মেন্যু


কলবুন সালীম (নির্মল অন্তর, নির্মল জীবন)

প্রকাশনী : সমর্পণ প্রকাশন

সম্পাদনা: মুহাম্মাদ জুবায়ের
মোট পৃষ্ঠা : ১৯২
কভার: পেপার ব্যাক

পাঠক জনপ্রিয়তা অর্জন করা ‘হারিয়ে যাওয়া মুক্তো‘র পর উস্তাদ আলি হাম্মুদার লেকচার অবলম্বনে দ্বিতীয় বই ‘কলবুন সালীম: নির্মল অন্তর, নির্মল জীবন’। এবারের বইটি ভিন্ন ধাঁচের। এতে স্থান পেয়েছে ঈমান জাগানিয়া একাধিক গল্প, সংশয় থেকে বেঁচে থাকার উপায়, দুআ কবুলের কৌশল, এছাড়া আত্মশুদ্ধি এবং আমলের উদ্দীপনা নিয়ে উস্তাদ আলি হাম্মুদার অসংখ্য উপদেশবাণী।

উস্তাদকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দেবার প্রয়োজন নেই। যুবকদের নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত কাজ করে চলা ফিলিস্তিনি এই আলিম সকলের পরিচিত মুখ। উস্তাদের লেকচারগুলোর মতই এই গ্রন্থের প্রতি পরতে পরতে পাঠক আবিষ্কার করবেন পূর্বসূরিদের রেখে যাওয়া অমিয় আদর্শ। কখনও গল্পের ভাষায়, কখনও নসিহতের ভাষায় এখানে নির্মল জীবন গড়ার পাথেয় তুলেছেন ধরেছেন তিনি। তাই কুরআনে আসা ইবরাহীম (আ.)-এর বিখ্যাত দুয়ার অবলম্বনে সংকলক বইটির নামকরণ করেছেন ‘কলবুন সালীম’, অর্থাৎ বিশুদ্ধ অন্তর। একটি শুদ্ধ জীবন গড়ার প্রত্যয় নিয়ে রচিত এই গ্রন্থটি সকলের জন্য হতে পারে একটি চমৎকার উপজীব্য।

পরিমাণ

182  260 (30% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

7 রিভিউ এবং রেটিং - কলবুন সালীম (নির্মল অন্তর, নির্মল জীবন)

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    ক্বলবুন সালীম৷ অর্থ: নির্মল অন্তর৷ আখিরাতের পথে সবচেয়ে বড় পাথেয় হলো ক্বলবুন সালীম তথা নির্মল অন্তর৷ পরকালে সে-ই সফল হবে যে হাজির হবে নির্মল অন্তর নিয়ে আর সে হতভাগার জন্য রয়েছে দুর্ভোগ যে হাজির হবে তার কলুষিত ক্বলব নিয়ে৷ তাকে সম্মুখীন হতে হবে ভয়াবহ কঠিন আযাবের৷
    “যে দিন ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততি কোন কাজে আসবে না; সে দিন উপকৃত হবে শুধু সে, যে আল্লাহ্‌র কাছে আসবে বিশুদ্ধ অন্তঃকরণ নিয়ে।”[ কুরআন-২৬: ৮৮-৮৯ ]

    বইটির সংক্ষিপ্ত পরিচয়:

    কলবুন সালীম মুলত একটি সংকলিত গ্রন্থ৷ ফিলিস্তিন বংশোদ্ভূত উস্তাদ আলি হাম্মুদা(হাফি.) এর ইউটিউব, ব্লগ ও ফেসবুকে যেসব উপকারি লেখা ও লেকচার দিয়েছেন তার আদলে বইটি সংকলন করেছেন মহিউদ্দিন রুপম ভাই৷

    বই পর্যালোচনা:

    বইটির শুরুতেই রয়েছে সাফল্যের এপিঠ ওপিঠ শিরোনামে ড. আব্দুর রহমান সুমাইত রহ. এর একজন ডাক্তার থেকে দাঈ হয়ে ওঠার ঈমান জাগানিয়া গল্প৷ ড. সুমাইত রহ. এর জীবন থেকে রয়েছে আমাদের জন্য শিক্ষা৷

    রয়েছে হারাম উপার্জন নিয়ে আলি ইবন আবি তালিব (রাযি.) এর একটি শিক্ষণীয় ঘটনা৷
    ক্ষমাশীলতার একটি উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত নিয়ে শায়খুল ইসলাম ইমাম ইবনু তাইমিয়্যা রহ. এর ক্ষমাশীলতার একটি ঘটনার বর্ণনা৷

    তাছাড়া বইটিতে বাস্তব ঘটনার দ্বারা দান সাদাকার গুরুত্ব ও যেভাবে তা বিপদাপদ দূর করে দেয় তা ফুটিয়ে তোলা হয়েছে৷

    বইটিতে আরও যেসব স্থান পেয়েছে
    – রবের সান্নিধ্য পাওয়ার কিছু টিপস
    – শয়তানের ধোঁকা থেকে বাঁচতে করণীয়
    – সংশয় থেকে বেঁচে থাকার উপায়
    – দুআ কবুলের কৌশল নিয়ে আলোচনা
    – নামাজে মনোযোগ ধরে রাখার উপায়
    – আমলের দুর্বলতা কাটিয়ে আমলে উৎসাহী হওয়ার জন্য নাসীহাহ
    – তাছাড়া বইয়ের প্রতিটি অধ্যায়ই হৃদয়গ্রাহী আলোচনায় ভরপুর ও পাঠকের জন্য উপদেশবাণীতে ভরপুর৷

    অনুভূতি ও মন্তব্য:

    বইটির যে অংশ আমাকে সবচেয়ে বেশি আকর্ষণ করেছে সেটি হচ্ছে বইটির ভুমিকা৷ অনেকে অবাক হতে পারেন এই ভেবে যে ভুমিকা! হ্যাঁ ভুমিকা-ই৷ মুহতারাম মহিউদ্দিন রূপম ভাইয়ের বইটি সম্পর্কে অসম্ভব সুন্দর ভুমিকা-ই আমাকে বইটি পড়ার আগ্রহ কয়েকগুণ বাড়িয়ে দিয়েছে৷ ফলে বইটি বেশ ফুরফুরে মেজাজে পড়া গেছে৷ বইটির অনুবাদ সরল, সুন্দর এবং সহজে বোধগম্য৷ তাছাড়া বইটির প্রচ্ছদ ও পৃষ্ঠসজ্জা উভয়ই মাশাআল্লাহ নজরকাড়া৷

    বইয়ের ঈমান জাগানিয়া গল্পগুলো পাঠকের হৃদয় ছুয়ে যাবে৷ পাঠকের অবস্থা নিয়ে ভাবাবে, নাড়া দেবে তার হৃদয়কে, অনুপ্রেরণা যোগাবে এক নির্মল অন্তর গঠনের৷

    পরিশেষে রবের কাছে আকুতি জানাই, তিনি যেন আমাদের নির্মল অন্তর নিয়ে পরকালে উপস্থিত হওয়ার তৌফিক দান করেন এবং বইটির সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে কবুল করেন! আমীন৷

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    :

    #ওয়াফিলাইফ_পাঠকের_ভালোলাগা_জুলাই_২০২০

    #বই: কলবুন সালীম (নির্মল অন্তর, নির্মল জীবন),
    #লেখক : মহিউদ্দিন রূপম।

    #প্রারম্ভিক_কথাঃ
    আমরা সবাইতো ইসলাম মানি। কিন্তু সবাই কি জন্নাতে যেতে পাবর? সবাই কি জন্নাতে একসাথে থাকতে পারব? হয়তো না! সবাই ইসলামকে মানলেও অন্তর থেকে মানে খুব কম লোক। ইসলামকে জীবনব্যাবস্থা হিসেবে গ্রহন করে না অনেকেই। আল্লাহর ইবাদত করার পরেও মন টানে মানুষের দাসত্ব করতে। আল্লাহর কাছে সাহায্য চাই আবার পাপেও লিপ্ত হই। এভাবে অন্তুর হয়ে পড়ে কালো, কলুষিত। এই কলুষিত অন্তরকে ধুয়েমুছে পরিষ্কার করার জন্যই রচিত বইটি। কলবুন সালীম। কথাটির অর্থ নির্মল অন্তর, নির্মল জীবন।

    #বইটির_বিষয়বস্তুঃ
    বইটি একটি অনুপ্রেরণামূলক বই। নিজের জীবনকে ইসলামের আর্দশে সাজাতে এবং অন্তরকে পরিশুদ্ধ করতে অমূল্য একটি বই। বইটি মূলত বিশিষ্ট দাঈ উস্তাদ আলি হাম্মুদা’র লেকচার অবলম্বনে অনুবাদ করা। অনুবাদের কাজটি করেছেন মহিউদ্দিন রূপম। বইটিতে অধ্যায় আকারে বিষয়গুলো সাজানো হয়েছে।

    #কেন_পড়বেন?
    যে কাজগুলো আমারা প্রতিনিয়ত করি, নিজেকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারি না। অর্থাৎ পাপ কাজগুলো। উস্তাদ আলি হাম্মুদা বিষয়গুলো সুন্দরভাবে তুলে ধরেছেন। আবার অনেক বিষয় আছে যা আমরা জানি না কিন্তু করা উচিত সেই বিষয়গুলোও ফুটিয়ে তুলেছেন। এমন না জানা অনেক বিষয় লেখক তুলে ধরেছেন। তাই আমি মনে করি যারা ইসলাম মানেন এবং মানার চেষ্টা করেন তাদের বইটি পড়া উচিত। নিজের অন্তরকে পরিশুদ্ধ করার জন্য হলেও।

    #আমার_পরিবর্তনঃ
    বইটি যতই পড়ছি ততই নতুন নতুন অনেক বিষয় জেনেছি। বিষয়গুলো আমার জন্য জানা অপরিহার্য মনে হয়েছে কিন্তু এতদিন তা জানতে পারিনি। মহিউদ্দিন রূপম ভাইকে অনেক ধন্যবাদ বাংলা ভাষায় এমন একটি বই অনুবাদ করার জন্য। বইটি পড়ে নিজের ভিতর অদ্ভুদ রকম কিছু পরিবর্তন লক্ষ করেছি। আপনি পড়লে ইনশাআল্লাহ আপনিও নিজের পরিবর্তন লক্ষ করতে পারবেন।

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    :

    বই : কলবুন সালীম (নির্মল অন্তর, নির্মল জীবন)
    লেখক : মহিউদ্দীন রূপম
    অবলম্বনঃ উস্তাদ আলী হাম্মুদা’র লেকচার
    প্রকাশনীঃ সমর্পণ প্রকাশন
    মোট পৃষ্ঠা : ১৯২
    সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য : ২৬০ টাকা

    বইটি কাদের জন্য?
    শরীরের সুস্থতা সবাই চায়, অসুস্থ হলে পেরেশান হয়। হৃদয়ের সুস্থতা, নির্মলতা, প্রশান্তির জন্য কোন টোটকা আছে? অবশ্যই আছে। এই বইটি তার একটি। অনেকেই সুস্থ, সুন্দর, সুঠাম দেহ নিয়ে দুনিয়ার বুকে চলাফেরা করে বেড়াচ্ছেন কিন্তু মনের গহীন কোনে হৃদয়টা কেঁদে মরছে। এক অপ্রকাশিত ব্যাথা, চাপা কষ্ট নিয়েই বয়ে বেড়াচ্ছেন জীবন, পার করছে্ন মরুময় পথ, খুঁজছেন অনাবিল সবুজ বাগান। তাদের জন্যই নতুন দিনের আলো নিয়ে এলো এই বই। শুধু দেহের সুস্থতা নয়, হৃদয়ের প্রশান্তি নিয়ে সুন্দর, নির্মল জীবন গড়ার রোডম্যাপ এঁকে দিতেই এলো কাগজের বন্ধনে আবদ্ধ অসাধারন এইসব কথামালা। পড়ুন, প্রশান্তি সহকারে জীবন যাপন করুন।

    বই সম্পর্কেঃ
    বইটি মূলত যুব সমাজের জন্য অভিভাবক স্বরূপ সুপরিচিত বক্তা ও দায়ী উস্তাদ আলী হাম্মুদার হৃদয় গলানো লেকচারের সংকলন। ২৪ টি আবেগমাখা কাহিনীর মুক্তো দিয়ে মালা গাঁথা হয়েছে বইটিতে। বার বার মনে করিয়ে দেয়া হয়েছে আমাদের মূল লক্ষ্য, পথ, প্রশান্তির মাধ্যম, উপায়, উপকরনগুলো।

    বই এর অনন্য দিকগুলোঃ
    অসাধারন সব আবেগমাখা কথা, পঙতি, কাহিনী নিয়ে এগিয়ে চলেছে সাবলীল ভাষার এই বইটি। আয়াত, হাদীস, সালাফদের নানা কথা, উক্তি, কর্মকান্ডের জীবন্ত বিবরন বইয়ের বর্ননাকে করেছে আধুনিক, সহজবোধ্য ও চিত্তাকর্ষক। বইটি পড়তে পড়তে পাঠক নিজেকে পাতায় পাতায় খুঁজে পাবেন। গল্পগুলো পাঠের সাথে সাথে হারিয়ে যাবেন সেই সময়ে, সেই পরিবেশে। কখনও সাথী হবে চোখের পানি, কখনো তীব্র উৎসাহ, প্রশান্ত হৃদয়। এই দুনিয়ার জীবনে সুন্দরভাবে চলার পাথেয় অর্জনে পাঠক অন্যদের থেকে এগিয়ে থাকবেন যোজন যোজন। বই পড়ে উপলব্ধির জায়গায় দাঁড়িয়ে আনমনেই দোয়া চলে আসবে এর কথক, লেখক, প্রকাশক ও এই বইয়ের সাথে যারা জড়িত সকলের জন্য।

    বইয়ের উপযোগিতাঃ
    সব ধরনের মানুষের জন্য বইটি উপকারী। যুবকদের জন্য যেমন পথের দিশা তেমনি প্রাপ্তবয়স্কদের জন্যও প্রশান্তির উৎস। পরিবারে এমন একটি বই আলোকিত করে তোলে পুরা পরিবার। নৈতিকতা গঠনে সহায়ক হয় প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে। উপহার হিসাবেও দারুন হবে বইটি। যেকোন লাইব্রেরীতে আলো ছড়াবে উজ্জ্বলভাবে। তো দেরি কেন? আজই পরিচয় হয়ে যাক বইটির সাথে?

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  4. 5 out of 5

    :

    দেহ ও অন্তরের সমন্বয়ে মানুষ গঠিত । অন্তর হল মানুষের মুল । মানুষ তার অন্তরকে পবিত্র রাখার মাধ্যমে দুনিয়া ও আখিরাতে সফলতা অর্জন করতে পারে । আখিরাতে কেবল একটা জিনিসের মূল্যই বেশি হবে । আর সেটা হল পবিত্র ও বিশুদ্ধ অন্তর ।
    .
    আল্লাহ তায়ালা বলেন ,” নিশ্চয়ই যে ব্যক্তি আত্মাকে পূত- পবিত্র রাখবে সেই সফলকাম হবে , আর সে ব্যক্তিই ব্যর্থ হবে যে নিজেকে কলুষিত করবে ।“ (সুরা আশ শামস আয়াত ৯-১০)
    ,
    আল্লাহ তায়ালা বলেন , “ সেদিন ধন সম্পদ কোন কাজে আসবে না , আর না কাজে আসবে সন্তান – সন্ততি । বরং সেদিন সেই ব্যক্তি ই মুক্তি পাবে , যে আল্লাহর নিকট বিশুদ্ধ অন্তকরন নিয়ে আসবে ।(সুরা আশ শু আরা আয়াত ৮৮-৮৯ )
    এই দুই আয়াতের মাধ্যমে বোঝা যায় নির্মল অন্তরের গুরুত্ব । আল্লাহ মানুষকে তাঁর ইবাদত করার জন্য তৈরি করেছেন । আর ইবাদতএর পূর্ব শর্ত হল পবিত্রতা ,কারন আল্লাহ স্বয়ং পবিত্র । আল্লাহর ইবাদত করার জন্য দৈহিক পবিত্রতা যেমন প্রয়োজন তেমনি অন্তরের পবিত্রতাও প্রয়োজন । তাযকিয়াতুন নাফস বা আত্মশুদ্ধির মাধ্যমেই অন্তরের পবিত্রতা ও প্রশান্তি লাভ করা সম্ভব ।
    .
    .
    .
    বইয়ের বিষয়বস্তু ঃ

    অন্তর নির্মল করার উপায় , সফলতার চাবিকাঠি সহ মোট ২৪ টি আত্মশুদ্ধি ও দিকনির্দেশক মূলক আলোচনা রয়েছে বই তে । অনেকেই শয়তানের ধোঁকায় পতিত হয় । তাই এই বইয়ে উল্লেখ করা হয়েছে নেক সুরতে কিভাবে শয়তান ধোঁকা দেয় । এতে রয়েছে ঈমান জাগানিয়া একাধিক গল্প , সংশয় থেকে বেঁচে থাকার উপায় , আত্মশুদ্ধি এবং আমলের উদ্দীপনা নিয়ে শায়খ আলী হাম্মুদা অসংখ্য উপদেশবানী ।
    ভালোলাগার বিষয় সমূহ –

    বইয়ের বিষয়বস্তুর সাথে বইয়ের নামের খুব সুন্দর মিল রয়েছে । বইয়ের প্রচ্ছেদ বেশ আকর্ষণীয় । বইটিতে তেমন কোন বানান ভুল চোখে পড়ে নি । বইটি পড়ে মনে হয়েছে এখনই সময় নিজের অন্তরকে পবিত্র করার ।
    ,
    বই টি যাদের জন্য ঃ
    .
    আল্লাহ তায়ালা বলেন ,” বরং তাদের কৃতকর্ম ই তাদের অন্তরে মরিচা ধরিয়েছে ।“ (সুরা আল মুতাফফিফিন আয়াত ১৪ ) । আমাদের মধ্যে কয় জনের রয়েছে নির্মল অন্তর । অধিকাংশেরই অন্তরে মরিচা ধরে গেছে । বই টি মূলত তাদের জন্য যারা নিজের অন্তর থেকে মরিচা দূর করতে চায় । নির্মল , প্রশান্ত অন্তর পাওয়ার জন্য বই টি সকলের পড়া উচিত ।
    কিভাবে অন্তরের মরিচা দূর করা যায়? কিভাবে প্রশান্ত , নির্মল ও পবিত্র অন্তরের অধিকারী হওয়া যায় ? কিভাবে প্রকৃত সফলতা অর্জন করা যায় ? এমন সব প্রশ্নের উত্তর জানতে হলে পড়তে হবে
    উস্তাদ আলী হাম্মুদার লেকচার অবলম্বনে মহিউদ্দীন রূপম ভাইয়ের লেখা প্রথম বই – কল্বুন সালীম (নির্মল অন্তর , নির্মল জীবন) ।

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  5. 5 out of 5

    :

    অসাধারণ ইমান জাগানিয়া একটি বই।
    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  6. 5 out of 5

    :

    ‘কলবুন সালীম’ নির্মল অন্তর পাওয়ার যাত্রা শুরু করা উচিত আল্লাহ কে চেনার মাধ্যমে, তাকে পাওয়ার মাধ্যমে। ‘যে সব পেলো কিন্তু আল্লাহ কে হারালো, সে কি পেল? যে সব হারালো কিন্তু আল্লাহ কে পেল, সে কি হারালো?’

    বইয়ে মোট চব্বিশটি অধ্যায় দিয়ে রচিত। আমরা যে সাফল্যের পিছনে ছুটে বেড়াই তা দিয়েই প্রারম্ভ। সাফল্য বলতে আমরা কি বুঝি? নামি-দামি ইউনিভার্সিটি থেকে গ্রাজুয়েশন শেষ করতে পারা? বড়ো ব্যবসায়ী কিনবা মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানির CEO হওয়া? নাকি সংসদের এমপি হওয়ায়? নাহ এগুলো সাফল্য নয়। সাফল্য তো সেখানেই যেখানে আমরা দুনিয়াতে অবস্থান করেও আখিরাতের জন্য পুজি সংগ্রহ করে নেই। দুনিয়ার বিনিময়ে আখিরাত কিনে নেই।

    এই জীবন, সাফল্য যে রহমানের দান তাকেই যদি না চিনি তবে সেই কলবের কি দাম? কি ভাবেই সে শুদ্ধতার যাত্রায় অগ্রসর হবে? রহমান যদি রহম না করে, কি হবে এই সাফল্যের? না কোন কাজে আসবে না সেই বিচার দিবসে। যে রহমানের পরিচয় জেনে তাকে আপন করে নেয়, নিজেকে বিলিয়ে দেয় আল্লাহর উদ্দেশ্যে, তার দুনিয়ার প্রতি কোন ইচ্ছাই জাগে না। কেবল মাত্র তার ইবাদাতেই সন্তুষ্টি খুঁজে পায়। নিজের কলব কে নির্মল করে নেয়।

    তাদের জীবনের এতো বছরের পথ গুলো কাটে শুধু জান্নাতের সন্ধানে। ইলম অন্বেষণে, ইবাদাত গুজারের মাধ্যমে। যে অন্তর হারাম-হালাল বেছে চলে সে কলবে শ্বয়তানের আক্রমণ কমই পড়ে। কারণ তারা আল্লাহর কালাম কে চিনে। কুরআনের সাথে তাদের পথচলা হয়। শির্ক-কুফরি থেকে বেঁচে থাকে সর্বদা। তাদাব্বুরে মনোনিবেশ করে। রাসূলের সুন্নাহ মেনে চলে।

    কোন ভাবে গুনাহ হয়েও গেলে আল্লাহর কাছে আত্মসমর্পণ করে নেয়। আল্লাহর সাথে কথা বলে, তাওবা করে। আর যখন কোন বান্দা এসবে গাফেল হয় তখন সে আমলের স্বাদ থেকে বঞ্চিত হয়। দুআ করতে পারে না আর আগের মত। আগ্রহ জাগে না।

    এভাবেই দিন যেতে যেতে এক সময় মৃত্যু কাছে এসে যায়। কলব কে পরিশুদ্ধ না করলে আমরা আল্লাহর রহমত থেকে বঞ্চিত হবো। আমাদের কবর গুলো আযাবে পরিনত হবে। তাই আসুন এখনই আমরা কলব কে আল্লাহর জন্য বিলিয়ে দেই। আল্লাহ যেন সবাই কে কবুল করে নেন। আমীন!

    সবার কাছে অনুরোধ থাকবে বইটি একবার হলেও পড়ুন। নিজের মধ্যে পরিবর্তন লক্ষ্য করবেন ইন-শা-আল্লাহ।

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  7. 5 out of 5

    :

    ভালো ফসলের জন্য যেমন শস্যক্ষেতকে আগাছা থেকে মুক্ত রাখতে হয়, পরিচর্যা করতে হয়, পোকামাকড়-রোগবালাইয়ের আক্রমণ থেকে শস্যক্ষেতকে নিরাপদ রাখতে হয়। তেমনি ঈমানের ফল ভোগ করতে হলে অন্তরকে পরিশুদ্ধ করতে হয় সকল পাপ-পঙ্কিলতা থেকে।
    .
    শিহাব আহমেদ তুহিন ভাইয়ের অনূদিত বই ‘হারিয়ে যাওয়া মুক্তো’র মাধ্যমে পাঠকদের কাছে পরিচিতি লাভ করেন ফিলিস্তিন বংশোদ্ভূত, বিশ্বজুড়ে খ্যাতিমান এই আলিম ‘উস্তাদ আলি হাম্মুদা (হাফি.)’। তাঁর লেকচারে, ব্লগে, ফেইসবুকে উম্মতের উদ্দেশ্যে উপকারী যে উপদেশমালা ছড়িয়ে দিয়েছেন, সেগুলোকে বাছাই করে ছায়া অবলম্বনে ‘মহিউদ্দিন রূপম’ ভাই রচনা করেছেন “কলবুন সালীম: নির্মল অন্তর, নির্মল জীবন” গ্রন্থটি।
    .
    ‖বিষয়বস্তু‖
    বইটি মূলত হৃদয়কে প্রশান্ত করার ফর্মুলায় রচিত হয়েছে। মোট চব্বিশটি লিখাকে নিয়ে বইটিকে মলাটবদ্ধ করা হয়েছে। বইটিতে আছে একজন দাঈ’র জীবনকথা, যিনি কিনা Tropical Diseases এর ওপর ডিগ্রি অর্জন করেও আফ্রিকান মানুষগুলোর হিদায়াতের জন্য উৎসর্গ করে দিয়েছিলেন তাঁর জীবন, শ্রম, সম্পদ—সবকিছু। নিজেকে বিক্রি করে দিয়েছিলেন আল্লাহর কাছে।
    .
    রয়েছে শাইখুল ইসলাম ইবনু তাইমিয়্যা (রহ.)-এর ক্ষমাশীলতার একটি অনুপম দৃষ্টান্ত, হারাম উপার্জন নিয়ে আলি ইবনু আবী তালিব (রাযি.) এর একটি শিক্ষণীয় ঘটনা। কিছু বাস্তব ঘটনার দ্বারা দান-সদাকার গুরুত্ব, কিভাবে তা বিপদআপদ হটিয়ে দেয়, রোগবালাই লাঘব করে, দুঃখ-দুর্দশা থেকে মুক্তি দেয় তাও আলোচনা করা হয়েছে।
    .
    বইয়ের আনাচেকানাচে লুকিয়ে আছে আত্মশুদ্ধিমূলক, আমলের প্রতি উৎসাহ জাগানিয়া অসংখ্য উপদেশবাণী৷ এছাড়াও দু‘আ, তাহাজ্জুদ, অল্পে তুষ্ট থাকা,তাদাব্বুরে কুরআন, জীবনের লক্ষ্য—এমন সব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে দিকনির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। আরো আছে রাসূলুল্লাহ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) এর হাদিসের সাহায্যে কিভাবে শয়তানের কুমন্ত্রণাগুলোকে খণ্ডন করে আত্মশুদ্ধির পথে অবিচল থাকা যায় তার নমুনা।
    .
    ‖ভালো লাগা – মন্দ লাগা‖
    কিছু কিছু বই পড়লে নিজেকে নিয়ে নতুন করে ভাবতে হয়, অগোছালো জীবনটাকে নতুন করে সাজানোর ইচ্ছা জাগে। এটিও সেরকমই একটি বই। আত্মশুদ্ধি ও আত্মউন্নয়নমূলক এই বইটিতে নিজেকে পরিশুদ্ধ করার পদ্ধতি বাতলে দেওয়া হয়েছে। এমনভাবে নসীহাহ করা হয়েছে, যা নাড়া দেবে পাঠকের হৃদয়কে, অনুপ্রেরণা যোগাবে এক নির্মল অন্তর গঠনের৷ বইটির কোনো খারাপ দিক চোখে পড়েনি, তবে একটু আফসোস বোধ কাজ করেছে- বইটি আরেকটু যদি বড় হতো।
    .
    ‖পাঠ অভিমত‖
    বইটি আমাদের অন্তরের অবস্থাকে নিয়ে ভাবাবে, নিজেকে পরিশুদ্ধ করার জন্য ব্যাকুল করে তুলবে। নফসকে পাপাচার থেকে থামিয়ে নেক আমলের প্রতি উৎসাহী করে তুলবে। দেখিয়ে দিবে আমাদের কমতিগুলো এবং জানিয়ে দিবে যারা সম্মানিত হয়েছেন তাদের জীবনসংগ্রামের ঘটনাগুলো। বইটি পড়াকালীন কখনো সঙ্গী হবে চোখের পানি, নিজেকে রবের নিকট সপে দেওয়ার প্রবল আগ্রহ, কখনো অনুভব করবেন প্রশান্ত হৃদয়ের অনুভূতি।
    4 out of 4 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No