মেন্যু
kinbodontir kotha bolchi

কিংবদন্তির কথা বলছি

প্রকাশনী : নাশাত
আমরা অনেকেই আজকাল 'ফিকশন' শব্দের অর্থ ঠিকঠাক বুঝি না। অধিকাংশই মনে করি, 'ফিকশন' মানে গাল-গপ্পো, ইতিহাস-রাজনীতির সাথে যার কোন সম্পর্ক নেই। এভাবে রূপকথা ও ফিকশন শব্দদু'টি প্রায় সমার্থবোধক হয়ে উঠেছে।... আরো পড়ুন
পরিমাণ

99  180 (45% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

1 রিভিউ এবং রেটিং - কিংবদন্তির কথা বলছি

5.0
Based on 1 review
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published.

  1. 5 out of 5

    মুহাম্মাদ ইবনু ত্বয়্যিব:

    “কিংবদন্তির কথা বলছি” বৈদিক হলে প্রথমে অভিভূত হয়েছি অর্পণ দেখে। আর শব্দে শব্দে বাক্যে বাক্যে এতটাই বিস্মিত হয়েছি যে, বিশ্বাস হতে চাচ্ছিল না— এটা কোনও কওমী ছাত্রের লেখা, আবার তাঁর প্রথম বই। সত্যি হুমায়ুন আজাদের শিশুতোষে এমন মজা পাওয়া যায় যদিও তাতে কোনও শিক্ষা-দীক্ষা থাকে না।
    .
    বইটি অনেক পছন্দ হলেও এক গতিতে প্রথমে এগোতে পারিনি। কারণ, খান সাহেব রাহিমাহুল্লাহ মুমূর্ষ অবস্থায় যে, অসহায়ত্ববোধে দিনাতিপাত করেছেন, আমার বাবা দীর্ঘ এক বছর ধরে এমন অবস্থা পার করছেন— সালাতের ব্যকুলতার পাশাপাশি তাদরিসের জন্য তাঁর একই অবস্থা। তাই বিদায় ধ্বনি গুলো কেমন জানি বাবার সাথে মিলে যাচ্ছিল। ফলে চোখের অবাধ অশ্রু থামাতে ব্যর্থ হয়ে এগোতে পারিনি।
    .
    অধ্যায়টি শেষ হলে অনেক দুঃখের কাহিনী থাকলেও সামনে বাড়তে বাধা সৃষ্টি হয়নি। অবশ্য নোনাজল ধরেছে কিছু কাহিনী পড়ে। আবার আনন্দে চোখ বড় হয়েছে— ইতিহাসের কোনো কোনো মনীষীর পরিচয় জেনে বইয়ের পাতায় পাতায়। সন্তান গড়ে তুলতে মা-বাবার ত্যাগ-তিতিক্ষা পরিলক্ষিত হয়েছে— বইটির কানায় কানায়। স্বদেশী ও ইংরেজ শত্রুদের পরিচয় এসেছে ধাপে ধাপে। আবার বিপ্লবী শিক্ষক মনীষীদের খোঁজ বের করে তুলে ধরেছেন একটু পরে পরে যা, পড়ার গতিকে তেজস্বী গতিতে তাড়িত করেছে পরবর্তীতে। সাথে কিছু প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হতে বাধ্য করেছে।
    .
    ধূর! কে কিংবদন্তি এটা বলতে একেবারে ভুলে গেছি! তিনি‌ বাংলায় ইসলামি রেঁনেসার পথিকৃৎ। শত বৈচিত্রের মাঝে তাঁর জীবনে রয়েছে ঐক্যের সুর আল্লামা মহিউদ্দিন খান রাহিমাহুল্লাহ।
    .
    সত্যি বইটি পড়ে আমি আপ্লুত। কিছু শিক্ষণীয় বিষয় জানতে সবাইকে বইটি পড়তে বলবো।
    ১- বড়দের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ জাগ্রত করতে।
    ২- আদব-আখলাক ও শিক্ষাদীক্ষার পাশাপাশি বড়দের সংস্পর্শ উপকারীতা উপলব্ধি করতে।
    ৩- শত শত বিপদাপদ উপেক্ষা করে কিভাবে মা-বাবা সন্তান প্রতিপালন করে তা বুঝতে।
    ৪- একনজরে গল্পের পাতায় পাতায় বাংলার ইতিহাস দেখে নিতে।
    ৫- বাংলার শ্রেষ্ঠ সন্তানদের পরিচয় পেতে।
    ৬- ইতিহাস দর্পণে শত্রু-মিত্র চিনে নিতে।
    ৭- বিপদ আপদে হতোদ্যম নাহয়ে উদ্যমী হয়ে উঠতে।
    .
    অল্প কিছু ছোট মাথায় যা, এসেছে, বলেছি। বোদ্ধমহল ভালো-মন্দ নির্ণয় করতে পারবেন। আমি শুধু ভালো পেয়েছি, বিধায় বলেছি।
    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No