মেন্যু
nire ferar ahban

নীড়ে ফেরার আহবান

প্রকাশনী : আয়ান প্রকাশন
সম্পাদক : ওস্তাদ তানজীল আরেফীন আদনান
পৃষ্ঠা : 199, কভার : পেপার ব্যাক, সংস্করণ : 1st Published, 2022
আইএসবিএন : 9789849599869, ভাষা : বাংলা
দিনশেষে ক্লান্ত আমরা নিজের বাড়িতে যে শান্তির একটা অনুভূতি পাই তা কি আর কোথাও পাওয়া যায়? যায় না! কারণ নিজের ঘরেই নিজের আসল সুখ, যে সুখ পৃথিবীর অন্য কোথাও নেই।... আরো পড়ুন
পরিমাণ

180  360 (50% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

11 রিভিউ এবং রেটিং - নীড়ে ফেরার আহবান

4.6
Based on 11 reviews
Showing 8 of 11 reviews (5 star). See all 11 reviews
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    Kajol akhi:

    বেলা শেষে সকলেই আপন নীড়ে পাড়ি জমাতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে। কালের নিয়মে এটি হয়েই আসছে। সবাইকে ঠিক নীড়ে ফিরে যেতে হয়। স্বীয় রবকে ভুলে গিয়ে যখন তরুণ-তরুণীরা দুনিয়ার অশ্লীলতায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে;তখনও সৃষ্টিকর্তা ক্ষোভ প্রকাশ করে কারো রিযিক বন্ধ করে দেননা। তিনি ঠিক আশা করেন তার সৃষ্টি তাঁর দিকে ফিরবে, তাঁর কাছে গিয়ে অনুতপ্ত কন্ঠে বলবে,’আমার রব! আমাকে ক্ষমা করুন’। তখন তিনি বান্দাকে ক্ষমা করে দিবেন। কারণ তিনিই ক্ষমাশীল।
    দুনিয়ার এই সাময়িক আনন্দে মেতে উঠে আমরা আজ নিজেদের হারাতে ব্যস্ত। তেমনি কয়েকটি চরিত্রের অন্ধকার থেকে আলোর পথে ফিরে আসার গল্পের সমন্বয়ে নীড়ে ফেরার আহ্বান বইটির জন্ম। বইয়ের প্রত্যেকটি গল্পে রয়েছে আলাদা আলাদা শিক্ষা যা আমাদের ব্যক্তি জীবনে অত্যন্ত প্রয়োজন।
    বান্দা গুনাহর পর একদিন ঠিক নীড়ে ফেরে। স্বীয় রবের কাছে ফিরে আসে। এমন গল্পগুলোকে কল্পনায় সাজিয়ে তুলেছেন লেখিকা টিম। যাদের প্রত্যেকের লেখায় উঠে এসেছে আমাদের জীবনের সাথে মিলে যাওয়া ঘটনা সমগ্র।

    বইটি আমাদের সকলের পড়া উচিত। হয়তো মিলে যেতে পারে আমার কিংবা আপনার সাথে। আবার এই বইয়ের মাধ্যমেও হয়তো নীড়ে ফিরে যাবে এক যাক প্রাণ। আপন রবকে চিনতে পেরে পাখিরা ফিরুক মুসল্লায়, অনুভব করতে পারুক রব যে তার ফেরার অপেক্ষায়।

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    Juwairiya:

    বেলা শেষে সকলেই আপন নীড়ে পাড়ি জমাতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে। কালের নিয়মে এটি হয়েই আসছে। সবাইকে ঠিক নীড়ে ফিরে যেতে হয়। স্বীয় রবকে ভুলে গিয়ে যখন তরুণ-তরুণীরা দুনিয়ার অশ্লীলতায় নিজেকে বিলিয়ে দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে;তখনও সৃষ্টিকর্তা ক্ষোভ প্রকাশ করে কারো রিযিক বন্ধ করে দেননা। তিনি ঠিক আশা করেন তার সৃষ্টি তাঁর দিকে ফিরবে, তাঁর কাছে গিয়ে অনুতপ্ত কন্ঠে বলবে,’আমার রব! আমাকে ক্ষমা করুন’। তখন তিনি বান্দাকে ক্ষমা করে দিবেন। কারণ তিনিই ক্ষমাশীল।

    দুনিয়ার এই সাময়িক আনন্দে মেতে উঠে আমরা আজ নিজেদের হারাতে ব্যস্ত। তেমনি কয়েকটি চরিত্রের অন্ধকার থেকে আলোর পথে ফিরে আসার গল্পের সমন্বয়ে নীড়ে ফেরার আহ্বান বইটির জন্ম। বইয়ের প্রত্যেকটি গল্পে রয়েছে আলাদা আলাদা শিক্ষা যা আমাদের ব্যক্তি জীবনে অত্যন্ত প্রয়োজন।
    বান্দা গুনাহর পর একদিন ঠিক নীড়ে ফেরে। স্বীয় রবের কাছে ফিরে আসে। এমন গল্পগুলোকে কল্পনায় সাজিয়ে তুলেছেন লেখিকা টিম। যাদের প্রত্যেকের লেখায় উঠে এসেছে আমাদের জীবনের সাথে মিলে যাওয়া ঘটনা সমগ্র।

    বইটি আমাদের সকলের পড়া উচিত। হয়তো মিলে যেতে পারে আমার কিংবা আপনার সাথে। আবার এই বইয়ের মাধ্যমেও হয়তো নীড়ে ফিরে যাবে এক যাক প্রাণ। আপন রবকে চিনতে পেরে পাখিরা ফিরুক মুসল্লায়, অনুভব করতে পারুক রব যে তার ফেরার অপেক্ষায়।

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    arifbdeshok:

    লেখকের ভাষায় বইটি সম্পর্কে বললে বলতে হয় –
    সে সকল তৃষ্ণার্ত অন্তরকে, যে
    অন্তর রবের রহমতের তৃষ্ণায়
    কাঁতর। তাদের জন্যই এ বইটি।

    নীড়ে ফেরার আহ্বান বলতে নীড় তথা আমাদের মূল যে বাড়ি তথা আখিরাতের দিকে ফেরার ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। বইটি সম্পর্কে বলতে গেলে প্রত্যাবর্তিত নক্ষত্র বইটির মতোই বলতে হয় –
    আমাদের চারপাশে এখন মোটিভেশনাল বক্তা, মোটিভেশান স্পিচ, মোটিভেশনাল বইয়ের অভাব নেই। মোটিভেশান যে একদমই ভালো না, তা না। তবে এসব মোটিভেশানে একটি জিনিস সর্বদা মিসিং থাকে। সেই জিনসটি হচ্ছে ইসলাম। আমাদের মূল ঠিকানা হচ্ছে আখিরাত। কিন্তু কি মোটিভেশান কি গল্প-উপন্যাস কোথাও আখিরাতের পুজি কিভাবে সংগ্রহ করতে হয়, কিভাবে সফল হতে হয়, কিভবে দ্বীনে ফেরা যায় তা পাওয়া যায় না।। এ জিনিসটিই কিন্তু আমাদের সবচেয়ে বেশি দরকার। এ দরকার পূরণেই লেখা এ বই নীড়ে ফেরার আহ্বান। বিশেষ করে আমাদের তরুণ প্রজন্মের এ ধরনের ইসলামি বইগুলো বেশি টানবে। আর এভাবেই ধীরে ধীরে তারাও ইসলাম সম্পর্কে জানতে পারবে। বইটতে মোট ২২ টি গল্প-কথার মাধ্যমে আমাদেরকে নীড়ে ফেরার আহ্বান করা হয়েছে।

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  4. 5 out of 5

    arifbdeshok:

    ◾নীড়ে ফেরার আহ্বান ◾

    লেখকের ভাষায় বইটি সম্পর্কে বললে বলতে হয় –
    সে সকল তৃষ্ণার্ত অন্তরকে, যে
    অন্তর রবের রহমতের তৃষ্ণায়
    কাঁতর। তাদের জন্যই এ বইটি।

    নীড়ে ফেরার আহ্বান বলতে নীড় তথা আমাদের মূল যে বাড়ি তথা আখিরাতের দিকে ফেরার ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে। বইটি সম্পর্কে বলতে গেলে প্রত্যাবর্তিত নক্ষত্র বইটির মতোই বলতে হয় –
    আমাদের চারপাশে এখন মোটিভেশনাল বক্তা, মোটিভেশান স্পিচ, মোটিভেশনাল বইয়ের অভাব নেই। মোটিভেশান যে একদমই ভালো না, তা না। তবে এসব মোটিভেশানে একটি জিনিস সর্বদা মিসিং থাকে। সেই জিনসটি হচ্ছে ইসলাম। আমাদের মূল ঠিকানা হচ্ছে আখিরাত। কিন্তু কি মোটিভেশান কি গল্প-উপন্যাস কোথাও আখিরাতের পুজি কিভাবে সংগ্রহ করতে হয়, কিভাবে সফল হতে হয়, কিভবে দ্বীনে ফেরা যায় তা পাওয়া যায় না।। কিন্তু এ জিনিসটিই কিন্তু আমাদের সবচেয়ে বেশি দরকার। এ দরকার পূরণেই লেখা এ বই নীড়ে ফেরার আহ্বান। বিশেষ করে আমাদের তরুণ প্রজন্মের এ ধরনের ইসলামি বইগুলো বেশি টানবে। আর এভাবেই ধীরে ধীরে তারাও ইসলাম সম্পর্কে জানতে পারবে। বইটতে মোট ২২ টি গল্প-কথার মাধ্যমে আমাদেরকে নীড়ে ফেরার আহ্বান করা হয়েছে।

    কিছু চমৎকার শিরোনাম দেখি যাতে বইটি সম্পর্কে একটা সম্যক ধারণা পাওয়া যায়,
    – ভালোবাসা হোক কেবল আল্লাহর জন্য ।
    – এক টুকরো আলো ।
    – নীড়ে ফেরার উপাখ্যান ।
    – পরীক্ষাগার ।
    – জান্নাতের সবুজ পাখি ।

    – নীড়ে ফেরা ।
    – স্বপ্নজয়ের গল্প ।

    – ভুলের সমাপ্তি ।

    – নেয়ামত ।
    – অতঃপর পরদিন ।

    বইটির একটি অংশ থেকে একটি দোয়া তুলে দিচ্ছি, ‘আমার রব, আপনার দিকে মাথা তুলে তাকানোর সাহসটুকু
    আমার নেই। আমি অধম জীবনে অনেক ভুল করেছি। মাওলাগো, আমি গুনাহগার।
    তুমি মাওলা আমাকে ফিরিয়ে দিয়ো না। ও আল্লাহ, তুমি ছাড়া আমার আর কে
    আছে বলো না! তুমি মাওলা মেহেরবানি করে আমায় ফিরিয়ে দিয়ো না।’ কি চমৎকার হৃদয়গ্রাহী দোয়া।

    আশা করি বইটি আমাদের আলোর পথে নেওয়ার ক্ষেত্র সহায়ক হবে।

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  5. 5 out of 5

    Sabrina Karim:

    “নীড়ে ফেরার আহ্বান ” বইটি পড়ে অনেক নসিহা পেলাম নিজের জীবনে বাস্তবায়নের জন্য। এই বইটি পড়ে এটাও বুঝতে পারলাম নিজের দ্বীনের প্রতি গাফেল হয়ে যাওয়ার বিষয়টি।
    এই বইটিতে গল্পের অগোচরে অনেকের সমস্যার সমাধান রয়েছে।একমাত্র উপলব্ধি করতে পারে এমন হৃদয় তা আহরণে সক্ষম হবে।
    বইটি সত্যিই অসাধারণ।
    3 out of 3 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top