মেন্যু
sultan saifuddin kutuz the battalion

সুলতান সাইফুদ্দিন কুতুজ দ্য ব্যাটালিয়ন

পৃষ্ঠা : 288, কভার : হার্ড কভার
তাতার ও মঙ্গোল, মামলুক, আইন জালুত, শাজারাতুদ-দুর, সাইফুদ্দিন কুতুজ, রুকনুদ্দিন বাইবার্স এগুলো এখন বাংলাভাষাভাষী মানুষের কাছে পরিচিত নাম। এসব নিয়েই রচিত গবেষণাধর্মী এ ইতিহাসগ্রন্থটি। এ গ্রন্থটিতে মঙ্গোলদের মোকাবিলায় মামলুকদের সার্বিক তৎপরতা... আরো পড়ুন

Out of stock

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

2 রিভিউ এবং রেটিং - সুলতান সাইফুদ্দিন কুতুজ দ্য ব্যাটালিয়ন

3.5
Based on 2 reviews
5 star
0%
4 star
50%
3 star
50%
2 star
0%
1 star
0%
Showing 1 of 2 reviews (3 star). See all 2 reviews
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published.

  1. 3 out of 5

    উসামা আযফার:

    আমরা হালাকু খানের হাতে বাগদাদ ধ্বংসের কথা খুব ইনিয়ে-বিনিয়ে বর্ণনা করতে পারলেও খোদ হালাকু খানের সেই বাহিনী যার হাতে চরমভাবে পর্যুদস্ত হয় এবং অত্যান্ত লজ্জাজনকভাবে পরাজয় বরণ করে—মুসলিম উম্মাহর সেই বীর পুরুষ মর্দে মুমিন সাইফুদ্দিন কুতুজের কথা আমরা ক’জন জানি। সুলতান সালাহুদ্দিন আইয়ূবির হাতে ক্রুসেডারদের পরাজয় কাহিনী সম্পর্কে সম্যক অবগত থাকলেও অসংখ্য যুদ্ধে যিনি ক্রুসেডারদের বারংবার পরাজয়ের তিক্ত স্বাদ আস্বাদন করিয়েছেন মামলুক সুলতান রুকনুদ্দিন বাইবার্সের নাম ক’জন শুনেছি। অথচ বাইবার্স কোনভাবেই আইয়ূবি থেকে কোন অংশে কম ছিলেন না।
    .
    সুলতান সাইফুদ্দিন কুতুজ। যিনি ছিলেন তৎকালীন বিশ্বের সবচেয়ে বড় ইসলামি সাম্রাজ্য খাওয়ারিজমের মহান সুলতান জালালুদ্দিনের ভাগ্নে। ভাগ্যের পালাবদলে যখন খাওয়ারিজম সাম্রাজ্য তাতারদের হাতে তছনছ হয়ে যায়। তখন কেউ দিগ্বিদিক পালাতে থাকে, কেউ তাতারদের হাতে নিহত অথবা বন্দি হয়। বন্দিদেরকে দাসবাজারে নিয়ে বিক্রি করা হয়। দুর্ভাগ্যবশত বন্দিদের মধ্যে কুতুজও ছিলেন একজন। কালের বিবর্তনে মুনিবের হাত বদল হতে হতে তিনি মিশরে এসে পৌঁছেন এবং আল্লাহর ইচ্ছানুযায়ী একসময় মিশরের সিংহাসনে আদিষ্ট হন।
    .
    কুতুজ যেহেতু ছোটকাল থেকেই বর্বর তাতারদের হিংস্রতার প্রত্যক্ষদর্শী ছিলেন তাই সবসময় তাতারদের বিরুদ্ধে জিহাদের বুকভরা স্বপ্ন তার মাঝে বিদ্যমান ছিল। অতঃপর যখন তিনি সিংহাসনে আরোহন করেন তখন সেই মোক্ষম সুযোগটি আসল। আল্লাহর অনুগ্রহে তিনি ঈমান ও জিহাদের ময়দানে আবির্ভূত হন ধুমকেতুর গতি নিয়ে। আইনে জালুতের যুদ্ধে চির অজেয়খ্যাত তাতারদের মেরুদণ্ড গুড়িয়ে দেন। সেদিন আইনে জালুতে কোন তাতার সৈন্য বেঁচে ফিরতে পারেনি। স্বয়ং তাতারদের সেনাপতি কিতবুগা নয়ান সেই যুদ্ধে নিহত হয়। তখনকার মানুষরা তাতারদের ইয়াজুজ-মাজুজ মনে করত। তারা মনে করত তাতারদের পরাজিত করা অসম্ভব। আইনে জালুতে তাতারদের পরাজয়ে মুসলমানদের সেই ধারণা বিলুপ্ত হয়।
    .
    সেই মহান সুলতান সাইফুদ্দিন কুতুজের জীবনেতিহাস সম্পর্কে ড. সাল্লাবির আরবি বইয়ের বঙ্গানুবাদ করেছে কালান্তর প্রকাশনী দ্য ব্যাটালিয়ান নামে। অনুবাদ করেছেন আমাদেরই এলাকার মানসূর আহমাদ ভাই। সম্পাদনা করেছেন আবদুর রশীদ তারাপাশী। বইয়ে পাঠক হয়ত বানান বিভ্রমে পরবেন। বইয়ে কালান্তরের নিজস্ব ফন্ট ব্যবহার করা হয়েছে। এতে প্রতিটি যুক্তাক্ষরকে স্পষ্ট করে দেয়া হয়েছে—কোন অক্ষর মিলে কোন শব্দ হয়েছে। শুদ্ধ বানান ও উচ্ছারণ সম্পর্কে সচেতন হওয়ার জন্যই এ প্রয়াস।
    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top