মেন্যু
fitnar juge koronio

ফিতনার যুগে করণীয়

পৃষ্ঠা : 200, কভার : পেপার ব্যাক
ঘনীভূত মেঘের মতো ক্রমাগত ধেয়ে আসা ফিতনা; গভীর অন্ধকার রাতের মতো কিংবা গায়ে গায়ে ধাক্কা লাগা সমুদ্রের উত্তাল ঢেউয়ের মতো, অন্ধ ও বধিরের মতো সবার ওপর চড়াও হওয়া ফিতনা; যাতে... আরো পড়ুন
পরিমাণ

200  267 (25% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

2 রিভিউ এবং রেটিং - ফিতনার যুগে করণীয়

5.0
Based on 2 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    Sheikh Israt:

    শেষ জানামায় মানুষ অধিকহারে পথভ্রষ্ট হবে।
    একের পর এক ফিতনা আসতেই থাকবে।

    ফিতনার ব্যাপারে স্বয়ং আল্লাহ তায়ালা বলেন,
    আর ফিতনা হত্যার চেয়েও বড়’।
    ( সূরা বাকারা: ২১৭)

    আর বিশ্বনবী (স.) এই ফিতনার ব্যাপারে আমাদের বার বার সতর্ক করেছেন। তিনি ফিতনাকে কবরের চেয়ে ভয়ংকার বলেছেন। কবরে ঈমান হারা হওয়ার ভয় নেই কিন্তু ফিতনায় ঈমান হারা হওয়ার ভয় আছে।

    আর যে তোমাদের মধ্য থেকে তাঁর দীন থেকে ফিরে যাবে, অতঃপর কাফির অবস্থায় মৃত্যু বরণ করবে, বস্তুত এদের আমলসমূহ দুনিয়া ও আখিরাতে বিনষ্ট হয়ে যাবে এবং তারাই আগুনের অধিবাসী। তারা সেখানে স্থায়ী হবে।
    ( সূরা বাকারা : ২১৭)
    এই আয়াত দ্বারা আল্লাহ তায়ালা ফিতনার কথা বুঝিয়েছেন।

    আর উম্মাতে মুহাম্মাদির ওপর ফিতনা সংঘটিত হবেই বৃষ্টির ন্যায় যেমনটি হাদিসে আছে,
    উসামা (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, নবী (স.) মদিনার কোন একটি পাথর নির্মিত গৃহের উপর আরোহণ করে বললেনঃ আমি যা দেখি তোমরা কি তা দেখতে পাচ্ছ? (তিনি বললেন) বৃষ্টি বিন্দু পতিত হওয়ার স্থানসমূহের মত আমি তোমাদের গৃহসমূহের মাঝে ফিতনার স্থানসমূহ দেখতে পাচ্ছি।
    ( সহিহ বুখারী:১৮৭৮)

    ইমাম নববি (রহ.) বলেন,
    ‘ ফিতনা ঘটার স্থানসমূহকে বৃষ্টি পড়ার স্থানসমূহের সাথে মিলিয়ে উদাহরণ দেওয়ার কারণ হচ্ছে,ফিতনা অনেক হবে এবং অধিক ব্যাপক হবে।

    হুজাইফা (রা.) বলেন,
    ‘ ফিতনা থেকে সাবধান থেকো।তোমাদের কেউ যেন ফিতনার নিকটবর্তী না হয়। আল্লাহর শপথ,তোমাদের যে ব্যাক্তি ফিতনার কাছে যাবে, ফিতনা তাকে গ্রাস করবে,সেইভাবে যেভাবে প্রবল ঢল ঘরবাড়িকে ভেঙ্গে চূর্ণবিচূর্ণ করে ফেলে। ফিতনা আবির্ভাবকালে সংশয়পূর্ণ হবে।

    তাই আমাদের ফিতনা থেকে বাচঁতে ফিতনা সম্পর্কে সতর্ক থাকতে হবে। ফিতনা সম্পর্কে জানতে হবে, শুধু ফিতনা সম্পর্কে জানায় যথেষ্ট নয় ফিতনার যুগে আমাদের কি করণীয় তা জানাও জরুরি।
    ‘ ফিতনার যুগে করণীয় ‘ বইটি যে কারণে পড়া উচিত:
    বইটিতে লেখক সুন্দর ভাবে ফিতনা ব্যাপারে উল্লেখ করেছেন..।
    তন্মধ্যে কিছু টপিক উল্লেখ করা হলোঃ
    ফিতনার পরিচয়
    ফিতনা আসবেই
    ফিতনার দিনে সবর
    ফিতনায় স্থিরতার উপায়
    ফিতনা থেকে বাঁচার পদ্ধুতি/উপায়।
    ফিতনাকালে নেক আমল
    এছাড়াও,
    নবীজীর সতর্কবাণী
    কুরআন সুন্নাহর অনুসরণ
    সংযত জবানসহ আরো টপিক আছে যা আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।
    আমাদের জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে ফিতনা ওতঁ পেতে বসে আছে।
    যেমন কুরআনে বর্ণিত আছে,
    তোমাদের ধন-সম্পদ ও সন্তান-সন্ততি তো তোমাদের জন্য ফিতনাস্বরুপ..।
    ( সূরা তাগ্বাবুন:১৫)

    3 out of 3 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    .:

    Fitna theke kivabe bacha jay tar upor Banglay best boi eta. Sobceye valo lagar bishoy cilo boitay prochur authentic reference deya . Must read boi ekta as we are living in the time of fitna .
    1 out of 3 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top