মেন্যু
muminer binodon

মুমিনের বিনোদন

ভাষা : বাংলা

অনুবাদক : আবদুন নুর সিরাজি
সম্পাদনা : মুফতি তারেকুজ্জামান
পৃষ্ঠা : ১৪৪

একজন মুমিন হিসেবে কি এ অবাধ বিনোদন আমাদের জন্য অনুমোদিত? একজন মুসলিম হিসেবে কি পাশ্চাত্যের আবিস্কৃত এসব খেলার উপকরণ আমার জন্য বৈধ? আল্লাহর একজন নগণ্য দাস হিসেবে এটা আমাকে ভাবতেই হবে। বস্তুত এখানেই একজন মুমিন ও কাফিরের মাঝে পার্থক্য নির্ণয় হয়ে যায়। কাফির দুনিয়ার কোনো কাজে কখনো কারও পরোয়া করে না। কিন্তু একজন মুমিনের প্রতিটি ক্ষেত্রেই লক্ষ করতে হয় যে, এ কাজে মহান রবের অনুমোদন আছে কিনা। আফসোস যে, আমাদের সমাজের নামসর্বস্ব অধিকাংশ মুসলিম এ ব্যাপারে শরয়ি অবস্থান না জেনেই জড়িয়ে পড়ছে পশ্চিমাদের পাতানো ফাঁদে, যা কখনো একজন প্রকৃত মুমিনের কাজ হতে পারে না। সে তো প্রথমে জেনে নেয়, এ ব্যাপারে শরয়ি দিকনির্দেশনা কী। অনুমোদন থাকলে তবেই সে অগ্রসর হয়; নয়তো সে থেমে যায়।

একজন মুমিনের জীবনে বিনোদন কীভাবে হতে পারে, প্রচলিত বিভিন্ন খেলা-বিনোদনের ক্ষেত্রে মূলনীতি কিংবা এ ব্যাপারে তার সীমারেখাই বা কতটুকু—ইত্যাকার বিষয়ে কি আমার জানার ভাণ্ডার সমৃদ্ধ? উত্তর যদি না হয়ে থাকে, তাহলে চলুন দেখি, ইসলাম এ ব্যাপারে কী বলে…! কী বলে সে একজন মুমিনের বিনোদনের সীমারেখার ব্যাপারে…!

পরিমাণ

135  214 (37% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
- ৪৯৯+ টাকার অর্ডারে একটি প্রিমিয়াম বুকমার্ক ফ্রি!

- ৬৯৯+ টাকার অর্ডারে একটি একটি আমল চেকলিস্ট ফ্রি!

- ৮৯৯+ টাকার অর্ডারে একটি বই ফ্রি!

- ১,১৯৯+ টাকার অর্ডারে একটি আতর ফ্রি!

- ১৪৯৯+ টাকার অর্ডারে সারাদেশে ফ্রি শিপিং!

প্রসাধনী

7 রিভিউ এবং রেটিং - মুমিনের বিনোদন

5.0
Based on 7 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    একজন মুমিন মুসলমানের জন্য কতটুকু বিনোদন অনুমোদিত এই নিয়ে তেমন কোন আলোচনা বর্তমানে হয়না বললেই চলে। এমতাবস্থায় কোন পর্যায়ে বিনোদন উদযাপন করলে তা শরীয়তের সীমালঙ্ঘন হবে না এ নিয়ে যারা দৈন্যতায় আছেন তাদের জন্য দারুন একটি বই শায়খ সালিহ আল মুনাজ্জিদ রচিত “মুমিনের বিনোদন”।

    বইয়ের শুরুতেই লেখক বিনোদনের উপকারিতা, প্রয়োজনীয়তা এবং অবসর সময় কিভাবে কাটাবেন সে সম্পর্কে আলোচনা করেছেন। এর পর বইটিকে দুটি অধ্যায়ে ভাগ করেছেন। যথা-
    ১। বিনোদনের শরয়ী দৃষ্টিভঙ্গি
    ২। বিনোদনের বিবিধ মাসাইল।

    আমার দেখামতে বিনোদন সংক্রান্ত এই বইটি এককথায় অসাধারন। যেখানে ইসলামে বিনোদনের রুপরেখা নিয়ে অনেককিছু উপলদ্ধি করেছি। তাই সকলের জন্য বইটি একবার হলেও পড়া উচিত।

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    :

    অনেক মানুষই মনে করেন, ইসলাম ভীষণ কঠিন ধর্ম। এখানে হাসি-আনন্দ-বিনোদন নেই, বরং আছে হাজার বিধিনিষেধ। আবার অনেকেই হাসাহাসি, হৈ-হুল্লোড়, খেল-তামাশা, বিনোদনেই সারাজীবন পার করে দেয় যে আখেরাতের ঝুলি থাকে শূন্য। কিন্তু নাহ, জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত প্রতিটি ইবাদতই যেমন আল্লাহ বাতলে দিয়েছেন, তেমনই বিনোদনের সীমারেখাও অঙ্কন করেছেন সুনিপুণভাবে।

    এটাকে উপজীব্য করেই লেখা ‘সানাআতুত তারফিহ’ এবং ‘নাজারাতুন ফিল কিসাসি ওয়ার রিওয়ায়াত’ মূল্যবান আরবি গ্রন্থদুটি মুহাম্মদ পাবলিকেশনের সৌজন্যে এক মলাটের ভিতর অনুদিত হওয়ায় আমরা সত্যি ভীষণ কৃতজ্ঞ। এমন একটা বই প্রত্যেকেরই দরকার। আল্লাহর অনুগত থেকেও নিজের মনকে আনন্দে রাখার জন্য রসমিশ্রিত, সুখপাঠ্য, মনোমুগ্ধকর একটি বই।

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No