মেন্যু
khushu namajer pran

খুশু নামাজের প্রাণ

প্রকাশনী : মাকতাবাতুন নূর

অনুবাদ: জোজন আরিফ
সম্পাদক: মানযূরুল করীম
পৃষ্ঠা সংখ্যা: ১৪৪ (হার্ড কভার বাধাই)

শাইখুল ইসলাম ইবনু তাইমিয়্যাহ (রহ.) বলেন,
সুমহান ও মহিমাময় আল্লাহর কিতাব লক্ষ করলে দেখা যায়, ইসলামে আল্লাহ পছন্দ করেন এমন জিনিস সহ্য করতে না পারা একটি নিন্দনীয় ব্যাপার এবং যারা এরূপ করে তারা আল্লাহর অসন্তুষ্টি প্রাপ্ত হয়। একজন বান্দার জীবনে তিরস্কার ও অসন্তুষ্টি কেবল তখনই আসে যখন সে কোনো ফরজ ত্যাগ করে বা হারাম কাজে লিপ্ত হয়। সুতরাং যাদের অন্তরে খুশু নেই তারা যদি তিরস্কৃত হয়, তবে খুশুর অপরিহার্যতা প্রমাণিত হবে।আল্লাহর কালামে খুশুর কথা উল্লেখ করে বলা হয়েছে :

“…অবশ্য তা (নামাজ) যথেষ্ট কঠিন। কিন্তু সে সমস্ত বিনয়ী লোকদের পক্ষেই তা সম্ভব।”

অর্থাৎ আমাদের অবশ্যই খুশু-সহকারে নামাজ আদায় করতে হবে। বক্ষ্যমাণ গ্রন্থে নামাজে খুশু-খুযুর গুরুত্ব, পদ্ধতি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছেন ইমাম ইবনু রজব হাম্বলি রহ.।

পরিমাণ

154  220 (30% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
- ৪৯৯+ টাকার অর্ডারে একটি প্রিমিয়াম বুকমার্ক ফ্রি!

- ৬৯৯+ টাকার অর্ডারে একটি একটি আমল চেকলিস্ট ফ্রি!

- ৮৯৯+ টাকার অর্ডারে একটি বই ফ্রি!

- ১,১৯৯+ টাকার অর্ডারে একটি আতর ফ্রি!

- ১,৪৯৯+ টাকার অর্ডারে সারাদেশে ফ্রি শিপিং!

প্রসাধনী

5 রিভিউ এবং রেটিং - খুশু নামাজের প্রাণ

5.0
Based on 5 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    আমরা মুসলিম ৷ নামাজ আমাদের উপর ফরজ ৷ শুধু নামাজ পড়লেই কি হবে ? তা তো আল্লাহর কাছে গ্রহণযোগ্য হতে হবে ৷ নামাজ আল্লাহর কাছে কবুল হওয়ার প্রধান একটি শর্ত হলো খুশু ৷ ‘খুশু’ শব্দটির সাথে আমি মাত্র অল্প কিছু দিন আগে পরিচিত হয়েছি, স্হানীয় মসজিদের থেকে ৷ এখন খুশু সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিলাম এই বইটি থেকে ৷ এই বইটি পড়লে জানতে পারবেন খুশু কী, নামাজের খুশুর গুরুত্ব, খুশু অর্জনের উপায়সহ অনেক কিছু ৷ সবকিছুই দলিলসহ সুন্দরভাবে গুছিয়ে উপস্হাপন করা হয়েছে৷
    খুশুর মৌলিক অর্থ হলো – অন্তরের কোমলতা, নম্রতা, স্হিরতা, নতমস্তক, ভগ্নতা ও আকুলতা ৷ অন্তরের খুশুই হলো আসল খুশু ৷ আতা আল-খুরাসানি (রা.) বলেন, ‘অন্তরের নম্রতা ও অঙ্গ-প্রটঙ্গের অনুবর্তিতা উভয়ের মিলিত রূপ হলো খুশু ৷ ‘
    যুহরি (রা.) বলেন, ‘ অন্তরের খুশু বলতে বোঝায় আল্লাহ্ ও সালাতের সময় দৃষ্টি নত রাখা৷’
    মূলত বিনয় ও নম্রতাই হলো খুশু ৷ নামাজে দাঁড়িয়ে শুধু রুকু সিজদাহ্ করলেই হবে না, বরং এতে থাকতে হবে বিনয় ও নম্রতা তথা খুশু ৷ আমাদের অধিকাংশই বিনয় ও নম্রতার সাথে সালাত আদায় করি না, কেবল শারীরিকভাবে পড়ার জন্য পড়ি ৷ অথচ খুশু ছাড়া নামাজ প্রায় মূল্যহীন ৷
    আল্লাহ্ তা’য়ালা স্বয়ং বলেছেন, ‘ মুমিনগণ সফল হয়ে গেছে, যারা নিজেদের নামাজে বিনয়-নম্র…৷( সূরা আল-মুমিনুন, আয়াত ২ ) ৷

    আমি বলব আপনি যদি মুসলিম হয়ে থাকেন এবং আল্লাহর কাছে গ্রহণীভাবে নামাজ পড়তে চান তাহলে এই বইটি আপনার পড়া উচিত ৷

    বইটির গঠন-বাইন্ডিং খুব ভালো লেগেছে, এবং ভালো লেগেছে এর প্রচ্ছদটিও ৷ খুব সুন্দর প্রচ্ছদ ৷

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    :

    “তোমরা স্বীয় প্রতিপালককে ডাকো কাকুতি মিনতি করে এবং সংগোপনে।” [সূরা আরাফ,৭:৫৫]

    ভূমিকা
    —————-
    আল্লাহ তা’আলা মানুষের জন্য দুনিয়ায় হাজারো নেয়ামতের ব্যবস্থা করেছেন। কিন্তু ইমানের নেয়ামতের তুলনায় বাকি সবই গৌণ। ইমান এমন এক সম্পদ যা বান্দাকে ইহ ও পরকালে কল্যাণ ও সাফল্যে ভূষিত করে। আল্লাহ তা’আলা বলেছেন,

    নিশ্চয়ই মুমিনগণ সফল হয়ে গিয়েছে, যারা নামাজে বিনয়-নম্রতা অবলম্বন করে। [সূরা আল মু’মিনুন ২৩:১-২]

    খুশু কেবল একটি শব্দ নয় যে তার আক্ষরিক অনুবাদই কাউকে খুশুওয়ালা বানিয়ে দেবে। বরং খুশু হচ্ছে অনুভবের বিষয় যা জ্ঞানের মাধ্যমে বান্দার মস্তিষ্কে প্রবেশ করে অতঃপর হৃদয়ে অনুরোণন তোলে আর কর্মের মাধ্যমে বাহ্যিক আমলে পরিণত হয়।

    নামাজে খুশু সম্পর্কে জানা খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রতিটি মুমিনের জন্য। আর এই খুশু নিয়ে গভীর আলোচনা সমৃদ্ধ বই ‘খুশু নামাজের প্রাণ ‘। ইমাম ইবনে রজব হাম্বলী (রহঃ) এর লেখা ‘আল খুশু ফিস-সালাহ ‘ এর অর্থ হচ্ছে ‘খুশু নামাজের প্রাণ’। খুশু সম্পর্কে ইমাম রজব হাম্বলী (রহঃ) এর মূল লেখার পাশাপাশি অন্তর্ভুক্ত হয়েছে ইমাম ইবনে তাইমিয়্যাহ (রহঃ) ও ইবনুল কাইয়্যি(রহঃ) এর লেখা দুটি নিবন্ধ।

    পাঠ সংক্ষেপ
    ———————–
    খুশুর মৌলিক অর্থ হলো অন্তরের কোমলতা
    ,নম্রতা, স্থিরতা, নতমস্তক, ভগ্নতা, ও আকুলতা। মূলত অন্তরের খুশুই হলো আসল খুশু। কারণ অন্ত্র যখন খুশু তথা আল্লাহ-তা’আলার প্রতি ভয়ভীতি বিনয় ও নম্রতা সৃষ্টি হয়, তখন বাকি অঙ্গ ও প্রত্যঙ্গে ও তা ছড়িয়ে পড়বে। কারণ, মানুষের অঙ্গ প্রত্যঙ্গই তার অন্তরের অনুগামী। আল্লাহর রাসূল (সাঃ) বলেছেন,

    “নিশ্চয়ই শরীরের মধ্যে একটি মাংসের টুকরো আছে, যদ সেটা ঠিক থাকে, তাহলে পুরো শরীর ও ঠিক থাকবে।। কিন্তু যদি সেটা কলুষিত হয়, তাহলে পুরো শরীর কলুষিত হবে। সেটা হলো অন্তর বা কলব। ” [সহীহ মুসলিম : ১৫৯৯]

    যখন অন্তর বিনম্র হয়ে যায় তখন শ্রবণ, দৃষ্টি, মুখমণ্ডল সকল অঙ্গ প্রত্যঙ্গ ও তাদের কাজকর্ম এমনকি মুখের কথা ও বিনম্র হয়ে যায়। এজন্য রাসূল (সাঃ) বলেছেন,

    “আমার কান, চোখ, মগজ, হাড়, শিরা-উপশিরা সবই তোমার প্রতি বিনয়াবনত হয়েছে। [সহীহ মুসলিম:৭১১]

    বান্দার অন্তরে আল্লাহর বড়ত্ব ও ঔদার্য্য ও পরিপূর্ণতার যে আধ্যাত্মিক জ্ঞান রয়েছে সেখান থেকেই খুশুর উৎপত্তি। বান্দা যখন আল্লাহর গুণাবলি দেখতে পাই তখন তার সামনে খুশুর পথ দৃষ্টিগোচর হয়। কোনো কোনো অন্তরে খুশু আসে আল্লাহর সাথে বান্দার নৈকট্য হৃদয়ঙ্গম করার মাধ্যমে। আবার কোনো কোনো অন্তরে খুশু আসে মহিমান্বিত আল্লাহ বান্দার গোপন থেকে গোপনতর বিষয় জানেন ও তার সমস্ত গতিবিধি বা স্থিরতা পর্যবেক্ষণ করে- এর প্রতি লজ্জাশীলতার মাধ্যমে। আল্লাহর ভালোবাসা ও সৌন্দর্য্য উপলব্ধি করার ফলে অনেক বিনীত হৃদয় তার প্রতি ভালোবাসায় ডুবে যায় এবং তার সাথে দেখা সাক্ষাৎ করার আকাঙ্খা পোষণ করে। তাঁর পাকড়াও প্রতিশোধ ও শাস্তির কঠোরতা ভয় যখন বান্দার মনে প্রবেশ করে, তখনো অনেক অন্তর অবনমিত হয়।

    খুশু সম্পর্কিত কয়েকটি কুরআনের আয়াতঃ-
    ১. যারা নিজেদের নামাজে বিনয় নম্রতা অবলম্বন করে। [আল মু’মিনুন, ২৩:২]
    ২. আর আল্লাহর সামনে একান্ত আদবের সাথে দাড়াও।[ সুরা বাকারা,২:২৩৮]
    ৩. তাদের মুখমন্ডলে রয়েছে সিজদাহ্’র চিহ্ন। [সূরা ফাতহ, ৪৮:২৯]

    খুশু সম্পর্কিত কয়েকটি হাদীসঃ-
    ১.ইমাম বুখারী আয়েশা (রঃ) এর সূত্রে বর্ণনা করেছেন, ‘আমি আল্লাহর রাসূল (সাঃ) কে নামাজে এদিক- ওদিক তাকানো সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করলেন। তিনি বললেন, “এটা এক ধরনের ছিনতাই যার মাধ্যমে শয়তান বান্দার নামাজ হতে অংশবিশেষ ছিনিয়ে নেয়।[বুখারী, ৭৫১: ৩২৯১]
    ২. আহমাদ ও তিরমিজি বর্ণনা করেন, রাসূল (সাঃ) বলেছেন, ” আল্লাহ কোনো উদাসীন ও অমমনোযোগী অন্তরের দোয়া কবুল করেন না।” মুসনাদে আহমাদ: ৬৬৫৫]

    পাঠক কেন বইটি পাঠ করবেন
    ———————————————–
    খুশু কী? খুশুর অর্থ, নিফাকী খুশু, ইবাদতে খুশু, নামাজে খুশু অর্জনের বিধানসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করতে বইটি অত্যন্ত কার্যকর হবে বলে আমার ধারণা। আপনি কী চাননা মহা’আরশের রবের দরবারে আপনার নামাজ, আপনার ইবাদত কবুল হোক। আপনি কী চান না পরকালে সফলতা অর্জন করতে? প্রতিটি পাঠককে বইটি পাঠ করার পরামর্শ দিচ্ছি। আশা করি, এই বইয়ের উছিলায় আপনি হয়তো খুশু অর্জন করবেন, ইন শা আল্লাহ।

    লেখক পরিচিতি
    ————————-
    হাফিজ আবুল ফারাজ ইবনু রজব হাম্বলী। তিনি ছিলেন একজন ইমাম ও হাফিজ। তিনি ৭৩৬ হিজরীতে বাগদাদের একটি পরহেজগার ও ইলমী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি তাঁর সময়ের সবচেয়ে বিজ্ঞ আলিমের নিকট হতে ইলম শিক্ষা করেন। তিনি বহুসংখ্যক কালজয়ী গ্রন্থ রচনা করেছেন। তন্মধ্যে রয়েছে আল -কাওয়াইদ আল- কুবরা ফিল ফুরু। তিনি ৭৯৫ হিজরীর রমযান মাসেএ ৪ তারিখ সোমবার রাতে আল – হুমারিয়্যাহ,দামেশকে মৃত্যুবরণ করেন।

    পাঠ প্রতিক্রিয়া
    ————————-
    বইটি পাঠ করে আমি নিজের মধ্যে অন্যরকম প্রশান্তি অনুভব করেছিলাম। নিজের পূর্বেকার নামাজে খুশুর অনুপস্থিতি বুঝতে পারছিলাম। বইটি পড়ে আমার হৃদয় খুশুর অপরিহার্যতা উপলব্ধি করেছিলো। এরপর আমি চেষ্টা করেছি নামাজে অধিক মনোযোগী হতে, আলহামদুলিল্লাহ।

    বইটির ভালো দিক
    —————————–
    “খুশু নামাজের প্রাণ ” বইয়ের ভাষা শৈলী অত্যন্ত সাবলীল ও সহজ। সকল স্তরের পাঠকের উপযোগী এই বই। আল্লাহর বাণী ও হাদীস সমেত আলোচনা বইটিকে সমৃদ্ধ করেছে।

    এক নজরে বইটি
    ————————–
    বই: খুশু নামাজের প্রাণ
    লেখক : ইমাম ইবনে রজব হাম্বলী (রহঃ)
    অনুবাদক : জোজন আরিফ
    প্রকাশক:
    মূল্য: ২২০ টাকা
    পৃষ্টা সংখ্যা: ১৪৩

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    :

    “সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর জন্য, সেসব অন্তরের মেরামতকারী যেসব অন্তর তাঁর নিমিত্তে ভগ্ন হয়েছে এবং তাঁর অনুগ্রহের অনুতাপকারীদের গুনাহ ক্ষমা করা হয়।”

    ∎পাঠ-প্রতিক্রিয়াঃ-
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    ইসলামের সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত হলো নামাজ। নামাজ হচ্ছে ইসলামের দ্বিতীয় রুকন। কালিমার পরেই এর স্থান। একজন মানুষ কালিমা পাঠ করে ঈমান আনার পর তার উপর সর্ব প্রথম ফরজ হুকুম আল্লাহর পক্ষ থেকে নামাজ। অথচ আমারা নামাজে ই করি তাড়াহুড়ো করে। থাকি উদাসীন। সালাতে দাঁড়ালেই যেন দুনিয়ায় সমস্ত চিন্তা চেপে বসে আমাদের মনে। মূলত সালাতে খুশুর অভাবেই এমন হচ্ছে। খুশু হচ্ছে নামাজের প্রাণ। প্রাণহীন কোন কিছুই উপকারী নয়।
    খুশু সম্পর্কিত কোরআনের আয়াত ও হাদিসে সমৃদ্ধপূর্ণ একটি বই “খুশু নামাজের প্রাণ”। নামাজে খুশুর পাশাপাশি বইটি থেকে জানতে পেরেছি প্রকৃত বান্দা হওয়ার উপায় যা আমাকে সত্যিই অনুপ্রাণিত করেছে। সর্বপ্রথম খুশু আনতে হবে অন্তরে। যার মাধ্যমে সৃষ্টি হবে আল্লাহর ভয় এবং তার মাধ্যমেই নামাজের সময় দৃষ্টি হবে নত।
    রাসূলুল্লাহ (সা.) এর নিম্নোক্ত সাবধান বাণীটি মনে
    রাখা জরুরী। তিনি বলেছেন, “মানুষের মধ্য
    থেকে যা সর্বপ্রথম উঠিয়ে নেয়া হবে তা হলো
    খুশু। ”
    আরো মনে রাখা উচিত, “আল্লাহ কোনো উদাসীন ও অমনোযোগী অন্তরের দোয়া কবুল করেন না।”
    আমাদের উচিত উপকারী ইলম অর্জন করা। যা আমাদের খুশুর পরিমাণ বাড়িয়ে দিবে। উপকারী ইলম বলতে সেই ইলমকে বোঝায় যা আল্লাহ ও তাঁর বান্দার মধ্যে আধ্যাত্নিক সম্পর্ক তৈরি করে। এমনভাবে তাঁর ইবাদত করা যেন সে তার রবকে দেখছে। কারণ খুশু
    হচ্ছে অনুভবের বিষয়। নামাজে খুশু অবলম্বনে এই বইটি নিঃসন্দেহে উত্তম। বইটির সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন দুনিয়া ও আখিরাতে জাযায়ে খাইর দান করুক।

    ∎যা আছে বইটি তেঃ-
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    নামাজ আল্লাহর পক্ষ থেকে মু’মিনের জন্য উপহার। যার মাধ্যমে অন্তর পরিশুদ্ধ হয়। এবং সর্বোচ্চ সফলতা ও নৈকট্য অর্জন হয়। বইটিতে নামাজ কীভাবে প্রাণবন্ত করে আল্লাহর সামনে উপস্থাপন করা যায়, সেই পদ্ধতিই বার বার বিভিন্নভাবে, হরেক রকম বর্ণনা ও কোরআন হাদিসের আয়াতের মাধ্যমে উঠে এসেছে। বইটি সর্বমোট তিনটি অধ্যায় ও পাঁচটি পরিশিষ্টের সমন্বয়।
    • খুশু কি বা এর অর্থ কি, নিফাকী খুশু মানে কি, খুশুর উৎস কোনগুলো, উপকারী ইলম কোন গুলো এবং আল্লাহুর প্রকৃত বান্দা কারা।
    • ইবাদতে খুশু আসবে কিভাবে, নামাজে খুশু অর্জনে সহায়ক বিষয়াবলী কোনগুলো এবং নামাজে যত্নশীল হওয়ার উপায় কি।
    • মিসকিন ও গরিবদের ভালবাসা, দাম্ভিকতা
    • নামাজে খুশুর বিধান কি। দুআয় হাত উত্তোলনের পদ্ধতি। সর্বশেষ কিভাবে খুশু অর্জন করবেন। যা পড়ে আমার মনে হয়েছে বইয়ের পুরো বইয়ের সারসংক্ষেপ ই এটা। এবং সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ।

    ∎বইটি কেন পড়বেন এবং অন্যদের উৎসাহিত করবেন?
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    যদি চান সরাসরি রবের সাথে কথা বলতে। এবং নামাজে চান খুশু। কারণ বইটিতে খুশুর দিক নির্দেশনা দেওয়া আছে। আর আমাদের কে নামাজ পড়তে বলা হয়নি। কায়েম করতে বলা হয়েছে। তাই নিজে খুশুর সাথে সালাত আদায় করার পাশাপাশি অন্যদের উৎসাহিত করতে হবে। কলবরে ছোট হলেও কুরআন-হাদিসের তথ্যে সমৃদ্ধ বইটি পাঠককে মুগ্ধ করবে ইংশাআল্লাহ।

    ∎বইটি যাদের জন্যঃ-
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    যারা নামাজে খুশুর মাধ্যমে আল্লাহর সাথে সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে চান এবং আল্লাহর নৈকট্য অর্জন করতে চান।

    ∎লেখক পরিচিতিঃ-
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    লেখক হাফিজ আব্দুল ফারাজ ইবনে রজব হাম্বলী। যিনি ছিলেন একজন ইমাম ও হাফিজ। যিনি ৭৩৬ হিজরীতে বাগদাদের একটি ফরহেজগার ও ইলমী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। সেই সময়ের সবচেয়ে প্রজ্ঞ আলেমদের নিকট হতে তিনি ইলম শিক্ষা অর্জন করেন। পরবর্তীতে অনেক তালিবুল ইলম তার কাছে এসে দ্বীনের জ্ঞান অর্জন করতেন। তিনি এমন একজন ব্যক্তি ছিলেন যিনি নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন ইলম অর্জনে। তিনি বহুসংখ্যক কালজয়ী গ্রন্থ রচনা করেছেন। যার মধ্যে অন্যতম হলো ‘আল-কাওয়াইদ আল-কুবারা ফিল ফুরু’। তিনি ৭৯৫ হিজরীর রমজান মাসের ৪ তারিখ সোমবার রাতে আল-হুমারিয়্যাহ, দামেশকে মৃত্যুবরণ করেন।

    ∎আলোচনা-সমালোচনাঃ-
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    বইটির প্রচ্ছদ, ডিজাইন, বাইন্ডিং অসাধারণ এবং পেজের মানও খুব সুন্দর যা দেখেই খুব ভালো লেগেছে। বইটির নজর কাড়া প্রচ্ছদ দেখেই সবার বইটি পড়ার প্রতি আগ্রহ জাগবে একবার হলেও, বলে আমার মনে হয়। তাছাড়া অনুবাদ বেশ সাবলীল যা পাঠকে মনোযোগ ধরে রাখতে সক্ষম। এছাড়াও বইটিতে টিকা ব্যবহার করা হয়েছে এবং নিচে রেফারেন্স দেওয়া হয়েছে যা বইয়ের মান আরো বাড়িয়ে বলে আমার মনে হয়।

    ∎প্রিয় কোটেশনঃ-
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    “হে আল্লাহ, আমি আপনার কাছে আশ্রই চাই এমন ইলম হতে, যা উপকারে আসে না, এমন অন্তর হতে, যাতে খুশু নেই, এমন আত্না হতে, যা কখনো পরিতৃপ্ত হয় না এবং এমন দুআ হতে যা কবুল হয় না”

    “মুমিনগণ সফলকাম হয়ে গেছে, যারা নিজেদের নামাজে বিনয়-নম্রতা অবলম্বন করে। ”

    ∎মন্তব্যঃ—
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    আল্লাহ পাক সকলকে খুশুর সাথে উত্তমরুপে সালাত আদায়ের তাওফিক এনায়েত করুক। আর আমাদের উচিত খুশু বিহীন অন্তর হতে পানাহ চাওয়া। বইটির লেখক ও এর সাথে সংশ্লিষ্ট সকলকে আল্লাহ তা’আলা উত্তম পুরস্কার দান করুক।
    আমীন।

    খুশু নামাজের প্রাণ
    লেখক : ইমাম ইবনু রজব হাম্বলি (রহঃ)
    প্রকাশনী : মাকতাবাতুন নূর বাংলাবাজার ঢাকা
    বিষয় : নামায ও দোয়া-দরুদ
    অনুবাদ: জোজন আরিফ
    সম্পাদক: মানযূরুল করীম
    পৃষ্ঠা সংখ্যা: ১৪৩ (হার্ড কভার বাঁধাই)
    প্রচ্ছদ মূল্য : ২২০৳

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  4. 5 out of 5

    :

    বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম

    #খুশু_নামাজের_প্রাণ_রিভিউ

    মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদের সৃষ্টি করেছেন একমাত্র তার ইবাদতের জন্য।তার ইবাদত করাই আমাদের কতর্ব্য। ইসলামের দ্বিতীয় রুকুন হচ্ছে নামাজ। ইমানের পরেই সালাতে স্থান।
    আমরা সবাই তো নামাজ আদায় করি। কিন্তু মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদের নামাজ কি কবুল করতেছে তা আমাদেরকে জানতে হবে।মাশাআল্লাহ “খুশু নামাজের প্রাণ ” বইটিতে অসাধারণ ভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে।
    অন্তরের খুশুই হলো আসল খুশু।
    “আন্তরিকতার সাথে আল্লাহর আনুগত্যের অংশবিশেষ হলো: অঙ্গ -প্রত্যঙ্গ আজ্ঞাধীন থাকবে এবং দৃষ্টি নত হবে।কোনো মুসলিম যখন নামাজের জন্য দাড়াঁবে তখন আল্লাহর ভয় তাকে ডানে বামে তাকানো থেকে বিরত রাখবে।”

    আতা আল-খুরাসানি বলেন,
    “অন্তরের নম্রতা ও অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের অনুবর্তিতা উভয়ের মিলিত রূপ হলো খুশু”
    খুশু ছাড়া নামাজ মূল্যহীন।
    মহিমাময়, প্রশংসনীয় সত্তা তিনি, যিনি খুশুতে পরিপূর্ণ হৃদয়ের কাছে আগমন করেন,যেমনি ভাবে তিনি নামাজে দাঁড়ানো বান্দার সাথে গোপনে কথা বলেন।
    আল্লাহর প্রতি শরীরের খুশু সঞ্চারকারী সর্বশ্রেষ্ঠ ইবাদত হলো নামাজ। আর যারা খুশু সহকারে নামাজ আদায় করে,আল্লাহ তায়ালা নিজ ভাষায় তাদের প্রশংসা করেছেন,
    “যারা নিজেদের নামাযের বিনয় নম্রতা অবলম্বন করে ”

    এমন একটা সময় আসবে যখন অন্তরে খুশু আছে এমন একজন মানুষকে খুঁজে পাওয়া যাবে না।

    আমাদের প্রত্যেক মুসলমানদের একবার হলেও ‘খুশু নামাজের প্রাণ’ বইটি পড়া উচিত।
    বইটি পড়ার আগে আমি অন্ধকারে হেঁটেছি, বইটি পড়ার পর ইলম অনেকটা পানির মত স্বচ্ছ।
    উপকারী ইলম হলো, যা অন্তরের গভীরে বাসা বাঁধে।
    তাই সবার জেনে রাখা প্রয়োজন, সর্বপ্রথম খুশুকেই দুনিয়া থেকে উঠিয়ে নেওয়া হবে।

    যে ব্যাক্তি নামাজে প্রকৃত খুশু অর্জনে সক্ষম হয়েছে কেবল সে-ই পারবে এমন সংকটময় মুহূর্তে নামাজ পড়তে।
    ইনশাআল্লাহ মহান আল্লাহ তায়ালা আমাদের সবাইকে খুশুর সাথে নামাজ আদায় করার তৌফিক দান করুক। (আমিন)

    বইঃ খুশু নামাজের প্রাণ
    লেখকঃ ইমাম ইবনে রজব হাম্বলী (রহ.)
    প্রকাশনীঃ মাকতাবাতুন নূর বাংলাবাজার ঢাকা
    অনুবাদঃ জোজন আরিফ
    সম্পাদকঃ মানযূরুল করীম
    পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৪৩
    প্রচ্ছদ মূল্যঃ ২২০৳

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  5. 5 out of 5

    :

    আজকে একটা গুরুত্বপূর্ণ বই নিয়ে নিজের পাঠ অনুভূতি সেয়ার করতে চাই ইং শা আল্লাহ।

    কিছু বই পড়ার জন্যে রিভিউ দেখার প্রয়োজন পড়ে না। এই বইটা সেরকমই একটি বই।
    বইয়ের নাম,প্রচ্ছদ আর লেখকের নাম দেখেই বইটা পড়ার আগ্রহ হয়েছিল।আলহামদুলিল্লাহ আল্লাহ পড়ার সৌভাগ্য দান করছেন।

    ◼️পাঠ-প্রতিক্রিয়া:বইটা যখন পড়ছিলাম, আমার হৃদয়টা দুমড়ে মুচড়ে যাচ্ছিল। ভাবছিলাম নবীজির নামাজ নিয়ে,কতই না চমৎকার করে সালাত আদায় করতেন।অন্তরের কোমলতা,বিনয়-নম্রতা ও আন্তরিকতা সাথে তিনি রবের সামনে দাঁড়াতেন।আজ আমরা সে খুশু হারাছি!
    ইলমী বিষয়ে সর্বপ্রথম খুশুকে দুনিয়া থেকে উঠিয়ে নেওয়া হবে। নবীজি সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন -এমন একটা সময় আসবে যখন অন্তরে খুশু আছে এমন একজন মানুষকে খুঁজে পাওয়া যাবে না।
    আবু দারদার রদ. বলেছেন-এমন একটা সময় আসবে যখন বিশাল একটা মসজিদে প্রবেশ করবে অথচ অন্তরে খুশু আছে এমন এক জনকেও দেখবে না।
    আল্লাহ আমাদের আশ্রয় দিক এমন খুশুবিহীন অন্তর থেকে।

    ◼️বই নিয়ে আলোচনা:বইটির প্রচ্ছদ,বাইন্ডিং,কাগজের মান খুবই ভালো ছিল, দেখেই হৃদয় টা প্রশান্তি পেয়েছে।বইটার প্রচ্ছদ যতটা সুন্দর, ভিতরটা আরো।বইটি লিখা সাবলীল, সহজ-সরল সবার বোধগাম্য।বই কুরআনের আয়াত এবং হাদিস রেফারেন্স সহ আছে এবং খুব সুন্দর ভাবে টিকা ব্যবহার করা হয়েছে।

    ⬛বইটি কেন পড়বেন, উপকারিতা:
    বইটিতে জানার মতন ও আমল করার মতন অনেক বিষয় আছে।যেমন কিভাবে অন্তরে খুশু আসবে, নামাজ কিভাবে খুশুর সাথে আদায় করা যায়,সব চেয় যে পার্ট টা আমার ভালো লেগেছে সেটা হচ্ছে হৃদয়গ্রাহী খুশুর ঘটনাগুলো।মোটকথা বইটা সব সময় পড়ার মতন একটি বই।রিমাইন্ডা হিসাবে কাজ করবে বইটি।যখনি খুশু অর্জন উপায়গুলো স্মরণ করার প্রয়োজন হবে বইটি খুলে দেখলে হবে।আল্লাহ আমাদের অন্তরে খুশু দান করুক। বইটি পড়ে আমল করার তৌফিক দান করুক।চমৎকার একটা বই পাঠক সমাজকে উপহার দেয়ার জন্যে প্রকাশক এবং বইয়ের সাথে জড়িত সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। রব আপনাদের উত্তম জাযা দিক।

    ∎লেখক পরিচিতিঃ
    লেখক হাফিজ আব্দুল ফারাজ ইবনে রজব হাম্বলী। যিনি ছিলেন একজন ইমাম ও হাফিজ। যিনি ৭৩৬ হিজরীতে বাগদাদের একটি ফরহেজগার ও ইলমী পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি এমন একজন ব্যক্তি ছিলেন যিনি নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিলেন ইলম অর্জনে। তিনি বহুসংখ্যক কালজয়ী গ্রন্থ রচনা করেছেন। যার মধ্যে অন্যতম হলো ‘আল-কাওয়াইদ আল-কুবারা ফিল ফুরু’। তিনি ৭৯৫ হিজরীর রমজান মাসের ৪ তারিখ সোমবার রাতে আল-হুমারিয়্যাহ, দামেশকে মৃত্যুবরণ করেন।

    খুশু নামাজের প্রাণ
    লেখক : ইমাম ইবনু রজব হাম্বলি (রহঃ)
    প্রকাশনী : মাকতাবাতুন নূর বাংলাবাজার ঢাকা
    বিষয় : নামায ও দোয়া-দরুদ
    অনুবাদ: জোজন আরিফ
    সম্পাদক: মানযূরুল করীম
    পৃষ্ঠা সংখ্যা: ১৪৩ (হার্ড কভার বাঁধাই)
    প্রচ্ছদ মূল্য : ২২০৳

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top