আহবানে, কখনো আহত স্বরে, কখনো রূঢ়ভাবে, কখনোবা তাতে কয়েক চামচ আবেগ মিশ্রিত করে শাইখ তার কথামালায় এনেছেন ভিন্ন ভিন্ন যোগমাত্রা। তার সাথে অনুবাদের প্রাঞ্জলতাগুণে বই অনন্য স্থানলাভ করেছে।
    .
    পাঠ্য অভিমতঃ ছোট্ট কলেবরের বই। কিন্তু এর ভেতরকার শব্দরূপী কথামালা একে অমূল্য বানিয়ে দিয়েছে। দাওয়াহ’র জন্য এই বইটি পারফেক্ট। শুধু সালাতকে কেন্দ্র করে এমন জ্ঞানগর্ভ আলোচনার জুড়ি মেলা ভার। বিশেষ করে যারা সালাত আদায়ে অনীহা প্রকাশ করেন, তাদের জন্য বইটা একটা কম্বো। রবের অকৃতজ্ঞতার মাত্রা উপলব্ধি করে লজ্জাবোধে মিইয়ে যাবে অন্তর। এই লজ্জাবোধ যদি প্রসারিত হয় মাসজিদের চৌকাঠ পর্যন্ত, তবে অন্তর্যামীর সান্নিধ্যে পেতে আর কি লাগে?
    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  4. 5 out of 5

    :

    সালাত: নবীজীর শেষ আদেশ
    °°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°°
    বই পরিচিতি—
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    বইয়ের লেখক- শাইখ আহমাদ মূসা জিবরীল । বইয়ে ওনার সম্পর্কে বিস্তারিত পরিচিতি উল্লেখ রয়েছে । এই বইটি মূলত ওনার লেখা বইয়ের অনুবাদ না । “সালাত” নিয়ে তার একটি লেকচারের অনুবাদ মলাটবন্দী হয়ে পাঠকের সামনে এসেছে । বইটি প্রকাশিত হয়েছে নুসুস পাবলিকেশন থেকে । অনুবাদ করেছেন- শাফায়েত উল্লাহ্ । অনুবাদ ভাল লেগেছে । ভাষাগতমান প্রশংসনীয় ।
    .
    বইটি সম্পর্কে–
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    যারা সালাত আদায় করে এবং যারা করেনা দু-দলের জন্যই মূলত এই বইটি । বইটি যেহেতু লেকচার থেকে অনুবাদকৃত তাই বইয়ে আলোচনার ঘ্রান রয়েই গেছে । বইটিতে মোট ছয়টি পয়েন্টকে কেন্দ্র করে আলোচনা করা হয়েছে ।
    প্রথম পয়েন্ট– সালাতের উপকার,পুরস্কার ও গুরুত্ব ।
    দ্বিতীয় পয়েন্ট–যথাসময়ে সালাত আদায় করা ।
    তৃতীয় পয়েন্ট– সালাত আদায়ের ব্যাপারে তারহীব ।
    চতুর্থ পয়েন্ট– সালাত আদায়ের ব্যাপারে সালফে সালেহীনের মন্তব্য, তাঁদের চিন্তা ।
    পঞ্চম পয়েন্ট–সালফে সালেহীন সালাতকে কেমন দৃষ্টিতে দেখতেন ও কতটা গুরুত্ব ও মর্যাদা দিতেন ।
    সর্বশেষ পয়েন্ট–কেন মানুষ সালাত আদায় করে না- সে সম্পর্কে কয়েকটি প্রশ্নের খন্ডায়ন ।

    বইটি কাদের জন্য ?
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    যারা মোটেই সালাত আদায় করেনা এই বইটি আসলে সবার আগে তাদের জন্য । যদি ভেবে থাকেন, ‘আমি নিয়মিত সালাত আদায় করি, এ বইটা না পড়লেও চলবে’ । তাহলে ভুল ভাবছেন । বরং যারা সালাত আদায় করেনা, তাদের মতোই বইয়ের কথাগুলো আপনারও পড়া জরুরী । যদি বলেন, কেন জরুরী ? তাহলে বলব- এই প্রশ্নের উত্তরও বইয়ে দেয়া আছে ।
    .
    একটি আবদার ও শেষ কথা–
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    বইটির মূল্য ৯৮ টাকা । কিন্তু বইয়ের বিষয়বস্তু ও কথামালার ধাঁচে বইটিকে আমি অমূল্যের কাতারে ফেলব । কারন যে সালাত পড়ে না, তার কাছে এ বইটি একটি অমূল্য সম্পদ । আমার আবদারটি হচ্ছে প্রকাশনীর কাছে । সেটা হচ্ছে – বইটির একটি দাওয়াহ সংস্করন বের করা । পৃষ্ঠামান কমিয়ে অন্তত বইটিকে ৫০-৬০ টাকার মধ্যে আনলে বইটি দাওয়াহর জন্য অন্যদের হাতে পৌছানো সহজ হতো । কারন শুধু সালাত নিয়ে এরকম হৃদয়গ্রাহী ও জ্ঞানগর্ভ আলোচনায় মোড়ানো সংক্ষিপ্ত বই খুব কমই আছে । শাইখ মূসা জিবরীল কখনো হৃদয়গ্রাহী ভাষায়, কখনো রুঢ় মেজাজে, কখনো আবার দরদের ভাষায় আলোচনা করেছেন । যে কারনে নামাজ না পড়া কোনো ব্যক্তি বইটি পড়ে বেশ কয়েক জায়গায় ধাক্কা খাবে । লজ্জায় কুঁকড়ে যাবে । এরপর হয়তো নিজেকে মসজিদে উপস্থিত করতে বাধ্য হবে, ইন শা আল্লাহ্ ।
    বইটির পেছনে শ্রমদানকারী সকলকে আল্লাহ্ উত্তম প্রতিদান দিক ।

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  5. 5 out of 5

    :

    আলহামদুলিল্লাহ, বইটি পড়ে শেষ করলাম। লেখক খুব সুন্দর করে দৈনন্দিন জীবনে সালাতের গুরুত্ব বোঝানোর চেষ্টা করেছেন।
    আমরা যারা সালাতের ব্যাপারে উদাসীন তাদের এই বইটি অবশ্যই পড়া উচিৎ। আল্লাহ আমাদের সবাইকে বোঝার এবং আমল করার তৌফিক দান করুক।
    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top