মেন্যু


লাভ এন্ড রেসপেক্ট (নীল কভার)

পৃষ্ঠা : 224, কভার : পেপার ব্যাক, সংস্করণ : 1st published 2020

দাম্পত্য জীবনের ওপর বিখ্যাত বই। দাম্পত্য সম্পর্কের ওপর তিন দশকের কাউন্সেলিংয়ের অভিজ্ঞতার নির্যাস দিয়ে ড. এমারসন এগারিচেস বইটিতে এঁকেছেন স্বামী-স্ত্রীর নীল-গোলাপি সম্পর্কের রসায়নগাঁথা। স্বামী স্ত্রীর সাইকোলজি কীভাবে কাজ করে? সেই সাইকোলজিকে কীভাবে ইতিবাচকভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যায়? –তার একটি চমৎকার পাঠ অপেক্ষা করছে আপনার জন্য। অ্যামাজনে এ বইয়ের রেটিং সংখ্যা অবিশ্বাস্য রকমের ওপরে, তিনহাজার ছাড়িয়ে গেছে রেটিংয়ের সংখ্যা!!

বিবাহেচ্ছু, বিবাহিত সুখী যুগল, অসুখী স্বামী স্ত্রী সবার জন্য বইটি হতে পারে সুখপাঠ্য এবং উপকারী। দাম্পত্য জীবনের অজানা রহস্যাদি জেনে সম্পর্ককে আরও সুখময়, প্রাণবন্ত করে নিতে কাছে রাখতে পারেন বইটি।

 

পরিমাণ

224  320 (30% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
- ১৪৯৯+ টাকার অর্ডারে সারাদেশে ফ্রি শিপিং!

8 রিভিউ এবং রেটিং - লাভ এন্ড রেসপেক্ট (নীল কভার)

4.8
Based on 8 reviews
5 star
87%
4 star
0%
3 star
12%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    ▪️ #প্রারম্ভিক_কথন :-
    নারী ও পুরুষ দুটি পৃথক সত্বা হলেও আল্লাহ সুবহানাহু ওয়াতাআ’লা একে অপরের পরিপূরক রূপে সৃষ্টি করেছেন। আর এই দুটি সত্বা মিলনের পূর্ণতা পায় বৈবাহিক বন্ধনে। এই বন্ধনের ভিত্তিই হল ‘লাভ এন্ড রেসপেক্ট’ অর্থাৎ “The Love She Most Desires, The Respect He Desperately Needs.” কিন্তু বায়োলজিকালি পুরুষ নারীর মনস্তাত্ত্বিক জগৎ ভিন্ন হওয়ার কারনে প্রায়শই এই সম্পর্কে এক অনাকাঙ্ক্ষিত দুরত্বের সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে এই দূরত্ব বিচ্ছেদের দিকে ধাবিত হয়। বৈবাহিক সম্পর্কের এই জটিল রসায়ন তত্ব কে খুব সহজ ভাবে বইটিতে বিশ্লেষণ করা হয়েছে। আলোচ্য বইটি আপনাকে এক বিশেষ প্রজ্ঞা দান করবে যা আপনার দাম্পত্য সঙ্গিনীর মনস্তাত্ত্বিক চিন্তা কাঠামো সমন্ধে ভালোভাবে জানতে সহযোগিতা করবে।

    ▪️ #লেখক_পরিচিতি :-
    আলোচ্য বইয়ের লেখক ডঃ এমারসন এগরিচেস একজন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ব্যক্তিত্ব। যিনি দীর্ঘ ত্রিশ বছর দাম্পত্য সম্পর্কের খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে গবেষণা করছেন। পাশাপাশি তিনি একজন দক্ষ কাউন্সিলার। নারী পুরুষের মনস্তত্বের চিত্তাকর্ষক বিশ্লেষণ ও অভিনব ব্যাখ্যা দিয়ে তিনি বহু বৈবাহিক সম্পর্কের ভাঙনরোধে সহায়তা করেছেন। ‘লাভ এন্ড রেসপেক্ট’ বইটি তার এক অমর সৃষ্টি। দাম্পত্য জীবন কে মধুময় করে তোলার গাইডবুক হিসাবে সারা বিশ্বে বইটি সমাদৃত। প্রায় ত্রিশ লাখ কপি বিক্রিত এই বইটি নিউ ইয়র্ক টাইমসে বেস্ট সেলার বুক হিসাবে প্রশংসা কুড়িয়েছে।

    ▪️ #বইটির_সংক্ষিপ্ত_বিষয়বস্তু :-
    সমগ্র বইটি মূলত তিনটি পর্বে বিভক্ত। প্রতিটি পর্ব আবার কতগুলি অধ্যায়ে বিভক্ত। সব মিলিয়ে বইটি তে মোট চব্বিশ টি অধ্যায় আছে। এছাড়া সবশেষে পরিশিষ্ট অধ্যায় আছে। আসুন মূল পর্বগুলির নির্যাস দেখে নিই।

    ◑➤ #পাগলাচক্র :- স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ক হল ভাইস ভার্সা। অর্থাৎ স্বামী স্ত্রীর থেকে ‘শ্রদ্ধা’ আশা করে বিপরীত দিকে স্ত্রী স্বামীর থেকে এর বিনিময়ে ‘ভালোবাসা’ পাওয়ার প্রত্যাশা রাখে। এই দুটি বিষয় ভারসাম্য হারালেই সম্পর্কে তিক্ততা নেমে আসে। লেখক এই সমীকরণ কে ‘পাগলাচক্র’ বলে আখ্যায়িত করেছেন। এই পর্বে সাত টি পৃথক অধ্যায়ে আলোচনা করেছেন কিভাবে কোন দম্পতি এই পাগলাচক্রে আটকে পড়ে। পাশাপাশি কিভাবে এই পাগলাচক্র থেকে বেড়িয়ে আসবে সে বিষয়ে যুক্তি ও ব্যাবহারিক প্রয়োগের মাধ্যমে সমাধান দেওয়া হয়েছে।

    ◑➤ #উৎসাহচক্র :- বৈবাহিক সম্পর্কের ভিত্তি মজবুত একে অপরের মনস্তাত্ত্বিক জগৎ সমন্ধে সম্যুক ধারণা থাকা প্রয়োজন। কিন্তু তা কিভাবে জানবেন…? এই অধ্যায় আপনাকে সেই ধারনা দেবে। এই অধ্যায়ে এমন কিছু দৈনন্দিন ব্যাবহারিক কৌশলের কথা বলা হয়েছে যা দাম্পত্যজীবন কে শক্তিশালী করে তুলবে। এই পর্ব টি পনেরোটি পৃথক অধ্যায়ে বিভিন্ন পরামর্শ ও মূল্যবান টিপস দেওয়া হয়েছে।

    ◑➤ #পুরষ্কারচক্র :- এটি বইয়ের শেষ পর্ব। এই পর্বটি বেশ ইন্টারেস্টিং ও গুরুত্বপূর্ণ। স্বামীর প্রতি নিঃশর্ত শ্রদ্ধা সত্বেও স্বামী যদি স্ত্রীকে না ভালোবাসে অথবা স্ত্রীর প্রতি নিঃশর্ত ভালোবাসা সত্বেও স্ত্রী যদি স্বামী কে প্রাপ্য সম্মান ও মর্যাদা টুকু ফিরিয়ে না দেয় তবে তখন কি হবে…? ‘লাভ এন্ড রেসপেক্ট’ এর সমস্ত টিপস অবলম্বন করার পরেও যদি আপনার সহধর্মিণীর মধ্যে কোনো পজিটিভ প্রতিক্রিয়া দেখতে না পান…এই মত অবস্থায় আপনার করনীয় কি…? পুরষ্কারচক্র আপনাকে এই সকল প্রশ্নের উত্তর দেবে।

    ◑➤ #পরিশিষ্ট :- এটি অধ্যায়ে ব্যাবহারিক একটি অনুশীলন সংযোগ করা হয়েছে। দাম্পত্য সম্পর্ক কে মধুময় করে তোলার জন্য কি করনীয় ও কি বর্জনীয় সে বিষয়ে পয়েন্ট আকারে তুলে ধরা হয়েছে।

    ▪️ #বইটির_বিশেষত্ব :-
    ◑➤ এই বইটির প্রধান বিশেষত্ব হল এটি দাম্পত্য জীবনের একটি প্র‍্যাক্টিক্যাল ওয়ার্কবুক।
    ◑➤ বইটি লেখকের দীর্ঘ ত্রিশ বছরের কর্মজীবনের অভিজ্ঞতা লব্ধ নির্যাস। ফলে বইটি অনেক সমৃদ্ধ।
    ◑➤ বইটি বাস্তবিক উদাহরণ কে উপজীব্য করে প্রত্যেকটা সমস্যা কে বিশ্লেষণ করা হয়েছে ফলে পাঠক খুব সহজেই তা অনুধাবন করতে পারবেন।
    ◑➤ বইটিতে কিছু বিষয় টিপস আকারে দেওয়া হয়েছে যা অত্যন্ত আকর্ষণীয়। যেমন – “কি করলে আপনার স্ত্রী ভালোবাসা অনুভব করবে।”
    ◑➤ মনস্তাত্ত্বিক জটিল বিষয় গুলো এত সহজ সরল সাবলীল ভাবে বিশ্লেষিত হয়েছে যা আপনার কখনোই বিরক্তের কারন হবেনা বরং বইটি পড়তে আরও আগ্রহী হয়ে উঠবেন।
    ◑➤ বইটির অনুবাদ অত্যন্ত ঝরঝরে ও প্রাঞ্জল। যা বইটি কে মৌলিক হিসাবে মান্যতা প্রদান করে।
    ◑➤ বইটি সারা বিশ্বে অত্যন্ত সমাদৃত। ইতিমধ্যেই বইটি ত্রিশ লক্ষ কপি বিক্রি হয়ে ‘নিউইয়র্ক টাইমস’ এ বেস্ট সেলারের শিরোপা জিতে নিয়েছে।

    ▪️ #বইটি_কাদের_জন্য :-
    ◑➤ আপনি যদি অবিবাহিত হন। তবে বিবাহের পূর্বেই আপনার সহধর্মিণীর মনস্তাত্ত্বিক জগৎ সমন্ধে ধারে লাভ করতে পারবেন।
    ◑➤ যদি আপনি দাম্পত্য জীবন কে মধুর ভাবে উপভোগ করতে চান। তবে তার রসদ পাবেন।
    ◑➤ যদি আপনি দাম্পত্য সমস্যায় জর্জরিত হন তবে তা থেকে মুক্তির দিশা পাবেন।
    ◑➤ যদি আপনি পরকীয়ায় আসক্ত হয়ে পড়েন তবে পুনরায় বৈবাহিক জীবনে ফিরে আসার আমন্ত্রণ পাবেন।
    ◑➤ যদি আপনার সহধর্মিণী পরকীয়ায় আসক্ত হয়ে পরে তবে তাকে উদ্ধার করার উপায় খুঁজে পাবেন।
    ◑➤ যদি আপনি বিবাহ বিচ্ছেদের চিন্তাভাবনা করেন তবে সে বিষয়ে পুনরায় নতুন করে ভাবার তাগিদ পাবেন।

    ▪️ #পাঠ্যানুভূতি :-
    বৈবাহিক জীবনে মনস্তাত্ত্বিক আলোচনার উপর এই বইটির স্থান সবার শীর্ষে। সমগ্র বইটি জুড়ে অসংখ্য উপদেশ, টিপস, বিশ্লেষণী মনি মুক্তার মতো ছড়িয়ে আছে। যেগুলো বৈবাহিক জীবনে অত্যন্ত কার্যকরী। দাম্পত্যজীবন কে সুখময় করতে তুলতে এক অব্যর্থ ঔষধ। লেখক তার দীর্ঘ ত্রিশ বছরের অভিজ্ঞতা লব্ধ নির্যাস কে এখানে নিংড়ে দিয়েছেন। প্রতিটি বিষয়কে তিনি প্রাত্যহিক জীবনের উদাহরণ দিয়ে বিশ্লেষণ করেছেন। যে সমস্ত দম্পতি বৈবাহিক জীবনে অশান্তির মধ্যে আছেন তাদের জন্য বইটি অবশ্য পাঠ্য।
    ______________________________________________
    📗 #একনজরে_বই_পরিচিতি
    ◑➤ বইয়ের নাম :- লাভ এন্ড রেসপেক্ট
    ◑➤ লেখক :- ডঃ এমারসন এগরিচেস
    ◑➤ অনুবাদক :- রোকন উদ্দিন খান
    ◑➤ প্রকাশক :-প্রচ্ছদ প্রকাশন – Prossod Prokashon
    ◑➤ প্রচ্ছদ মূল্য :- ৩২০ টাকা (বাংলাদেশি)
    ◑➤ #লাভ_এন্ড_রেসপেক্ট_রিভিউ
    ______________________________________________
    ♦️© Shaikh Imran

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    :

    ‘বিয়ে’, যার মাধ্যমে এক নতুন যাত্রার শুরু। দুটি মন, দুটি পরিবারের বন্ধনের সূচনা। এই যাত্রার জন্য কোনো সতঃসিদ্ধ নিয়ম বা বিষয়ভিত্তিক কোর্স করতে হয়না। বিয়ের পরই সম্পর্কের প্রতি দায়বদ্ধতা কিংবা পার্টনারের প্রতি অধিকারবোধ সহজাতগতভাবেই রাব্ব মানুষের মধ্যে সৃষ্টি করে দেন। নতুন সম্পর্কে নতুন দায়িত্ববোধগুলো আপনা থেকেই সেট হয়ে যায় মানুষের হৃদয়ে।

    কিন্তু আজকাল এই পবিত্র বন্ধনে সামান্য মতানৈক্য থেকেও স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কচ্ছেদ পর্যন্ত গড়িয়ে যায়। সম্পর্কের টানাপোড়েন বর্তমানে এক মহামারী আকার ধারণ করতে যাচ্ছে। আশেপাশের দাম্পত্যকলহে বিরাগ-বিচ্ছেদের ধ্বনি কানে বাজে অহর্নিশ।

    এর সমস্যার কারণ উদঘাটন যেমন জরুরী, সমাধানে পৌঁছুনোটাও তেমনি জরুরী। স্বামীর সাইকোলোজি, স্ত্রীর সাইকোলোজি, মিউচুয়াল আন্ডারস্ট্যান্ডিং, দায়িত্ববোধ, ভালোবাসা ও সম্মান ইত্যাদির সমন্বয়ে দাম্পত্যজীবনকে ব্যালেন্সে রাখাটা প্রয়োজন। এটা ইমব্যালেন্স হয়ে গেলে হালাল সম্পর্কও হয়ে যেতে পারে ভীষণ রকমের তিক্ত।

    দাম্পত্য জীবনে এই ব্যালেন্স রাখার জন্য সংসারে খুঁটিনাটি থেকে শুরু করে স্বামী-স্ত্রীর কেমিস্ট্রিতে মিষ্টতা আনয়নের জন্য ‘লাভ এন্ড রেসপেক্ট’ বইটির অবতারণা। তিন দশকের কাউন্সিলিংয়ের অভিজ্ঞতায় ঋদ্ধ এমারসন এগারিচেস বইটিতে এঁকেছেন স্বামী-স্ত্রীর নীল-গোলাপি সম্পর্কের রসায়নগাঁথা। দাম্পত্য জীবনের উপর লেখকের এটি এক অসাধারণ সৃষ্টি। রচনার পর থেকেই পেয়েছে উত্তরোত্তর পাঠকপ্রিয়তা। উঠে এসেছে নিউইয়র্ক টাইমসের বেস্ট সেলার লিস্টে, অ্যামাজনে পেয়েছে তিনহাজারেরও বেশী রেটিং।

    অবিশ্বাস্য জনপ্রিয়তা লাভকারী এই বইটির বাঙলায়ন করে পাঠকদের সামনে তুলে ধরেছে প্রচ্ছদ প্রকাশন। অনুবাদ করেছেন রোকন উদ্দিন খান।

    ▪️বইয়ের অভ্যন্তরেঃ
    সমগ্র পৃথিবীতে দাম্পত্য জীবনে মধুরতা সৃষ্টির জন্য এই বইটি গাইডলাইনের পরিচিতি লাভ করেছে। বইয়ের নাম থেকেই বিষয়বস্তু সম্পর্কে আঁচ করা যায় সহজেই। মোট তিনটি অংশে বিভক্ত পুরো বইটি। অংশত্রয়ে আবার সম্মিলিত ২৪টি অধ্যায়।

    প্রথম অংশ হচ্ছে পাগলাচক্র। বেশ আকর্ষণীয় না নামটা? এমনই একেকটা আকর্ষণীয় শিরোনাম-উপশিরোনামে সাজানো হয়েছে বইটি। পাগলাচক্র অংশে রয়েছে ৭টি অধ্যায়।
    এই অংশের গোড়াতেই লেখক তার বাস্তব জীবনের অভিজ্ঞতা রোমন্থন করেছেন। নিজেদের জীবনের সমস্যাগুলোর অকপট স্বীকারোক্তি, সমাধানের রূপরেখা আর কাউন্সিলিংয়ের বর্ণনা সবকিছুর সমন্বয়ে লিখাগুলো যেমন উপভোগ্য হয়েছে, তেমনি পেয়েছে গ্রহণযোগ্যতা। এই অংশের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে, দাম্পত্য জীবনকে সুখময় করার কিছু অভিনব কৌশল, একটি সফল বিয়ে, সফল দাম্পত্য, সাইকোলজিক্যালি স্বামী-স্ত্রীর কেমিস্ট্রির জানা-অজানা রহস্য ইত্যাদি।

    দ্বিতীয় অংশটি হচ্ছে উৎসাহচক্র। মোট ১৫টি অধ্যায়ে সজ্জিত এই অংশ। দাম্পত্য জীবনকে উপভোগ্য আর সুখময় করার কিছু টিপস ও কৌশল হচ্ছে এই অংশের উপজীব্য। রাগ কন্ট্রোল, স্বামী-স্ত্রীর বোঝাপড়া, সমঝোতা, ঘনিষ্ঠতা বাড়ানোর উপায় ইত্যাদি আলোচনা করা হয়েছে এই অংশটিতে।

    শেষ অংশটি হচ্ছে পুরস্কারচক্র। এই অংশ বইয়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ। স্বামী-স্ত্রী একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার পুরস্কার অবশ্যই পাবেনই পাবেন। সম্পর্কের সংস্কারে নিজের সবটা দিয়েও যদি আশানুরূপ ফলাফল না মিলে, তবু্ও হাল ছেড়ে না দিয়ে যা করণীয়, সে বিষয়গুলোই আলোচনা হয়েছে এই অংশে।

    ▪️বইটির বিশেষত্বঃ
    বইটির প্রধান বিশেষত্ব হচ্ছে দাম্পত্য জীবন নিয়ে সুদীর্ঘ ত্রিশ বছরের অভিজ্ঞতালব্ধ অতি সূক্ষ্ম চিন্তাধারা আর লেখকের অসাধারণ জীবনদর্শনকে গৎবাঁধা প্রবন্ধে মলাটবদ্ধ না করে বরং লেখক একে প্রাণবন্ত আড্ডার মতো করে পাঠকের সামনে তুলে ধরেছেন। শব্দচয়নে বৈচিত্র্যতা আর ভিন্নধারার লিখনশৈলী প্রসঙ্গকে করেছে তুলনামূলক অধিক উপভোগ্য। তার উপর আকর্ষণীয় সব শিরোনামের মোড়কে সজ্জিত পুরো বইটি।একঘেয়েমি আসার চান্সই নেই।

    অনুবাদও ঝরঝরে। পাঠের সময় অনূদিত গ্রন্থ বলে মনেই হয়না। মৌলিক বইয়ের ফিল পাওয়া যায়। সবচেয়ে ইন্টারেস্টিং ব্যাপার হচ্ছে, পুরুষের পছন্দ নীল আর মহিলাদের পছন্দ গোলাপী দু’রঙের প্রচ্ছদেই বাজারে এসেছে এই বই। সম্ভবত ইসলামি অঙ্গনে এই ব্যাপারটা প্রথমবারের মতোই হলো। দু’টো কিউট প্রচ্ছদে নীল-গোলাপীর গভীর সম্পর্কগাঁথা পাঠকের জন্য এটি রীতিমতো সোনায় সোহাগার পর্যায়ে নিয়ে গেছে।

    ▪️বইটি কেন পড়বেন?
    বাজারে এ’বিষয়ক এতো বই থাকতে এই বইটি পড়তে যাবেন কেন? এই প্রশ্নটা পাঠকমনে জাগতেই পারে। এর উত্তরে আমি বলবো এ বিষয়ে অনেক বই থাকলেও, এই বইটির মতো শুধুমাত্র দাম্পত্যজীবনকেই ফোকাস করে গভীর পর্যালোচনামূলক বই একটিও নেই। বিবাহেচ্ছু, বিবাহিত কিংবা অবিবাহিত সবার জন্য সমভাবে প্রয়োজনীয় এই বইটি। কুররাতু আইয়ুন লাভের মূল্যবান সব থিওরী পেয়ে যাবেন এই বইটাতে। পড়বেন আর দাম্পত্যজীবনে নিজের দায়িত্বজ্ঞানহীনতার ব্যাপারটা উপলব্ধি করতে পারবেন, সেই সাথে পেয়ে যাবেন পরিবর্তনের আলোকচ্ছটা; একটা কম্পলিট গাইডলাইন।

    ▪️পাঠ্যাভিমতঃ
    ভাঙনের সুরে আজকাল বিষাক্ত হয়ে যাচ্ছে জীবনের তাবৎ সৌন্দর্য। হালাল সম্পর্কের দাম্পত্যকলহ রীতিমতো কাঠগড়া পর্যন্ত নিয়ে দাঁড় করায় অপরপক্ষের মানুষটিকে। ন্যূনতম শ্রদ্ধা নেই একে-অপরের প্রতি, নেই ভালোবাসার ছিটেফোঁটা, দায়িত্ববোধ মাড়িয়ে যান্ত্রিকতায় রূপ নিয়েছে দাম্পত্যজীবনের একেকটা দিন।

    এমন সময়টায় এসব বই প্রেস্ক্রিপশানের মতো কাজ করে। সম্পর্কের সমীকরণে ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা ঢেলে দিয়ে ঘরময় প্রশান্তি চাষাবাদে লেখকের প্রচেষ্টার ফসল এই বই, যে ভালোবাসা ছড়িয়ে পড়বে প্রতিটি দম্পতির জীবনে, টিকে থাকবে প্রজন্ম থেকে প্রজন্মান্তর। দাম্পত্য জীবনের শুরু, মধ্য কিংবা শেষ, যে পর্যায়েই থাকুন না কেন, বইটি আপনার জন্যই। মাস্টারপিস এবং মাস্টরিড।

    #লাভ_এন্ড_রেসপেক্ট_রিভিউ

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    :

    #লাভ_এন্ড_রেসপেক্ট_রিভিউ

    প্রারম্ভিকা
    ————–
    সুখী দাম্পত্য জীবনের চাবিকাঠি কী? এর উত্তর কী সত্যিই কারোর জানা আছে! অনেক আশা, একরাশ স্বপ্ন চোখে নিয়ে দু-জন মানুষের এক সাথে জীবন শুরু করেন। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই সেখানে একঘেয়েমির পলি জমে। এমনকি মধুর সম্পর্কের পরিণতি হয় বিচ্ছেদে।
    ইসলামিক জীবনব্যবস্থায় সুখী দাম্পত্য জীবন একটি অতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় যার ওপর নির্ভর করে একটি সুশৃঙ্খল ও সুষ্ঠু পরিবার তথা সমাজের রূপরেখা।

    ভালোবাসার আরবী প্রতিশব্দ হুব যা এসেছে মূল শব্দ‌ “হাব” অর্থাৎ বীজ‌ থেকে। একজন পুরুষ এবং তার স্ত্রীর ভালোবাসা আসে সেই বীজ থেকে — যা আল্লাহ সুবহানাহু তাআলা তাদের হৃদয়ের গভীরে গেঁথে দেন রহমত স্বরূপ।
    যে বীজে রয়েছে একটি হৃদয়কে সতেজ রাখার মতো পুষ্টিকর উপাদান, চমকপ্রদ স্বাদ,আশ্রয় দেওয়ার মতো সুনিবিড় ছায়া, পুনরুত্থানের শক্তি, যে বীজ সারিয়ে তোলে দীর্ঘলালিত বেদনা।

    অথচ তরুণ প্রজন্ম এই বিবাহ নামক সুন্দর সম্পর্ক থেকে দূরে সরে আসতে চাইছে ক্রমশ।নিত্য দৈনিক বিবাহ কলহ এবং অশান্তি বৃদ্ধি করছে বিচ্ছেদের হার।
    সঙ্গীর সাথে সম্পর্কের টানাপোড়েন নিয়ে চিন্তিত এই জাতির অনেকেই এখন বিয়ের কথা ভাবতেই ভয়ে কুঁকড়ে যায়।
    দাম্পত্য জীবনের নানান সমস্যার সমাধান হিসাবে ‘লাভ এন্ড রেসপেক্ট: দাম্পত্য জীবনের অজানা রহস্য’- বইটি ড. এমারসন এগারিচেসের অসাধারণ সৃষ্টি।
    দাম্পত্য সম্পর্কের ওপর তিন দশকের কাউন্সেলিংয়ের অভিজ্ঞতার নির্যাস দিয়ে ড. এমারসন এগারিচেস বইটিতে এঁকেছেন স্বামী-স্ত্রীর নীল-গোলাপি সম্পর্কের রসায়নগাঁথা। স্বামী স্ত্রীর সাইকোলজি কীভাবে কাজ করে? সেই সাইকোলজিকে কীভাবে ইতিবাচকভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যায়? –তার একটি চমৎকার পাঠ রয়েছে বক্ষমান ব‌ইটিতে যা সাম্প্রতিককালে বাংলা ভাষায় অনুদিত হয়েছে প্রচ্ছদ প্রকাশনা থেকে।

    লেখক পরিচিতি
    ————————
    ড. এমারসন এগারিচেস আন্তর্জাতিকভাবে সুপরিচিত একজন পাবলিক স্পিকার ও লেখক। তাঁর কর্মতৎপরতার মূল ফোকাস– দাম্পত্য সম্পর্ক। তিরিশ বছরেরও বেশি সময় ধরে করা কাউন্সেলিংয়ের অভিজ্ঞতায় ঋদ্ধ ড. এমারসন ‘লাভ এন্ড রেসপেক্ট’ বিষয়ের ওপর যে কনফারেন্সগুলো করে চলেছেন, তা সারা বিশ্বে তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

    নারী-পুরুষের মনস্তত্বের চিত্তাকর্ষক বিশ্লেষণ এবং নারী-পুরুষের সম্পর্কের রসায়নের অভিনব ব্যাখ্যা দিয়ে তিনি বহু বৈবাহিক সম্পর্কের ভাঙনরোধে সহায়তা করেছেন এবং অসংখ্য স্বামী-স্ত্রীর মাঝে বইয়ে দিয়েছেন সুখের ঝরনাধারা।
    অ্যামাজনে এই বইয়ের রেটিংয়ের সংখ্যা তিন হাজারেরও বেশি।প্রায় বিশ লাখ কপি বিক্রিত এ গ্রন্থটি নিউ ইয়র্ক টাইমসের একটি বেস্ট সেলার বই।

    ব‌ইকথন
    ————-
    ব‌ইয়ের নামকরণ থেকে সহজেই বিষয়বস্তু অনুসন্ধান করা যায়।দাম্পত্য সম্পর্কের ওপর তিন দশকের কাউন্সেলিংয়ের অভিজ্ঞতার নির্যাস দিয়ে ড. এমারসন এগারিচেস বইটিতে এঁকেছেন স্বামী-স্ত্রীর নীল-গোলাপি সম্পর্কের রসায়নগাঁথা।
    লাভ এন্ড রেসপেক্ট বইটি বিভিন্ন চমকপ্রদ শিরোনামে সর্বমোট ২৪টি অধ্যায়ে বিভক্ত। পাঠকদের সুবিধার্থে বেশ কিছু অধ্যায়কে সম্মিলিত করা হয়েছে এক একটি অংশে, এইভাবে সর্বমোট তিনটি অংশে আলোচিত হয়েছে বিষয়বস্তু।

    📙প্রথম অংশ- পাগলাচক্রঃ-
    এই অংশের নামটি বেশ আকর্ষণীয়, পাঠকের দৃষ্টি টানে সহজেই। প্রথম অংশে রয়েছে সাতটি অধ্যায়।
    লেখক এখানে তাঁর জীবনের কিছু বাস্তব অভিজ্ঞতা রোমন্থন করেছেন। তিনি লিখেছেন তাঁর শৈশব পেরিয়ে কৈশোর উত্তীর্ণ দিনগুলোতে তাঁর মা বাবার অশান্তির, স্বীকার করেছেন তিনি নিজেও অসুখী দম্পতির সন্তান।
    পরবর্তী জীবনে তাঁর অসংখ্য ব্যাক্তিগত অভিজ্ঞতা, দম্পতিদের কাউন্সিলিং এর বর্ণনা ফুটে উঠেছে তাঁর লেখায়।
    নারী-পুরুষের মনস্তত্বের চিত্তাকর্ষক বিশ্লেষণ এবং নারী-পুরুষের সম্পর্কের রসায়নের অভিনব ব্যাখ্যা
    ও কৌশল প্রতিস্থাপন করছেন নিজস্ব বুদ্ধিমত্তার আলোকে।

    একটি সফল বিয়ের সাধারণ গোপন রহস্য, তোমার বক্তব্য সঠিক হলেও তোমার বলার ভঙ্গি সঠিক নয়, একজনের চোখে যা অপছন্দ অন্যজনের চোখে তা কর্তব্য, ভালোবাসা ও তিক্ততা, ভালোবাসা ও শ্রদ্ধার সংযোগ, গোলাপি ও নীল, স্ত্রীর শ্রদ্ধা ও স্বামীর ভালোবাসা,
    বৈজ্ঞানিক গবেষণায় ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা সহ একাধিক আলোচনায় যুক্তি ও ভালোবাসার নিরিখে ভুল ত্রুটি ও এর সমাধান পর্যালোচিত হয়েছে।

    📙দ্বিতীয় অংশ -উৎসাহ চক্র:-
    দ্বিতীয় অংশটি পনেরটি অধ্যায়ে‌ সাজানো হয়েছে।
    এই অংশে লেখক আলোচনা করেছেন সুখী দাম্পত্য জীবন গঠনের বেশ কিছু বুদ্ধিদীপ্ত কৌশল।
    এখানে পাগলা চক্র বনাম উৎসাহ চক্রের লড়াই, রাগ পুষে রাখবেন না, স্বামী স্ত্রীর বোঝাপড়া‌ ও ঘনিষ্ঠতা , অন্তরঙ্গতা বাড়ানোর কৌশল,স্ত্রী ও স্বামী একে ওপরকে বোঝার চাবিকাঠি ,সমঝোতা প্রভৃতি উল্লেখযোগ্য বিষয়ে আলোকপাত করা হয়েছে।

    📙তৃতীয় অংশ : পুরস্কারচক্রঃ-
    ব‌ইয়ের সর্বশেষ এবং উল্লেখযোগ্য অংশ এটি।
    এখানে লেখক আলোচনা করেছেন লাভ অ্যান্ড রেসপেক্টের অন্তর্নিহিত উদ্দেশ্য, হাল ছেড়ে দেবেন না, স্বামীর ভালোবাসা ও স্ত্রীর শ্রদ্ধা অবশ্যই পুরস্কৃত হবে, যে সত্য আপনাকে মুক্ত আকাশের স্বাদ এনে দেবে, নিজের ত্রুটির দিকে নজর দিন , সন্তানের দিকে নজর দেওয়ার মত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় উঠে এসেছে।
    সুখী দাম্পত্য জীবনের সবরকম প্রচেষ্টা চালিয়ে দেওয়ার পরেও যখন তা কার্যক্রম সফলতা পায়না কিংবা সঙ্গীর থেকে আশানুরূপ ফিডব্যাক পাওয়া যায়না সেই অবস্থায় করণীয় কি তার বিস্তারিত ব্যাখ্যা লেখক দিয়েছেন ‌বইয়ের শেষে।
    ব‌ইয়ের পরিশিষ্ট অংশে সংযুক্ত হয়েছে লাভ এন্ড রেসপেক্ট অনুশীলন যা বাস্তবসম্মত উপায়ে সহযোগিতা করবে।

    পাঠ্য অনুভূতি
    ——————–
    একটি সুখী ও সফল দাম্পত্য জীবনে সকলের প্রাথমিক চাওয়ার মধ্যে পড়ে।একটা সুন্দর সম্পর্ক আমাদের স্বপ্ন হলেও বাস্তবে আমরা সম্মুখীন হ‌ই নানান তিক্ত অভিজ্ঞতার। এই তিক্ত অভিজ্ঞতা, এবং এর উল্লেখযোগ্য সমাধান যদি ব‌ইয়ের পৃষ্ঠায় পেয়ে যায় তাহলে এর থেকে অধিক পাওয়া আর কি হতে পারে।‌
    বইটিতে লেখক সুখী দাম্পত্য জীবন গঠনের গোপন রহস্যের যুগোপযোগী ফর্মুলা দিয়ে রেখেছেন যা অত্যন্ত বাস্তব সম্মত। লেখকের সহজ সাবলীল উপস্থাপন এবং সুন্দর সমাধান মন ছুঁয়ে যায় অনায়াসে।
    সর্বশেষে ব‌ইটির মধ্যে এক মনোমুগ্ধকর জাদু আছে যা অন্তরে গেঁথে যায়।

    কেন পড়বেন
    ——————-
    বিবাহেচ্ছু, বিবাহিত সুখী যুগল, অসুখী স্বামী স্ত্রী সবার জন্য বইটি হতে পারে সুখপাঠ্য এবং উপকারী। দাম্পত্য জীবনের অজানা রহস্যাদি জেনে সম্পর্ককে আরও সুখময়, প্রাণবন্ত করে নিতে কাছে রাখতে পারেন বইটি।

    পরিশেষে
    ————-
    আপনি যদি বিয়ের জন্য অপেক্ষমাণ হন কিংবা আপনি আপনার দাম্পত্য জীবনকে সুখে-শান্তিতে টইটুম্বুর করে সাজাতে চান অথবা আপনি যদি চান আপনার সঙ্গী আপনাকে আরও ভালোভাবে বুঝুক?
    তাহলে ব‌ইটি আপনার জন্য অবশ্যই পাঠ্য।

    এমনকি আপনি যদি সেই দাম্পত্য সম্পর্ক উপভোগ করার প্রত্যাশী হন,যা মহান আল্লাহ যে সম্পর্ক আপনাদের মধ্যে বিরাজমান দেখতে চান তাহলেও এ বইটি আপনার জন্য।

    সর্বশেষে আপনি দাম্পত্য জীবনে নানা সমস্যায় জর্জরিত হয়ে বিবাহ বিচ্ছেদের চিন্তা করছেন এই মুহূর্তেও ব‌ইটি আপনার প্রয়োজন।
    লাভ এন্ড রেসপেক্ট ব‌ইটি সহায়তা করবে দাম্পত্য জীবনের অনাবিল সুখ ফিরিয়ে আনতে।

    ব‌ই: লাভ এন্ড রেসপেক্ট
    লেখক : ড. এমারসন এগারিচেস
    প্রকাশনী : প্রচ্ছদ প্রকাশন
    বিষয় : পরিবার ও সামাজিক জীবন

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No