মেন্যু


এসো নাহব শিখি

প্রকাশনী : দারুল কলম
পরিমাণ

80 

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
- ১৪৯৯+ টাকার অর্ডারে সারাদেশে ফ্রি শিপিং!

1 রিভিউ এবং রেটিং - এসো নাহব শিখি

5.0
Based on 1 review
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    ভাষা শিক্ষার ক্ষেত্রে ব্যাকরণের ভূমিকা অপরিসীম। যেকোনো ভাষা শিখতে গেলে আপনার ব্যাকরণ সম্মন্ধে কিছুটা হলেও ধারণা রাখতে হবে। হোক সেটা বাংলা, ইংরেজি, উর্দু, হিব্রু কিম্বা ফারসি ভাষা। ব্যাকরণের প্রয়োজন আপনার হবেই। ব্যাকরণ ছাড়া ভাষা শিক্ষা— নিছক বোকামিই বৈকি!

    অন্যান্য ভাষার মতো আরবি ভাষা শিখতেও ব্যাকরণের প্রয়োজন হয়। আর আরবির ব্যাকরণকে বলা হয় “ক্বাওয়াঈদুল লুগাতি”। এটি আবার দুটি ভাগে বিভক্ত। তন্মধ্যে একটি হচ্ছে ‘নাহু-বিদ্যা’ আর অপরটি ‘সরফ-বিদ্যা’। তবে ‘নাহু-বিদ্যা’ শিখতে হলে আগে ‘সরফ-বিদ্যা’ সম্পর্কে কিছু ধারণা থাকা জরুরী।

    আর ‘নাহু-বিদ্যা’র প্রাথমিক পর্যায়ের একটি বইই হচ্ছে এই ‘এসো নাহব শিখি’। বইটি বাংলা ভাষায় হওয়ার দরুন— ছাত্ররা এর দ্বারা বেশ উপকৃত হয়। কেননা, আমার জানামতে— ‘নাহু-বিদ্যা’র প্রাথমিক পর্যায়ের সবগুলো বইই উর্দু কিম্বা ফারসিতে লেখা। (আমি সঠিক বলতে পারছি না। বাংলা থাকলে থাকতেও পারে। তবে— বাংলা ভাষায় এটাই প্রথম বই।) তাই অনেক ছাত্রই তা আয়ত্ত করতে বেশ হিমশিম খেয়ে যায়।

    যা আছে বইটিতেঃ—

    এ বইটিতে নাহুর প্রাথমিক পর্যায়ের সবকিছুই রয়েছে (নাহুর পরিচয় থেকে শুরু করে)। আর সেগুলোকে অনেকগুলো পাঠে বিভক্ত করা হয়েছে। প্রতিটা পাঠের শেষেই রয়েছে পুরো পাঠের ‘মূলকথা’— যা ছাত্রদেরকে পুরো পাঠের বিষয়বস্তু এককথায় বুঝিয়ে দেয়।

    তার সাথে আবার রয়েছে অনুশীলন ও প্রশ্নমালা। যার মাধ্যমে প্রতিটা পাঠের শেষে ছাত্ররা সেই পাঠে কী বুঝলো— এই বিষয়েও সামান্য পরীক্ষা নেওয়া যায়।

    এছাড়াও রয়েছে পাঠের সুন্দর উপস্থাপন— যা ছাত্রদেরকে অতি সহজেই পাঠ্যবস্তু বুঝতে সহায়তা করে।

    লেখক সম্মন্ধেঃ—

    (লেখক সম্মন্ধে আমি ‘এসো আরবি শিখি’র রিভিউতে লিখেছিলাম। আর এ বইটিও যেহেতু তারই লেখা— তাই আগেরটাই এখানে অনুলিপি করছি।)

    মাওলানা আবু তাহের মিসবাহ— বর্তমান সময়ের একজন সেরা ও দক্ষ কলম সৈনিক। এককালে যখন আমাদের কওমী অঙ্গন বাংলা সাহিত্যের ভালো একজন লেখকের অভাবে হা-হুতাশ করছিল— ঠিক সে সময়ে তিনি জাতির “মিসবাহ” রূপে আবির্ভূত হন। সাইয়্যেদ আলী নাদাবীর দেখানো পথে অগ্রসর হয়ে তিনি জাতির বড়সড় একটা ঘাটতি পূরণ করেন। তিনি একে একে রচনা করেন বহু মৌলিক কিতাব। শুধু যে মৌলিক কিতাবেই তিনি সীমাবদ্ধ ছিলেন— তা নয়। বরঞ্চ, তার পাশাপাশি তিনি বেশ কিছু বইয়ের অনুবাদও করেছেন। যেগুলো ইতোমধ্যে পাঠকমহলে বেশ সুনাম অর্জন করেছে।

    হুজুরের কয়েকটি মৌলিক বই (দরসী)
    ১| এসো আরবি শিখি
    ২| এসো কুরআন শিখি
    ৩| এসো সরফ শিখি
    ৪| এসো নাহু শিখি
    ৫| এসো ফিকহ্ শিখি— ইত্যাদি।

    হুজুরের কয়েকটি মৌলিক বই (গায়রে দরসী)
    ১| এসো কলম মেরামত করি
    ২| বাইতুল্লাহর ছায়ায়
    ৩| বাইতুল্লাহর মুসাফির
    ৪| তুরস্কে তুর্কিস্তানের সন্ধানে
    ৫| দরদী মালীর কথা শোনাে— (১ – ৩) ইত্যাদি।

    হুজুরের কয়েকটি অনুবাদ গ্রন্থ
    ১| তোমাকে ভালবাসি হে নবী
    ২| মুসলমানদের পতনে বিশ্ব কী হারালো? ইত্যাদি।

    এছাড়াও হুজুরের আরও অনেক বই রয়েছে।

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top