মেন্যু
১০০০ টাকার পণ্য কিনলে সারা দেশে ডেলিভারি একদম ফ্রি।

সাহাবায়ে কেরামের ঈমানদীপ্ত জীবন (রাযিয়াল্লাহু আনহুম) ১ম এবং ২য় খণ্ড

আব্দুল্লাহ ইবনে মুবারককে (রহঃ) যখন উনার সঙ্গী সাথীরা জিজ্ঞেস করতো, আপনি আমাদের সাথে সময় না কাটিয়ে একা একা থাকেন কেন? জবাবে ইবনে মুবারক বলতেন, আমি তো সাহাবীদের সাথে থাকি? যখন জিজ্ঞেস করা হতো কিভাবে তিনি বলতেন, আমি সাহাবীদের জীবনী পড়ি!’
যখন কারো ঈমান দুর্বল হয়ে পড়ে, গুনাহে লিপ্ত হয়ে পড়ে, যখন আল্লাহর ইবাদতে কোন জোস থাকে না তখনও উলামারা সাজেস্ট করেন সাহাবী, তাবেঈদের জীবনী অধ্যয়নের।
.
সাহাবী, তাবেঈদের ঈমানদীপ্ত জীবনী রচনায় যেকজন লেখক প্রসিদ্ধি লাভ করেছেন তাদের একজন ড. আব্দুর রহমান রাফাত পাশা (রহঃ)।

মুসলিম বিশ্বে সাড়া জাগানো লেখক ড. আবদুর রহমান রাফাত পাশা লিখিত এবং মাও. মাসউদুর রহমান অনূদিত বই। সাহাবাদের তাজা ঈমানের আসরে বসে ঈমান তাজা করার মত একটা কিতাব।

২ খণ্ডে সমাপ্ত। প্রত্যেক খণ্ডে ৫৪ জন সাহাবির জীবনি উল্লেখ করা হয়েছে।

১ম খণ্ডের পৃষ্ঠা সংখ্যা ৬৯৬
২য় খণ্ডের পৃষ্ঠা সংখ্যা ৬০৭

Clear
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

4 রিভিউ এবং রেটিং - সাহাবায়ে কেরামের ঈমানদীপ্ত জীবন (রাযিয়াল্লাহু আনহুম) ১ম এবং ২য় খণ্ড

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    #ওয়াফিলাইফ_পাঠকের_ভালোলাগা_জুলাই_২০২০

    #বইটি_আমাদের_কেন_পড়া_দরকার?
    ইসলামের প্রারম্ভে যারা ইসলামের পতাকা উঁচিয়ে তুলেছিলেন, যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে ইসলাম আজ সারা বিশ্বে প্রতিষ্ঠিত, যারা পদে পদে সয়েছেন লাঞ্চনা, দুঃখ-কষ্ট তারাই হচ্ছেন সাহাবায়ে কেরাম (রাদিয়াল্লাহু আনহুম)। তারাই আামাদের আমাদের পূর্বসূরি, তারাই আামাদের গর্বের বিষয়। তারাই ছিলেন ইসলামমের প্রথম সৈনিক, তারাই ছিলেন প্রকৃত ঈমানদার। যদি আমরা নিজেদের ঈমানকে পাকাপোক্ত করতে চাই তাহলে সাহাবী রাদিয়াল্লাহু আনহুমদের জীবনী জানার বিকল্প নেই। আর জানার জন্য প্রয়োজন বিশুদ্ধ দলিলভিত্তিক কোন বই। ‘সাহাবায়ে কেরামের ঈমানদীপ্ত জীবন’ এমনই একটি বই।

    #বইটি_যেভাবে_সাজানোঃ
    বইটির প্রত্যেক খন্ডে ৫৪ জন সাহাবীর জীবনী দেয়া আছে। বইটি লেখক নিজের মত করে লিখেছেন। অন্যসব সীরাত বইয়ের মত গতবাধা নিয়মে লেখা হয়নি বইটি। এই বইটির রয়েছে বিশেষ কিছু বিশেষত্ব। লেখক বিভিন্ন সীরাত বই থেকে জ্ঞান অর্জন করে সাহাবীদের জীবনে ঘটে যাওয়া বিশেষ কিছু ঘটনা সাহিত্যের ভাষায় অসাধারণ মাধুর্য দিয়ে তুলে ধরেছেন, যা আমাদের ঈমানের পারদকে বাড়িয়ে তুলবে বহুগুন। লেখক একেকজন সাহাবীর জীবনী একেকভাবে, একেক জায়গা থেকে শুরু করেছন। ফলে করে সবার জীবনী একই ভাবে লেখা না থাকায় পাঠক একেক সাহাবীর জবনীতে একেক ধরনের স্বাদ পাবেন। কাহিনী গুলো বেশি বড় না হওয়ায় পাঠকের হাঁপিয়ে ওঠার সম্ভবনা নেই।

    #বই_সম্বন্ধে_আমার_মন্তব্যঃ
    সাহাবায়ে কেরামের ঈমানদীপ্ত জীবন বইটি পড়ে আমি অন্য এক জগতে হারিয়ে গিয়েছিলাম। মন চাইছিল বইটি একবারে পড়ে উঠি। কিন্তু এত বড় বই কি একবারে পড়ে উঠা যায় বলেন! আমি প্রত্যেকটি সাহাবীর জীবন কাহিনী পড়ছিলাম আর নিজের অজান্তেই চোখ অশ্রুসিক্ত হয়ে আসছিল। বিশেষ করে যখন কাহিনীর শেষের দিকে মৃত্যুর কথা পড়ছিলাম তখন। বইটি পড় আমার মনে হয়েছে আমার ঈমানের পারদ বেড়ে গিয়েছে। নিজেকে সাহাবীদের অাদর্শে উজ্জীবিত করার ইচ্ছে তৈরি হয়। সর্বোপরি এটা এমন একটা বই যে বইয়ের স্বাদ অন্য কোন সীরাত বইতে পাওয়া যাবে না।

    0 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
  2. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    #ওয়াফিলাইফ_পাঠকের_ভালোলাগা_জুলাই_২০২০

    #বইঃ সাহাবায়ে কেরামের ঈমানদীপ্ত জীবন (রাযিয়াল্লাহু আনহুম) ১ম এবং ২য় খণ্ড,
    লেখক : ডক্টর আব্দুর রহমান রাফাত পাশা,

    #প্রথমেঃ
    ইসলামের প্রারম্ভে যারা ইসলামের পতাকা উঁচিয়ে তুলেছিলেন, যাদের অক্লান্ত পরিশ্রমে ইসলাম আজ সারা বিশ্বে প্রতিষ্ঠিত, যারা পদে পদে সয়েছেন লাঞ্চনা, দুঃখ-কষ্ট তারাই হচ্ছেন সাহাবায়ে কেরাম (রাদিয়াল্লাহু আনহুম)। তারাই আামাদের আমাদের পূর্বসরি, তারাই আামাদের গর্বের বিষয়। তারাই ছিলেন ইসলামমের প্রথম সৈনিক, তারাই ছিলেন প্রকৃত ঈমানদার। যদি আমরা নিজেদের ঈমানকে পাকাপোক্ত করতে চাই তাহলে সাহাবী রাদিয়াল্লাহু আনহুমদের জীবনী জানার বিকল্প নেই। আর জানার জন্য প্রয়োজন বিশুদ্ধ দলিলভিত্তিক কোন বই। ‘সাহাবায়ে কেরামের ঈমানদীপ্ত জীবন’ এমনই একটি বই।

    #বইটি_যেভাবে_সাজানোঃ
    বইটির প্রত্যেক খন্ডে ৫৪ জন সাহাবীর জীবনী দেয়া আছে। বইটি লেখক নিজের মত করে লিখেছেন। অন্যসব সীরাত বইয়ের মত গতবাধা নিয়মে লেখা হয়নি বইটি। এই বইটির রয়েছে বিশেষ কিছু বিশেষত্ব। লেখক বিভিন্ন সীরাত বই থেকে জ্ঞান অর্জন করে সাহাবীদের জীবনে ঘটে যাওয়া বিশেষ কিছু ঘটনা সাহিত্যের ভাষায় অসাধারণ মাধুর্য দিয়ে তুলে ধরেছেন, যা আমাদের ঈমানের পারদকে বাড়িয়ে তুলবে বহুগুন। লেখক একেকজন সাহাবীর জীবনী একেকভাবে, একেক জায়গা থেকে শুরু করেছন। ফলে করে সবার জীবনী একই ভাবে লেখা না থাকায় পাঠক একেক সাহাবীর জবনীতে একেক ধরনের স্বাদ পাবেন। কাহিনী গুলো বেশি বড় না হওয়ায় পাঠকের হাঁপিয়ে ওঠার সম্ভবনা নেই।

    #বই_সম্বন্ধে_আমার_মন্তব্যঃ
    সাহাবায়ে কেরামের ঈমানদীপ্ত জীবন বইটি পড়ে আমি অন্য এক জগতে হারিয়ে গিয়েছিলাম। মন চাইছিল বইটি একবারে পড়ে উঠি। কিন্তু এত বড় বই কি একবারে পড়ে উঠা যায় বলেন! আমি প্রত্যেকটি সাহাবীর জীবন কাহিনী পড়ছিলাম আর নিজের অজান্তেই চোখ অশ্রুসিক্ত হয়ে আসছিল। বিশেষ করে যখন কাহিনীর শেষের দিকে মৃত্যুর কথা পড়ছিলাম তখন। বইটি পড় আমার মনে হয়েছে আমার ঈমানের পারদ বেড়ে গিয়েছে। নিজেকে সাহাবীদের অাদর্শে উজ্জীবিত করার ইচ্ছে তৈরি হয়। সর্বোপরি এটা এমন একটা বই যে বইয়ের স্বাদ অন্য কোন সীরাত বইতে পাওয়া যাবে না।

    0 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
  3. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    যতই পড়ছি ততই অবাক হচ্ছি! কতটা দৃঢ় ছিল তাঁদের ঈমান। দুই খন্ডের যথেষ্ট বড় বই হলেও কেন জানি দ্রুতই ফুরিয়ে গেলো পড়া। ঈমান কে পুনরুজ্জীবিত করতে অবশ্যই বইটি সবার পড়া উচিত।
    4 out of 5 people found this helpful. Was this review helpful to you?
  4. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    One of the best book I have ever read. Zajakallah.
    6 out of 8 people found this helpful. Was this review helpful to you?