মেন্যু
১০০০ টাকার পণ্য কিনলে সারা দেশে ডেলিভারি একদম ফ্রি।

অন্তরের রোগ (১ম ও ২য় খণ্ড)

অনুবাদ : হাসান মাসরুর ও আব্দুল্লাহ ইউসুফ
সম্পাদনা : মুফতি তারেকুজ্জামান

অন্তরকে অসুস্থ-রোগাক্রান্ত করে তোলে এমনই কিছু কঠিন রোগের আলোচনা নিয়ে অসংখ্য প্রবন্ধ লিখেছেন শায়খ সালিহ আল মুনাজ্জিদ। সেসকল প্রবন্ধেরর সংকলন নিয়ে  ‘অন্তরের রোগ’ নামে প্রকাশীত হয়েছে।।

এর প্রথম খণ্ডে থাকছে—

  • ০১. আসক্তি,
  • ০২. প্রবৃত্তির অনুসরণ,
  • ০৩. দুনিয়ার মহব্বত,
  • ০৪. নিফাক 

এবং দ্বিতীয় খণ্ডে থাকছে—

  • ০১. প্রেমাসক্তি,
  • ০২. গাফিলতি,
  • ০৩. ঝগড়া-বিবাদ,
  • ০৪. অহংকার,
  • ০৫. নেতৃত্বের লোভ 

প্রতিটি রোগে আক্রান্ত হওয়ার কারণ, এর ক্ষতি-অপকারিতা এবং রোগ থেকে বাঁচার চিকিৎসা ও উপায় সম্পর্কে বিশদ আলোচনা করা হয়েছে এই সিরিজে।

Clear
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

1 রিভিউ এবং রেটিং - অন্তরের রোগ (১ম ও ২য় খণ্ড)

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    #ওয়াফিলাইফ_পাঠকের_ভালোলাগা_এপ্রিল_২০২০

    ব‌ই-অন্তরের রোগ
    মূল-শাইখ মুহাম্মাদ সালেহ আল-মুনাজ্জিদ
    অনুবাদ-হাসান মাসরুর ও আব্দুল্লাহ ইউসুফ
    প্রকাশক-মুফতি ইউনুস মাহবুব

    *****ব‌ই পরিচিতি*****‌
    ব‌ইটি দুই খণ্ডে রচিত,
    প্রথম খন্ডে ৪ টি অধ্যায়, পৃষ্ঠা সংখ্যা-২৪২
    দ্বিতীয় খন্ডে ৫ টি অধ্যায়, পৃষ্ঠা সংখ্যা-২৭৮
    প্রতিটা অধ্যায়কে বিভিন্ন ভাবে ভাগ করা হয়েছে।
    মূল্য-৫১০টাকা(১ম ও২য় খন্ড)

    এক বছর আগে ব‌ইটি আমাকে দিয়েছিল আমার এক শুভাকাঙ্খী আন্টি। আমি তখন খুব হতাশা, দুশ্চিন্তাগ্রস্ত ছিলাম। ইসলাম, দ্বীন-দুনিয়া নিয়ে তখন এতটা ভাবতাম না। পার্থিব জীবনের চাওয়া পাওয়া নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। কোন কিছু মন মতো না হলে খুব কষ্ট হতো। নিজের সাথে হ‌ওয়া অন্যায় কস্ট দিত খুব। আল্লাহর প্রতি তায়াক্কুল,ধর্য্য ছিল না বললেই চলে।।।।।।।।
    এই ব‌ইটি পড়ে নিজেকে আস্তে আস্তে পরিবর্তন করতে শুরু করি,,,,,,,,,,আজ নিজেকে কতটুকু পরিবর্তন করতে পেরেছি জানি না, কিন্তু মনকে শান্ত করতে পেরেছি।।।।।এটা বুঝতে পেরেছি কারো বাহ্যিক আমল সুন্দর হ‌ওয়া নির্ভর করে তার অন্তরের অবস্থার উপর,যার অন্তরের অবস্থা যত সুন্দর হয় তার আমল ও ততো সুন্দর।

    “অন্তরের রোগ” দুইটি শব্দ কিন্তু গভীরতা ব্যাপক। অন্তরের রোগে আক্রান্ত হ‌ওয়া গুনাহে ডুবে থাকার মূল একটি কারণ।যার অন্তর রোগাক্রান্ত সে সত্যের দিকে ধাবিত হয় না। সঠিক বিষয় মেনে নিতে চায় না।সব বিষয়ে নেতিবাচক ধারণা করে। আল্লাহর ইবাদত আনুগত্যে সে স্বাদ পায় না। অধিকাংশ মানুষই অন্তরের অবস্থার ব্যাপারে একেবারেই উদাসীন।
    এ গ্রন্থের প্রথম খন্ডে আসক্তি, প্রবৃত্তির অনুসরণ, দুনিয়ার মহব্বত ও নিফাক অন্তরের এ চারটি রোগ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।
    মানুষকে দুনিয়ার মধ্যে ডুবে থাকতে বাধ্য করা,
    ধন সম্পদ, প্রভাব-প্রতিপত্তি, মর্যাদা ও খ্যাতির লোভ,
    অন্যের হক নষ্ট করে নিজে ভক্ষণ করা, ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করা,এসব‌ই মনের রোগ।
    যে অন্তর নিফাকে আক্রান্ত,তা কিভাবে ধারণ করবে প্রকৃত ঈমানকে? যে অন্তর মন্দ কামনা-বাসনার মাঝে বিভোর থাকে,কেবল লালসা পূরণের পথে চলে,তা কি পারে নেক আমলের স্বাদ আস্বাদন করতে? যে অন্তর দুনিয়ার মহব্বতে, সম্মান-মর্যাদা নেতৃত্বের লোভে কানায় কানায় পূর্ণ থাকে, তা কি আখিরাতের মহাসাফল্যের কথা একটুও ভাবে? একটি অসুস্থ রোগাক্রান্ত অন্তরের পরিণতি অনেক অনেক ভয়ংকর-ভয়াবহ। এপারেও…..ওপারেও….
    ব‌ইটির দ্বিতীয় খন্ডে প্রেমাসক্তি, গাফিলতি, ঝগড়া বিবাদ, অহংকার ও নেতৃত্বের লোভ অন্তরের এ পাঁচটি রোগ সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।
    প্রতিটা রোগের‌ই প্রতিষেধক আছে,,,,,

    তাই আসুন আমরা বেঁচে থাকি অন্তরের সকল রোগ থেকে। সত্য-সঠিক বিষয়কে উপলব্ধি করি সস্থ অন্তর দিয়ে।।।
    Please এই ব‌ইটি পড়ুন,অন্তরের রোগের প্রতিষেধক খুঁজে বের করুন,,,,,,,,

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?