মেন্যু
mrittur opare ononter pothe

মৃত্যুর ওপারে: অনন্তের পথে

পৃষ্ঠা : 304, কভার : হার্ড কভার, সংস্করণ : 1st published 2020
অনুবাদ : আবদুন নুর সিরাজি সম্পাদনা : মুফতি মুহিউদ্দীন কাসেমী ‘ছলনাসুন্দর’পৃথিবীটাকে মানুষ কত সুন্দরভাবেই-না সাজায়! সেই স্বপ্নসজ্জিত পৃথিবীটা ছেড়ে তাকে চলে যেতে হয় একদিন। চলে যায় সবাই। তাতে ইচ্ছা-অনিচ্ছার কোনো ভূমিকা নেই,... আরো পড়ুন
পরিমাণ

314  430 (27% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

22 রিভিউ এবং রেটিং - মৃত্যুর ওপারে: অনন্তের পথে

4.9
Based on 22 reviews
5 star
90%
4 star
9%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    Mukrima Sultana:

    শুরু কথা
    মানুষ স্বপ্নপ্রিয় জাতী। আমরা স্বপ্ন দেখতে ভালোবাসি। এমন সব স্বপ্ন যেগুলো কখনো কখনো বাস্তবায়ন হয় আবার কখনো কখনো শুধু স্বপ্নই থেকে যায়। এসব অধরা স্বপ্নের বাকেই ভুলে বসে থাকি আমাদের জীবনের উদ্দেশ্যকে ; ভুলে যায় যে কিছুক্ষন পরেই আমাদের সময় ফুরিয়ে যাবে। মৃত্যুকে আলিঙ্গন করে চলে যেতে হবে অনন্তের পথে। মৃত্যু পরবর্তী জীবনের আলোচনা নিয়ে মুহাম্মদ পাবলিকেশনের এবারে আয়োজন ‘ইমাম কুরতুবি (রহ)’ রচিত বই “মৃত্যুর ওপারে : অনন্তের পথে ; মৃত্যু, কবর, হাশর, জান্নাত, জাহান্নাম।”

    সূচিপত্র থেকে কিছু কথা
    ইমাম কুরতুবি (রহ) এর আরবি কিতাব “মুখতাসারু কিতাবিত-তাজকিরাহ বি-আহিওয়ালিল মাওতা ওয়া উমুরিল আখিরাহ” এর সংক্ষিপ্ত ভাষান্তর “মৃত্যুর ওপারে : অনন্তের পথে” বইটির সূচিপত্র দেখেই বুঝতে পারি যে বইটা কতটা সুন্দর হবে। “মৃত্যু, কবর, সিঙ্গায় ফুৎকার, মানুষ ও জীনের বিনাশ ও পুনরুত্থান, হাশর, পুলসিরাত, জাহান্নাম, জান্নাত, ফিতনা, কিয়ামত, কিয়ামতের পূর্বে সংঘটিত অন্যতম ও শেষ দশটি আলামত” বিষয়ের মতো সুন্দর সুন্দর টপিকে সাজানো হয়েছে পুরো বইটি ; যেটা আমাদের বর্তমানে দুনিয়াবি কাজে ব্যস্ত জাতীর জন্য সময়ের দাবি।

    মূলভাব
    মুহাম্মদ পাবলিকেশন কর্তৃক আয়োজিত এবারের বই “মৃত্যুর ওপারে : অনন্তের পথে” এর সরবরাহকৃত শর্ট পিডিএফে দেয়া হয়েছে “মৃত্যু” নামক অধ্যায়টি।

    অনেক সময় দেখা যায়, কোন অল্প স্বল্প বিপদেই আমরা নিজেদের মৃত্যু কামনা করে বসে থাকি, যেটা একদমই উচিত নয়। কেননা কোন সময়ের কোন কাজটা আমাদের জন্য কল্যানকর সেটা মহান রবই ভালো জানেন। বইয়ের এই অধ্যায় থেকে যে বিষয়গুলো আমরা জানতে পারব তা হলো, বেশি বেশি মৃত্যুর আলোচনা করা ফযিলত, মৃত্যুর কথা স্মরণের মাধ্যমের দুনিয়ার মায়া থেকে রক্ষা পাওয়া, মুমিন ব্যক্তির মৃত্যুর লক্ষন, মৃত্যুর কঠোরতা, কবর জিয়ারত বিধান, মৃত্যুর সময় করনীয় কাজ, মৃত্যুর পূর্বের আমল অনুযায়ীই তার ফলাফল, তাওবা কবুলের শর্তাবলি, রুহ কবজের কথাসহ জানাজা-দাফন সম্পর্কিত যাবতীয় বিষয়াদি সম্পর্কে জানতে পারব।

    পাঠ্যানুভূতি
    সমাজে একটা কথা প্রচলিত আছে, “আজ মরলে কাল দু’দিন!” সত্যিই তাই! মরে গেলে কেউ কারোর কথা মনে করবে না; নিজের আমল হবে তখন একমাত্র সাথী। অথচ সেই আমল বাদ দিয়েই আমরা দুনিয়ার পিছে পড়ে আছি। শর্ট পিডিএফের একটা অংশ পড়েই মৃত্যুভয় কাজ করছে। আশা রাখছি প্রথম অধ্যায়ের মতো পুরো বইটাই সুন্দর হবে।

    কেন পড়বেন
    বইটি আমাদের মৃত্যু পরবর্তী জীবন সম্পর্কে যথেষ্ট শিক্ষা দিবে। কবর, হাশর, জাহান্নাম, জান্নাত সম্পর্কে বিস্তর আলোচনা পাঠক মনে দুনিয়াবি চিন্তা বাদ দিয়ে মৃত্যুভয় এনে দিতে সক্ষম হবে আশা করছি। বইটিতে কুরআন, হাদিসের বানী সহ সকল বিষয় খুব সুন্দর করে ব্যাখ্যা করা আছে! বইয়ের সুন্দর সাবলীল হৃদয়গ্রাহি ভাষা পাঠকমনে খুব সহজেই জায়গা করে নেবে ইনশা আল্লাহ।

    শেষ কথা
    মৃত্যু নিশ্চিত হওয়া সত্ত্বেও আমরা এই অনিশ্চিত জীবনকে রঙে-ঢঙে সাজাতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছি৷ মৃত্যুর সময় যে আমল শুধুমাত্র সাথে যাবে সেই আমলই বাদ দিয়ে দুনিয়ার চাকচিক্যে মজে আছি। অন্তর থেকে এক প্রকারে মৃত্যু চিন্তা বেরই হয়ে গেছে। এমন পরিস্থিতি ‘ইমাম কুরতুবি (রহ)’ এর প্রকাশিতব্য বই “মৃত্যুর ওপারে : অনন্তের পথে” বইটি পাঠক মনে মৃত্যু জীবন নিয়ে একটু হলেও ভাবনা জোগাবে বলে আশা করছি।

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    halimabdullah019:

    কোনো বই গুরুত্বপূর্ণ হওয়ার জন্য এটিই যথেষ্ট যে, এর রচয়িতা ইমাম কুরতুবি (রাহ.)। এই মহান ইমামের বিশ্ববিখ্যাত ‘আত তাযকিরাহ’ কিতাবটি একবার হাতে নিয়ে দীর্ঘসময় নেড়েচেড়ে দেখেছিলাম। তৃষ্ণার্ত মনে তখন খুব করে কামনা করছিলাম, ‘কেউ যদি এর বাংলা অনুবাদ করতো!’ অবশেষে স্বপ্ন পূরণ হলো, আলহামদুলিল্লাহ। মুহাম্মদ পাবলিকেশন ‘মৃত্যুর ওপারে : অনন্তের পথে’ নামে এই মহামূল্যবান কিতাবটির বাংলা অনুবাদ নিয়ে এসেছে। আল্লাহ্ তাদের উত্তম প্রতিদান দিন। আমিন।
    .
    বইটিতে কী আছে?
    ▬▬▬▬▬▬▬
    সূচিপত্র অনুসারে, এই বইতে মৃত্যু থেকে নিয়ে জান্নাত-জাহান্নাম পর্যন্ত আখিরাতের প্রতিটি ধাপের বিস্তর আলোচনা করা হয়েছে। যেমন: মৃত্যু, কবর, কিয়ামতের মাঠের বিভীষিকা (কিয়ামতের গুরুত্বপূর্ণ বিভিন্ন আলামতসহ), হাশরের ময়দানের কাঠগড়া ও এর বিভিন্ন অবস্থা, পুলসিরাতের পরীক্ষা, জান্নাত, জাহান্নাম ইত্যাদি। এর পাশাপাশি ‘ফিতনা’ শিরোনামে খুব গুরুত্বপূর্ণ একটি অধ্যায় সন্নিবেশিত হয়েছে। এ সম্পর্কে ভালোভাবে জানা এই সময়ের প্রতিটি মানুষের জন্য অপরিহার্য। প্রতটি অধ্যায়কে লেখক অনেকগুলো পরিচ্ছেদে ভাগ করেছেন। যেমন: ‘মৃত্যু’ অধ্যায়ে এসেছে মৃত্যু কামনা করার বিধান, কবর যিয়ারতের বিধান, মৃত্যুর পূর্বমুহূর্তে করণীয়, মৃত্যুকালীন বিভিন্ন অবস্থা, মৃত্যুর পূর্বে তাওবার বিধান, কাফন-দাফন কেমন হতে হবে, এরকম আরও অনেক কিছু। সব লিখা সম্ভব নয়। এভাবে প্রতিটি অধ্যায়ে বিভিন্ন পরিচ্ছেদে প্রচুর আলোচনা এসেছে।
    .
    প্রকাশনী থেকে উন্মুক্ত বইটির ৫০ পৃষ্ঠার পিডিএফে মৃত্যু-সংক্রান্ত অধিকাংশ আলোচনা স্থান পেয়েছে। এটুকু পড়ে যে কেউ অভিভূত হবে। কারণ প্রতিটি পয়েন্টের আলোচনা অত্যন্ত সমৃদ্ধ ও হৃদয়গ্রাহী হয়েছে।
    .
    বইটির বিশেষ দিক:
    ▬▬▬▬▬▬▬▬
    মৃত্যু, কবর, আখিরাত বিষয়ে আয়াত-হাদিস ও সালাফদের বক্তব্যের অভাব নেই। ইমাম কুরতুবি শুধু আয়াত-হাদিস আর সালাফের বাণী সংকলন করেই ক্ষান্ত থাকেননি; তিনি সংশ্লিষ্ট বিষয়ের আয়াত-হাদিসের সঠিক ফাহম তথা বুঝটুকু তুলে ধরেছেন, বিভিন্ন মাসয়ালা উদঘাটন করেছেন, প্রায়ই নিজের মতামত ব্যক্ত করেছেন এবং পূর্বসূরিদের বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়েছেন। এসব কারণে বইটি বিশেষ মর্যাদায় উন্নীত হয়েছে।
    .
    কাদের জন্য এই বই?
    ▬▬▬▬▬▬▬▬
    দুনিয়ায় আসক্ত, গুনাহে লিপ্ত একজন মানুষের হৃদয়ে ঝড় তোলার জন্য যা যা দরকার, তার সবই আছে এই বইতে। নিত্যদিনের আমলে যাদের প্রাণ থাকছে না—অন্তর শক্ত হয়ে গেছে—এই বইটি তাদের জন্য তীব্র গরমে এক পশলা বৃষ্টির মতো হয়ে দেখা দেবে, ইনশাআল্লাহ্।
    .
    বইয়ের প্রচ্ছদ এবং প্রচ্ছদের নামলিপি আরও সুন্দর করা যেতো। এর বাইরে বাকি সবই সুন্দর হয়েছে। মুহতারাম আবদুন নুর সিরাজির অনুবাদে এক ধরণের ছন্দ ও ব্যঞ্জনা রয়েছে, যা পাঠককে আনন্দ দেয়। বাংলা ভাষায় রচিত বা অনূদিত আত্মশুদ্ধির বইগুলোর মাঝে ‘মৃত্যুর ওপারে’ বইটি অন্যতম শ্রেষ্ঠত্বের দাবিদার হবে, ইনশাআল্লাহ্। সবচেয়ে বড় কথা হলো, লেখক নিজের ও অন্যদের জন্য রিমাইন্ডার হিসেবে বইটি লিখেছিলেন। আল্লাহ্ তা‘আলা তাঁর মনোবাসনা পূর্ণ করেছেন। এই বইটিকে পরবর্তী আলিমগণ রেফারেন্স হিসেবে ব্যবহার করেছেন। আমি এটি সংগ্রহ করার দৃঢ় ইচ্ছা রাখছি। বইটি প্রত্যেকের টেবিলে শোভা পাক, এই আশাবাদ রইলো।
    .
    বই: মৃত্যুর ওপারে : অনন্তের পথে
    লেখক: ইমাম কুরতুবি (রাহিমাহুল্লাহ)
    অনুবাদ: আবদুন নুর সিরাজি
    প্রকাশনী: মুহাম্মদ পাবলিকেশন
    পৃষ্ঠা-সংখ্যা: ৩০৪
    মুদ্রিত-মূল্য: ৪০০ টাকা
    প্রি-অর্ডার মূল্য: ২৬০ টাকা
    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    jakariaabdullah35:

    দুনিয়া ক্ষণিকের সফর। মৃত্যু এক চিরন্তন সত্য এবং অবধারিত বিষয় তাই বিদায় অনিবার্য। বিশ্বাসী -অবিশ্বাসী নির্বিশেষে সকলকেই মৃত্যুর স্বাদ গ্রহণ করতে হয়েছে এবং হবে। সূরা আর রহমানে মহান আল্লাহ সুবহানাহু ওয়াতাআ’লা ইরশাদ করেছেন _ “ভূপৃষ্ঠের সবকিছুই ধ্বংসশীল; একমাত্র আপনার মহিমাময় ও মহানুভব পালনকর্তার সত্তা ছাড়া”। [সূরা-আর-রহমান :২৬,২৭]। সূরা মূলকের অপর এক আয়াতে আল্লাহ সুবহানাহু ওয়াতাআ’লা বলেছেন _ যিঁনি মৃত্যু ও জীবন সৃষ্টি করেছেন তোমাদেরকে পরীক্ষা করার জন্য যে, কর্মে তোমাদের মধ্যে কে উত্তম। তিঁনিই পরিপূর্ণ ক্ষমতার মালিক, অতি ক্ষমাশীল। [সূরা মূলক, আয়াত :২]

    কিন্তু মৃত্যুই তো শেষ নয়। এরপরেও রয়েছে পরকালীন জীবন। যে জীবনের শুরু আছে শেষ নেই। সেই অন্তত অসীমের পথে যাত্রার প্রবেশ পথ হচ্ছে মৃত্যু। পবিত্র কুরআনের “প্রত্যেক প্রাণীই মৃত্যুর স্বাদ আস্বাদন করবে ” এই আয়াতটি আমরা প্রায় সকলেই জানি ঠিকই কিন্তু, আমরা এর মর্ম কতটুকু অনুধাবন করি? কেমন হবে মৃত্যু পরবর্তী সেই জীবন সে বিষয়ে আমরা কয়জন ভাবি? এটা আমাদের জন্য আফসোস! আমরা অধিকাংশ মানুষই কিয়ামত, পরকাল, জান্নাত-জাহান্নাম, পুলসিরাতসহ পরকালিন জীবনের নানা বিষয়ের নাম জানলেও তার বিস্তারিত বিবরণ জানি না।

    মৃত্যু থেকে শুরু করে জান্নাত-জাহান্নাম পর্যন্ত পরকালিন জীবন সম্পর্কে আমাদের অবগত করতেই “মুহাম্মদ পাবলিকেশন” থেকে ইনশাআল্লাহ প্রকাশিত হতে যাচ্ছে ‘ ইমাম কুরতুবি (রাহিমাহুল্লাহ)’ রচিত “মুখতাসারু কিতাবিত -তাজকিরাহ বি-আহওয়ালিল মাওতা ওয়া উমুরিল আখিরাহ ” মূল গ্রন্থটির “সংক্ষেপিত ও তাহকিককৃত” রূপ এর সরল অনুবাদ “মৃত্যুর ওপারে ; অনন্তের পথে ” নামক বইটি। সুপ্রসিদ্ধ তাফসীর “তাফসীরে কুরতুবির” প্রণেতা জগৎবিখ্যাত লেখক ইমাম কুরতুবি রাহিমাহুল্লাহ সম্পর্কে আর নতুন করে কিছু বলার নেই। সচেতন পাঠক মাত্রই তাঁর সম্পর্কে অবগত আছেন নিশ্চয়ই।

    প্রকাশনী বইটির কিছু অংশের শর্ট পিডিএফ উন্মুক্ত করেছেন। বইটিকে দাশটি অতিব গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়ে ভাগ করা হয়েছে, যার প্রতিটি অধ্যায় সম্পর্কে জ্ঞান রাখা জরুরি বলে মনে করি। অধ্যায়গুলো _ ১) মৃত্যু ; ২) কবর ; ৩) সিঙ্গায় ফুঁৎকার, মানুষ ও জিনের বিনাশ ও পুনরুত্থান ; ৪) হাশর ; ৫) পুলসিরাত ; ৬) জাহান্নাম ; ৭) জান্নাত ; ৮) ফিতনা ; ৯) কিয়ামত ; ১০) কিয়ামত পূর্বে সংঘটিতব্য অন্যতম ও শেষ দশটি আলামত। বইটিতে প্রতিটি অধ্যায়ে দালিলিক বিস্তারিত আলোচনা স্থান পেয়েছে।

    বইটির নামটাই যেন মৃত্যুর রিমাইন্ডার। চাকচিক্যময় দুনিয়ার ধোঁকায় পড়ে আমরা অধিকাংশ মানুষই মৃত্যু পরবর্তী জীবনকে ভুলে যাই, বা ভুলে থাকার চেষ্টা করি মাত্র। আশা করি ; বইটি প্রত্যেক পাঠকে পরকালিন জীবন সম্পর্কে গভীরভাবে ভাবিয়ে তুলবে এবং আখিরাতের পাথেয় সংগ্রহ করতে আগ্রহী করে তুলবে ইনশাআল্লাহ আল আযীয। নিজের ইসলাহ-এর জন্য এ ধরণের বই সংগ্রহে রাখা এবং বার বার পড়া উচিত বলে মনে করি। প্রকাশনীর প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা, এমন একটি মূল্যবান বইয়ের সাথে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্য। উন্মুক্ত হওয়া শর্ট পিডিএফ পড়ে মুগ্ধ হয়েছি এবং পুরো বইটি পড়ার প্রতি আগ্রহ আরও বেড়ে গিয়েছে। বইটির নাম থেকে শুরু করে লেখার মান, প্রচ্ছদ সবকিছুই নজরকাড়া। বইটির বহুল প্রচার কামনা করছি। আল্লাহ সুবহানাহু ওয়াতাআ’লা বইটি সংশ্লিষ্ট সকলের খেদমত কবুল করুন। (আমিন ইয়া রব্বাল আলামীন)।

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  4. 5 out of 5

    Nafisa Yasmin:

    জীবনের স্রোতে ভাসতে ভাসতে আমরা ভুলে যাই অন্তিম পরিণতি মৃত্যুর কথা!
    কবর পথের যাত্রী হয়েও আমাদের যাবতীয় চিন্তা ও কর্ম আবর্তিত হয় এই তুচ্ছ দুনিয়াকে ঘিরে । সর্বাঙ্গে গাফিলতির চাদর জড়িয়ে আমরা জীবনের প্রকৃত বাস্তবতার ব্যাপারে কেমন যেন নির্বিকার হয়ে থাকি।
    আফসোস এই সাধের পৃথিবীর জন্য আমাদের কতইনা পরিকল্পনা। সব পরিকল্পনায় পানি ঢেলে দেয় বেরসিক মৃত্যু, হঠাৎ তার আগমন, কোনো পূর্ব আগমনীবার্তা ছাড়াই যেকোন মুহূর্তে এসে হাজির হয়ে নিভিয়ে দেয় জীবনপ্রদীপকে।
    আল্লাহ না করুন, এই অপ্রস্তুত অবস্থায়ই যদি চলে আসে মৃত্যুর ডাক—কী করুণ পরিণতিই না হবে আমাদের!

    মৃত্যুই শেষ নয়, বরং শুরু। মৃত্যু নামক সিঁড়ি বেয়ে আমরা যাত্রা শুরু করবো সেই অনাদি অনন্তের পথে।যে পরকালের জীবন অনন্ত,অসীম যার শুরু আছে কিন্তু শেষ নেই।

    সেই চিরস্থায়ী জীবনে আমাদের জন্য অপেক্ষা করতে মহা বিচারদিবস, সুসজ্জিত জান্নাত এবং বিভীষিকাময় জাহান্নাম নামের দুটি বাসস্থান যে আমাদের ফিরে আসার অপেক্ষার প্রহর গুনছে।

    গাফিলতির চাদর জড়িয়ে আমরা যে দুনিয়াবী মোহে নিমগ্ন তা থেকে আমাদের মৃত হৃদয়কে জাগিয়ে তুলতে, জীবনের আসল সত্যের রিমাইন্ডার হিসাবে মুহাম্মদ পাবলিকেশনের পক্ষ থেকে প্রকাশিত হতে চলেছে “মৃত্যুর ওপারেঃঅনন্তের পথে” ব‌ইটি।

    ব‌ই-পরিচিতি(সংক্ষিপ্ত)
    ———————————-
    ‘তাফসীরে কুরতুবি’ সহ বহু প্রসিদ্ধ গ্রন্থের রচয়িতা আন্দালুসের মহান ইমাম ‘ইমাম কুরতুবি রহিমাহুল্লাহ ‘ রচিত গ্রন্থ ‘মুখতাসারু-কিতাবিত-তাজকিরাহ বি আহওয়ালিল মাওতা ওয়া উমুরিল আখিরাহ’ গ্রন্থের সংক্ষিপ্তসারে অনুবাদ ঃ “মৃত্যুর ওপারেঃ অনন্তের পথে।”
    মুহাম্মদ পাবলিকেশনের পক্ষ থেকে এই বিখ্যাত গ্রন্থটি অনুবাদ করেন শ্রদ্ধেয় আবদুন নুর সিরাজি।

    মূল-ভাব (শর্ট-পিডিএফ এর আলোকে)
    ———————————————————
    মূল ব‌ই সম্পর্কে পাঠকদের অবগত করতে মুহাম্মদ পাবলিকেশন একটি শর্ট পিডিএফ উন্মোচন করেছে। এই ছোট্ট পিডিএফটি ব‌ইয়ের মূল বিষয়বস্তু সম্পর্কে সম্যক ধারণা দেয়।
    বইয়ের নামকরণ এবং সূচিপত্রের দীর্ঘ শিরোনাম নিজেই নিজের ভেতরকার বিষয়াদি সম্পর্কে নিশ্ছিদ্র তাবেদারি করে।
    সম্পূর্ণ ব‌ইটি সূচিপত্র অনুযায়ী পৃথক শিরোনামে কতগুলি অধ্যায়ে বিভক্ত করা হয়েছে —
    ✔️ মৃত্যু, কবর, সিঙ্গায় ফুঁৎকার, মানুষ ও জিনের বিনাশ ও পুনরুত্থান, হাশর ও পুলসিরাত, জাহান্নাম, জান্নাত,ফিতনা ,কিয়ামত এবং কিয়ামতের পূর্বে সংঘঠিতব্য অন্যতম ও শেষ দশটি আলামত।

    শর্ট পিডিএফে মৃত্যু সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত এবং তথ্যবহুল আলোচনা রয়েছে। মৃত্যুর আলামত, মৃত্যুকালীন বিভিন্ন পরিস্থিতি, আল্লাহর প্রতি সুধারণা, মৃত্যুর কঠোরতা, তালকিন করার পদ্ধতি সহ আরো গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বিষয় উঠে এসেছে ছোটো ছোটো শিরোনামে।

    মন্তব্য
    ———–
    ছোট্ট পিডিএফটি গাফেল হৃদয়ে চিন্তার বুনিয়াদ সৃষ্টি করে আলহামদুলিল্লাহ।
    দৃষ্টিনন্দন প্রচ্ছদ, গুরুত্বপূর্ণ কনটেন্ট এবং দৃষ্টান্তমূলক শিরোনাম সমন্বিত সূচিপত্র, অনুবাদকের অনুপম শব্দচয়ন ও সাবলীলতা ব‌ইয়ের ভাষাকে জীবন্ত করে তুলবে ইন শা আল্লাহ।
    আশা করা যায় মৃত্যুর পরবর্তী জীবন নিয়ে কুরআন-হাদিসের আলোকে অথেনাটিক আলোচনা এবং সালাফদের কথা ব‌ইটিকে উচ্চ মাত্রায় নিয়ে যাবে ইন শা আল্লাহ ।

    পরিশেষে
    —————–
    অন্তিম এ যাত্রা অবশ্যম্ভাবী কিন্তু তবুও মানুষ মন বুনে চলে নশ্বর পৃথিবীর কবিতা।
    পার্থিব সমস্যা, বিপদ সংকুল পথ সবকিছুই তুচ্ছ মনে হত যদি অধরা মৃত্যুটাকে অন্তরে গেঁথে দেয়া যেত।
    আশা রাখা যায়, “মৃত্যুর ওপারে, অনন্তের পথে” ব‌ইটি হতে চলেছে সর্বস্তরের মুমিনদের জন্য একটা ছোট্ট রিমাইন্ডার। মৃত হৃদয়কে জাগিয়ে তুলে কিছুটা হলেও সাহায্য করবে সিরাতুল মুস্তাকিমের পথে হাঁটতে ইন শা আল্লাহ।
    মুহাম্মদ পাবলিকেশনের সকল পরিশ্রমকে আল্লাহ তাআলা সাফল্যমন্ডিত করুক।

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  5. 5 out of 5

    Nafisa Yasmin:

    কবর পথের যাত্রী হয়েও আমাদের যাবতীয় চিন্তা ও কর্ম আবর্তিত হয় এই তুচ্ছ দুনিয়াকে ঘিরে । সর্বাঙ্গে গাফিলতির চাদর জড়িয়ে আমরা জীবনের প্রকৃত বাস্তবতার ব্যাপারে কেমন যেন নির্বিকার হয়ে থাকি।
    আফসোস এই সাধের পৃথিবীর জন্য আমাদের কতইনা পরিকল্পনা। সব পরিকল্পনায় পানি ঢেলে দেয় বেরসিক মৃত্যু, হঠাৎ তার আগমন, কোনো পূর্ব আগমনীবার্তা ছাড়াই যেকোন মুহূর্তে এসে হাজির হয়ে নিভিয়ে দেয় জীবনপ্রদীপকে।
    আল্লাহ না করুন, এই অপ্রস্তুত অবস্থায়ই যদি চলে আসে মৃত্যুর ডাক—কী করুণ পরিণতিই না হবে আমাদের!

    মৃত্যুই শেষ নয়, বরং শুরু। মৃত্যু নামক সিঁড়ি বেয়ে আমরা যাত্রা শুরু করবো সেই অনাদি অনন্তের পথে।যে পরকালের জীবন অনন্ত,অসীম যার শুরু আছে কিন্তু শেষ নেই।

    সেই চিরস্থায়ী জীবনে আমাদের জন্য অপেক্ষা করতে মহা বিচারদিবস, সুসজ্জিত জান্নাত এবং বিভীষিকাময় জাহান্নাম নামের দুটি বাসস্থান যে আমাদের ফিরে আসার অপেক্ষার প্রহর গুনছে।

    গাফিলতির চাদর জড়িয়ে আমরা যে দুনিয়াবী মোহে নিমগ্ন তা থেকে আমাদের মৃত হৃদয়কে জাগিয়ে তুলতে, জীবনের আসল সত্যের রিমাইন্ডার হিসাবে মুহাম্মদ পাবলিকেশনের পক্ষ থেকে প্রকাশিত হতে চলেছে “মৃত্যুর ওপারেঃঅনন্তের পথে” ব‌ইটি।

    ব‌ই-পরিচিতি(সংক্ষিপ্ত)
    ———————————-
    ‘তাফসীরে কুরতুবি’ সহ বহু প্রসিদ্ধ গ্রন্থের রচয়িতা আন্দালুসের মহান ইমাম ‘ইমাম কুরতুবি রহিমাহুল্লাহ ‘ রচিত গ্রন্থ ‘মুখতাসারু-কিতাবিত-তাজকিরাহ বি আহওয়ালিল মাওতা ওয়া উমুরিল আখিরাহ’ গ্রন্থের সংক্ষিপ্তসারে অনুবাদ ঃ “মৃত্যুর ওপারেঃ অনন্তের পথে।”
    মুহাম্মদ পাবলিকেশনের পক্ষ থেকে এই বিখ্যাত গ্রন্থটি অনুবাদ করেন শ্রদ্ধেয় আবদুন নুর সিরাজি।

    মূল-ভাব (শর্ট-পিডিএফ এর আলোকে)
    ———————————————————
    মূল ব‌ই সম্পর্কে পাঠকদের অবগত করতে মুহাম্মদ পাবলিকেশন একটি শর্ট পিডিএফ উন্মোচন করেছে। এই ছোট্ট পিডিএফটি ব‌ইয়ের মূল বিষয়বস্তু সম্পর্কে সম্যক ধারণা দেয়।
    বইয়ের নামকরণ এবং সূচিপত্রের দীর্ঘ শিরোনাম নিজেই নিজের ভেতরকার বিষয়াদি সম্পর্কে নিশ্ছিদ্র তাবেদারি করে।
    সম্পূর্ণ ব‌ইটি সূচিপত্র অনুযায়ী পৃথক শিরোনামে কতগুলি অধ্যায়ে বিভক্ত করা হয়েছে —
    ✔️ মৃত্যু, কবর, সিঙ্গায় ফুঁৎকার, মানুষ ও জিনের বিনাশ ও পুনরুত্থান, হাশর ও পুলসিরাত, জাহান্নাম, জান্নাত,ফিতনা ,কিয়ামত এবং কিয়ামতের পূর্বে সংঘঠিতব্য অন্যতম ও শেষ দশটি আলামত।

    শর্ট পিডিএফে মৃত্যু সম্পর্কে সংক্ষিপ্ত এবং তথ্যবহুল আলোচনা রয়েছে। মৃত্যুর আলামত, মৃত্যুকালীন বিভিন্ন পরিস্থিতি, আল্লাহর প্রতি সুধারণা, মৃত্যুর কঠোরতা, তালকিন করার পদ্ধতি সহ আরো গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বিষয় উঠে এসেছে ছোটো ছোটো শিরোনামে।

    মন্তব্য
    ———–
    ছোট্ট পিডিএফটি গাফেল হৃদয়ে চিন্তার বুনিয়াদ সৃষ্টি করে আলহামদুলিল্লাহ।
    দৃষ্টিনন্দন প্রচ্ছদ, গুরুত্বপূর্ণ কনটেন্ট এবং দৃষ্টান্তমূলক শিরোনাম সমন্বিত সূচিপত্র, অনুবাদকের অনুপম শব্দচয়ন ও সাবলীলতা ব‌ইয়ের ভাষাকে জীবন্ত করে তুলবে ইন শা আল্লাহ।
    আশা করা যায় মৃত্যুর পরবর্তী জীবন নিয়ে কুরআন-হাদিসের আলোকে অথেনাটিক আলোচনা এবং সালাফদের কথা ব‌ইটিকে উচ্চ মাত্রায় নিয়ে যাবে ইন শা আল্লাহ ।

    পরিশেষে
    —————–
    অন্তিম এ যাত্রা অবশ্যম্ভাবী কিন্তু তবুও মানুষ মন বুনে চলে নশ্বর পৃথিবীর কবিতা।
    পার্থিব সমস্যা, বিপদ সংকুল পথ সবকিছুই তুচ্ছ মনে হত যদি অধরা মৃত্যুটাকে অন্তরে গেঁথে দেয়া যেত।
    আশা রাখা যায়, “মৃত্যুর ওপারে, অনন্তের পথে” ব‌ইটি হতে চলেছে সর্বস্তরের মুমিনদের জন্য একটা ছোট্ট রিমাইন্ডার। মৃত হৃদয়কে জাগিয়ে তুলে কিছুটা হলেও সাহায্য করবে সিরাতুল মুস্তাকিমের পথে হাঁটতে ইন শা আল্লাহ।
    মুহাম্মদ পাবলিকেশনের সকল পরিশ্রমকে আল্লাহ তাআলা সাফল্যমন্ডিত করুক।

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top