মেন্যু
kacher deal

কাচের দেয়াল

বিষয় : বিবিধ বই
প্রকাশকাল : আগস্ট ২০২০ পৃষ্ঠাসংখ্যা : ১৪৪ (হার্ডবোর্ড বাধাই) কাচের দেয়াল না বলে অদৃশ্য দেয়ালও বলা যেত। ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইল ঘিরে আছে অদৃশ্য সেই দেয়ালটি। কেউ দেখছে, কেউ দেখছে না। যা দেখছে... আরো পড়ুন
পরিমাণ

163  220 (26% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

1 রিভিউ এবং রেটিং - কাচের দেয়াল

5.0
Based on 1 review
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    মুহাম্মদ আতাউল্লাহ:

    #কালান্তর_ওয়াফিলাইফ_রিভউ_প্রতিযোগিতা_২০২১
    রিভিউ নং- ১
    বই – কাচের দেয়াল
    লেখক – রশীদ জামীল
    প্রচ্ছদ – সানজিদা সিদ্দিকী কথা
    মুদ্রিত মূল্য – ২০০
    প্রকাশনী – কালান্তর
    প্রকাশক – আবুল কালাম আজাদ

    বাংলাদেশের রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক বিভিন্ন প্রেক্ষাপট সামনে রেখে বইটি রচিত। অতন্ত্য চমৎকাররুপে ক্ষুদ্র পরিসরে উঠে এসেছে দেশের রাজনৈতিক সকল খুটিনাটি বিষয় থেকে নিয়ে জটিল বিষয়গুলোরও। রাজনৈতিক নেতাদের নৈতিক পদস্খলন ও আদর্শিক বিচ্যুতি। ভারতপ্রীতি বাংলাদেশ বিদ্বেষ। প্রতিটি বিষয়েরই গঠনমূলক সমালোচনা হয়েছে সঙ্গে তার জবাব দেওয়া হয়েছে। স্বাধীন দেশে পরাধীনতা, ধর্ষন, রক্তপাত, খুন, গুম এবং সন্ত্রাসী হামলা কোনোটাই বাদ পড়েনি আলোচনা থেকে। আলেম উলামা, প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতি কাউকেই ছেড়ে কথা বলা হয়নি নীতির প্রশ্নে।
    আমাদের চোখে পড়ে আছে আবারন। পুরো দেশটা আবৃত হয়ে আছে একটি সাদা(!) চাদরে। যে চাদর আমরা দেখেও দেখছি না। আমরা যেন কাচের ঘরে বন্দি সবকিছুকেই আমাদের মত করে দেখছি। আমাদেরকে যে এই আয়না ঘর থেকে বেরোতে হবে ডিঙাতে হবে এই কাচের প্রাচীর সেটাও কখনো ভাবছি না। অর্জিত স্বাধীনতাকে যে রক্ষা করতে হবে, টিকিয়ে রাখতে হবে সারভৌমকে সেটাও ভাবছি না। রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক অঙ্গনে অবদান রাখার প্রয়োজনবোধটুকুও আমরা করছি না। আমাদের অজ্ঞতা দুর করতে এবং এই আয়না ঘর থেকে বের হতে অনেক বড় ভূমিকা রাখবে এই ‘কাচের দেয়াল’।

    ⚫বেশি ভালো লাগা বিষয়টি –
    লেখালেখি করা হয় টুকটাক নিজের মত করে। মাসিক,পাক্ষিকেও লিখি মাঝেমধ্যে দু এক কলম। কিন্তু আমার লেখা কেমন হয়? কোন মানের হয়? এর কোন মাপকাঠি আছে কি? সেটা নিয় বেশ পেরেশান ছিলাম। আমার এই পেরেশানি দূর করে দিয়েছে ‘একটি আঠারো মাইনাস গদ্য’ শিরোনামের লেখাটি। খুব চমৎকারভাবে এখানে সাহিত্য সম্পর্কে একটা আলোচনা হয়েছে৷ যা থেকে লেখার মান নির্ণয়সহ গুরুত্বপূর্ণ কিছু টিপস পাওয়া যায়।
    সেখান থেকে দুটি কথা আমি তুলে ধরছি-
    প্রশ্নঃ সাহিত্য কাকে বলে?
    উত্তরঃ যা মন চায় তা-ই লিখে প্রকাশ করার নাম সাহিত্য।
    পৃথিবীর যত পন্ডিত যতভাবে সাহিত্যের সংজ্ঞা দিয়েছেন, সবগুলোর সারমর্ম আমি এটাই বের করতে পেরেছি। ইংলিশওলাদের প্রশ্ন করো, what does Literature mean? তারা বলবে published writings in a particular style on a particular subject. ‘নিজস্ব স্টাইলে নিদিষ্ট বিষয়ে প্রকাশিত লেখার নাম সাহিত্য।’ বাংলাওলাদের জিজ্ঞেস করো, সাহিত্য কাকে বলে? তাঁরা বলবে ‘আনন্দ-বেদনার বিচিত্র অনুভূতির শিল্পময় প্রকাশের নাম সাহিত্য।’ সবমিলিয়ে সাহিত্যের সহজ সরল সমীকরণটা কী দাঁড়াল? আমি বলব, যা মন চায় তা-ই লিখে প্রকাশ করে ফেলো। এটাই তোমার সাহিত্য।

    ⚫ কাদের জন্য এই বই-

    🔵আপনি কি আপনার চোখের আবরণ সরিয়ে দেশের অভ্যন্তরীন সকল বিষয়ে দৃষ্টি ফেরাতে চান? তাহলে আপনার এই বই।

    🔵 ভিপি নূর’ বর্তমান বাংলাদেশের একটি আলোচিত নাম। ইতিবাচক- নেতিবাচক বিভিন্ন জনের বিভিন্ন মত। আপনি কি নিরংকুশ কোন পক্ষপাতিত্ব ছাড়াই তার সম্পর্কে জানতে ইচ্ছুক? তাহলে আপনার জন্য এই বই।

    🔵 আপনি কি দ্য বেস্ট ভয়েস হাফিজ অব দ্যা ওয়াল্ড হুজাইফা সিদ্দিকী সম্পর্কে জানতে চান? জানতে চান আমেরিকার মত একটি সংকটাপন্ন পরিবেশে কিভাবে তার পিতা-মাতা ইসলামী আদর্শে যোগ্য মানুষ হিসেবে তাকে গড়ে তুলেছেন? তাহলে আপনার জন্য এই বই।

    🔵আপনি কি বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী পালন, নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আসার ব্যাপারে তাওহীদি জনতার সংগ্রামের সেই দিনগুলোতে চোখ বুলাতে চান? জানতে চান ভারতপ্রীতি এবং বাংলাদেশ বিদ্বেষ সম্পর্কে? তাহলে আপনার জন্য এই বই।

    🔵 আপনি কি দশকের ধারাপাত আর আগামীর রাজনীতিবিদ সম্পর্কে জানতে ইচ্ছুক? তাহলে আপনার জন্য এই বই।

    মোটকথা আপনার সামনে এমন অনেক জানা-অজানা বিষয়ের দ্বার উন্মোচিত করতে সক্ষম হবে এই ছোট্ট পুস্তিকাটি।

    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top