মেন্যু


মুহাম্মাদ সা. ব্যক্তি ও নবী

বাংলাভাষায় সীরাতে রাসুল সা. সম্বলিত গ্রন্থ ব্যাপকভাবে উপস্থিত থাকলেও তার ব্যক্তিক জীবন বা শামায়েল নিয়ে পৃথক ও পূর্ণাঙ্গ গ্রন্থ নেই বললেই চলে। অবাক করার মতো বিষয় হলো, অন্য ভাষায়ও শামায়েল সম্পর্কিত যথাযথ গ্রন্থ খুব একটা নেই। সুতরাং বিষটির অভাব প্রকৃতপক্ষেই ভাবিত হওয়ার মতো।
লেখকের দাবি ও আমাদের পর্যবেক্ষণের ফলে অনেকটা জোর দিয়েই বলা যায়, ‘মুহাম্মাদ সা.: ব্যক্তি ও নবী’ গ্রন্থখানি সেই অভাব অনেকাংশে পূরণ করেছে।
আরবের বিখ্যাত ইসলামী চিন্তাবিদ ও লেখক সালেহ আহমদ শামী রচিত বইটি নানা কারণেই অনন্য। বইটিতে তিনি রাসুল সা.-এর ব্যক্তি-জীবনকে হাজির করেছেন সবচেয়ে বিশুদ্ধ হাদিসসমূহের আলোকে। লেখক বেশিরভাগ হাদিসই উদ্ধৃত করেছেন বুখারী ও মুসলিম থেকে। এর বাইরে যেসব হাদিস তিনি এনেছেন, তাতেও সনদ ও গ্রহণযোগ্যতায় সর্বোচ্চ সতর্কতা রক্ষা করার চেষ্টা করেছেন।

পরিমাণ

300  500 (40% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
প্রসাধনী
- ১৪৯৯+ টাকার অর্ডারে সারাদেশে ফ্রি শিপিং!

1 রিভিউ এবং রেটিং - মুহাম্মাদ সা. ব্যক্তি ও নবী

5.0
Based on 1 review
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    কিছু কথা:
    রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ছিলেন সুমহান, পূর্ণ ও শ্রেষ্ঠতর চরিত্রে সুসজ্জিত, সবদিকে অতুলনীয়। মহান আল্লাহ বলেন :
    وَإِنَّكَ لَعَلى خُلُقٍ عَظِيمٍ (سورة القلم:৪)
    “এবং নিশ্চয় তুমি মহান চরিত্রে অধিষ্ঠিত।”
    -সূরা কালাম ,আয়াত:৪

    এজন‍্যই আল্লাহ তাআলা সর্বক্ষেত্রে রাসুল সা. এর অনুসরনের আদেশ দিয়েছেন।
    আল্লাহ বলেন-

    “রাসুল তোমাদের যা দেন তা গ্রহণ করো এবং তোমাদের যা নিষেধ করেন তা বর্জন করো।”
    -সূরা হাশর,আয়াত-৭

    আল্লাহ তাআলা আরো বলেন-

    “নিশ্চয় তোমাদের জন‍্য আল্লাহর রাসুলের মধ‍্যে রয়েছে উত্তম আদর্শ।”
    -সূরা আহযাব,আয়াত-২১

    আল্লাহ তাআলা মুমিনদের বিশেষভাবে উল্লেখ করে বলেন-

    তোমাদের মধ্যে যারা আল্লাহ ও শেষ দিবসের আশা রাখে এবং আল্লাহকে অধিক স্মরণ করে তাদের জন্যে আল্লাহর রাসুলের মধ্যে উত্তম নমুনা রয়েছে।’’
    -সূরা আহযাব,আয়াত-২২

    তাই আমাদের জীবনের সকল ক্ষেত্রে একমাত্র রাসুল সা. এরই অনুসরণ করতে হবে।

    বইয়ে যা আছে:
    “মুহাম্মাদ সা. ব‍্যক্তি ও নবী” বইটি নবীজি সা. এর একটি শামায়েল গ্রন্থ।বইটিতে রাসুলুল্লাহ সা. এর আচার-আচরণ,উঠা-বসা,কথা-বার্তা,উত্তম গুণসমূহ,উনার সাহসীকতা সহ সামগ্রিক জীবন-যাপনের একটি ছবি ফুটে উঠেছে।
    বইটিতে পবিত্র কোরআনের বিভিন্ন আয়াত এবং সহীহ গ্রন্থসমূহ থেকে সংগৃহীত হাদিস দ্বারা রাসুলুল্লাহ সা. এর জীবনপ্রনালী তুলে ধরা হয়েছে।
    বইটিকে লেখক দশটি অধ‍্যায়ে ভাগ করে আলোচনা করেছেন।

    প্রথম অধ‍্যায়:
    সম্ভ্রান্ত বংশ এবং পবিত্র আত্মীয়তা।এ অধ‍্যায়ে রাসুলুল্লাহ সা. এর বংশ এবং আত্মীয় স্বজনদের নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
    দ্বিতীয় অধ‍্যায়:
    নবীজির বৈশিষ্ট্য এবং গঠন।এ অধ‍্যায়ে রাসুলুল্লাহ সা. এর দৈহিক বৈশিষ্ট্য এবং গঠনপ্রনালী নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
    তৃতীয় অধ‍্যায়:
    নবীজি সা. এর নৈতিকতা ও চরিত্র।এ অধ‍্যায়ে রাসুলুল্লাহ সা. এর নৈতিকতা এবং উত্তম গুণাবলীসমূহ নিয়ে বিশদ আলোচনা করা হয়েছে।
    চতুর্থ অধ‍্যায়:
    অসচ্চরিত্র থেকে পবিত্র থাকা।এ অধ‍্যায়ে রাসুলুল্লাহ সা. যেসকল অসৎ চরিত্র থেকে পবিত্র থেকেছেন এবং যেভাবে পবিত্র থেকেছেন তা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
    পঞ্চম অধ‍্যায়:
    নবীজির আদব ও সৌজন‍্য।এ অধ‍্যায়ে রাসুলুল্লাহ সা. এর আদব এবং সৌজন্যতাবোধ নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
    ষষ্ঠ অধ‍্যায়:
    পার্থিব প্রয়োজন সম্পাদনে নবীজি।এ অধ‍্যায়ে নবীজি সযেভাবে পার্থিব প্রয়োজনাদি সম্পাদন করতেন তা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
    সপ্তম অধ‍্যায়:
    অনাবৃত সতর্ককারী।রাসুলুল্লাহ সা. ছিলেন অনাবৃত সতর্ককারী।উনি জাহন্নাম থেকে সর্বদা সাবধানবানী প্রদান করতেন।কখনো গোপন করতেন না।তা নিয়েই এ অধ‍্যায়ে আলোচনা করা হয়েছে।
    অষ্টম অধ‍্যায়:
    নবীজির ইবাদতের অন‍্য দিক।এ অধ‍্যায়ে রাসুলুল্লাহ সা. এর ইবাদত,আমল নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
    নবম অধ‍্যায়:
    নবীজির প্রতিষ্ঠিত সমাজ ব‍্যবস্থা।এ অধ‍্যায়ে নবীজি সা. কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত ইসলামি সমাজব‍্যবস্থা নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।
    দশম অধ‍্যায়:
    নবীজির অধিকার পূরনে মুসলিমদের দায়িত্ব।এ অধ‍্যায়ে রাসুলুল্লাহ সা. এর সুন্নত সমাজে প্রতিষ্ঠিত করতে আমাদের দায়িত্ব-কর্তব‍্য নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে।

    পাঠ প্রতিক্রিয়া:
    বইটি আমার পড়া প্রথম পূর্ণাঙ্গ শামায়েল গ্রন্থ।
    বইটি পড়ে আমি সর্বোত্তম মানব রাসুলুল্লাহ সা . এর সুন্নতসমূহ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছি।
    বইটি পড়ে আমি আমার জীবনে রাসুলুল্লাহ সা. এর সুন্নতসমূহ জিন্দা করার প্রয়াস পেয়েছি।

    বইটি কেন পড়া উচিত:
    রাসুলুল্লাহ সা. এর সুন্নতসমূহ সহজে জানবার একটি উত্তম গ্রন্থ হলো “মুহাম্মাদ সা. ব‍্যক্তি ও নবী” বইটি।
    বইটিতে শুধুই সহিহ এবং হাসান হাদিস আনা হয়েছে।
    বইটিতে অন‍্যান‍্য শামায়েল গ্রন্থ থেকে অধিক বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে এবং অত‍্যন্ত সহজ-সরল ভাষায় আলোচনা করা হয়েছে।
    তাই সকল মানুষই বইটি পড়ে শিক্ষাগ্রহণ করতে পারবে।
    সবাইকে বইটি পড়ার আহ্বান রইল।

    লেখকের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি:
    সালেহ আহমদ শামী ১৯৩৪ সালে দামেস্কের উত্তর-পূর্বাঞ্চল দুমা নগরীতে জন্মগ্রহণ করেন।
    তিনি অনন‍্য কৃতিত্বের সাথে দামেস্ক ইউনিভার্সিটি থেকে ১৯৫৮ সালে পড়াশোনা সমাপ্ত করেন।
    কর্মজীবনে তিনি ১৯৯৮ সাল পর্যন্ত সৌদি আরবের কিং সাউদ ইসলামিক ইউনিভার্সিটিতে অধ‍্যাপনা করেন।
    তিনি একজন সীরাত রচয়িতা হিসেবে প্রসিদ্ধি অর্জন করেছেন।তার রচিত “মিন মায়ীনিস সীরাত” একটি সাড়া জাগানো সীরাত গ্রন্থ।
    আখলাক,ঈমান,ইসলাম ও ফারায়েজ বিষয়ে তিনি দশের অধিক গ্রন্থ রচনা করেছেন‌।
    তিনি বর্তমানে রিয়াদে সপরিবারে বসবাস করছেন।
    আল্লাহ উনাকে নেক হায়াত দান করুন।আমিন।

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top