মেন্যু
১০০০ টাকার পণ্য কিনলে সারা দেশে ডেলিভারি একদম ফ্রি।

দরজা এখনও খোলা

প্রকাশনী : সমর্পণ প্রকাশন

অনুবাদক : মুহাম্মাদ ইউসুফ আলী
মোট পৃষ্ঠা: ৭২
কভার: পেপার ব্যাক

তুমি যে পথে হাঁটছ, ওটা অন্ধকারের পথ। বিন্দুমাত্র আলো নেই ওখানে। ও পথ যতই পাড়ি দেবে, ততই হারিয়ে যাবে নিকষকালো আঁধারে। তুমি অন্ধকারে হাঁটবে আর পথহারা হবে। আঁধারের বাঁদুরেরা তোমায় ভয় দেখাবে ক্ষণে ক্ষণে। একাকী তুমি আরও ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়বে। ভীত-বিহ্বল চিত্তে একসময় ক্লান্ত-পরিশ্রান্ত হয়ে তলিয়ে যাবে অতল ভয়ানক খাঁদে।
পথিক! তোমায় আলোর পথে ডাকছি। এখানে আলোআঁধারি খেলা নেই। নেই আঁধারের বাঁদুরের কোনো স্থান। চারিদিকে কেবল আলো আর আলো। এখানকার আলো থেকে ছিটকে-পড়া পুণ্যময় রশ্মিগুলো, তোমায় নিত্য ডাকছে হাতছানি দিয়ে। এ পথে হাঁটলে তুমি কখনও পথহারা হবে না। অতল তলে হারিয়ে যাবে না। এর শেষটা মিশে আছে জান্নাতের সাথে। এ পথের দরজা এখনও খোলা আছে। এসো তবে ফিরে।

তাওবার ওপর রচিত বক্ষ্যমাণ গ্রন্থটি ইতিহাসের সবচেয়ে প্রাচীন গ্রন্থগুলোর একটি। জগদ্বিখ্যাত ইমাম ইবনু আবিদ দুনইয়া রহ.-এতে তাওবাহ বিষয়ক নবীজির হাদীস, সাহাবী এবং পরবর্তী প্রজন্মের উক্তিগুলো সংকলন করেছেন।

পরিমাণ

77.00  110.00 (30% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

5 রিভিউ এবং রেটিং - দরজা এখনও খোলা

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 4 out of 5
    Rated 4 out of 5

    :

    ☆বইয়ের নামঃ দরজা এখনো খোলা
    ☆বইয়ের ধরনঃ ইসলামি আত্মউন্নয়নমূলক
    ☆লেখকঃ ইমাম ইবনু আবিদ দুনইয়া (রাহিমাহুল্লাহ)
    ☆প্রকাশকঃ সমর্পণ প্রকাশন
    ☆পৃষ্ঠাঃ ৭২
    ☆মুদ্রিত মূল্যঃ ১১০ টাকা
    ☆প্রকাশকালঃ জুন, ২০২০

    ☆বিষয়বস্তুঃ
    আদম সন্তানকে সৃষ্টি করা হয়েছে তার নেক আমলের মাধ্যমে প্রাপ্ত অবিনশ্বর চির প্রাচুর্যময় জান্নাতের জন্য, অন্তরে দেওয়া হয়েছে জান্নাতি আকাঙ্ক্ষা। সেই মানবহৃদয় নশ্বর এই ধরার অল্পকিছু ছেলেভোলানো সামগ্রীতে পূর্ন হবে কি করে! মহান আল্লাহ আযযা ওয়া যালকে ভুলে তবু মানুষ বারে বারে এই ক্ষণস্থায়ী পৃথিবীতেই খুঁজে ফেরে সুখ, নিজেকে নিমজ্জিত করে পাপের পঙ্কিল জলাশয়ে।
    অপরদিকে শাইত্বান নিরলসভাবে ওয়াসওয়াসা দেয়, ভুলভাবে উপস্থাপন করে গাফ্ফারুর রাহিমের ক্ষমার নিয়ামাতকে। সেই কুমন্ত্রণাকে উপেক্ষা করে, মুসলিম উম্মাহকে আবার আপন জীবনদর্শনে এনে, ক্ষমা প্রার্থনার রিমাইন্ডার হলো ” দরজা এখনো খোলা” বইটি!

    ☆বই পর্যালোচনাঃ
    প্রখ্যাত লেখক ইমাম ইবনু আবিদ দুনইয়া রাহিমাহুল্লাহ এর “আত তাওবা” গ্রন্থের অনুবাদ “দরজা এখনো খোলা”। অন্য বইয়ের মতো সূচীপত্র বা ভূমিকা এখানে অনুপস্থিত। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত ছোট বড় ২০৮টি পয়েন্ট নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে বইটিতে।
    আপন পাপের বিপরীতে ক্ষমাপ্রার্থনার প্রয়াস যে কত গভীর তা যেন নতুন করে উপলব্ধি হয় প্রতিটি পয়েন্টে। লেখক তার কলমের মাধ্যমে কখনো কুরআনের আয়াতে, কখনো হাদিসের আলোচনায় বা নিজস্ব ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণের আঙ্গিকে পাঠককে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন সেই আলোকিত দরজার সামনে।
    তুলে ধরেছেন বিভিন্ন মনীষীর ছোট ছোট কবিতা, যার গভীর মর্মার্থ হৃদয়কে আলোড়িত করে। সেই আলোড়ন অনুপ্রেরণা দেয় তাওবার, ফিরিয়ে আনে গুনাহ করা ইচ্ছা থেকে। দুই শতাধিক পয়েন্টে সাজানো বইটি মানবমনের ভুল ভ্রান্তির ঊর্ধ্বে থাকা মহান রাব্বে কারীমের ক্ষমার দরজার সামনে নিয়ে যায়, তাওবার দরজা, যে দরজা বান্দার জন্য এখনো খোলা…

    ☆আমার পাঠ্যানুভূতিঃ
    চমৎকার বিষয়বস্তু, কথা, ছোট ছোট কবিতা, কুরআনী উদ্ধৃতি গভীরভাবে ভাবতে সাহায্য করে, হৃদয়ে আলোর প্রদীপ জ্বেলে দেয়। এক একটি কথা তাকওয়া আর তাওবার নতুন নতুন তরঙ্গ সৃষ্টি করে হৃদমাঝারে।
    বই খুলে সূচীপত্র দেখার অভ্যাস, কিন্তু এই বইটিতে সূচীপত্র, ভূমিকা, অনুবাদকের কথা কিছুই পেলাম না। সত্যি বলতে একটু হতাশ হয়েছিলাম, কেমন বই এটা… কিন্তু বইয়ের নামটা এসব ভাবনাকে বেশি দীর্ঘায়িত করতে দেয়নি। দরজা এখনো খোলা নামটিতেই এক তীব্র আশার সঞ্চার হয়।
    অনুবাদ চলনসই, যদিও অনুবাদ বই তবু বলছি, পড়তে গিয়ে মনে হয়েছে বইটিকে এভাবে না সাজিয়ে, পয়েন্ট করে আরো একটু অন্যভাবে সাজানো যেতে পারত, তাহলে আরো সুখপাঠ্য হতো। যইফ হাদিস আমল করা যায় এটা নিয়ে আমার ধারণা ছিল না। জাল যইফ এক ফেলেছিলাম, পরে জেনেছি। মোটের উপর, অন্তরকে তাওবায় সিক্ত করতে বইটি ভূমিকা রাখবে।

    ☆কেন পড়বেন বইটিঃ
    ভুল করা মানুষের স্বভাবগত বৈশিষ্ট্য আর ক্ষমা করা আল্লাহর অসীম নিয়ামত ও গুণ। মানুষের অপরাধ আল্লাহর ক্ষমা চেয়ে উচ্চতায় পৌঁছাতে পারে না। এই কথা গুলো আরো একবার নতুন করে, নতুন ভাবে স্মরণ করিয়ে দেবে বইটি। অন্তরকে তাওবা দ্বারা প্রশান্ত করতে উৎসাহ জোগাবে, পাঠক বইটি পড়ে নিরাশ হবেন না ইংশাআল্লহ্!

    Was this review helpful to you?
  2. 4 out of 5
    Rated 4 out of 5

    :

    #ওয়াফিলাইফ_পাঠকের_ভালোলাগা_জুলাই_২০২০

    #বই: দরজা এখনও খোলা,
    #লেখক : ইমাম ইবনু আবিদ দুনইয়া।

    #বইটিতে_কী_আছে?
    বইটি তাওবা সংক্রান্ত। তাওবা করার গুরুত্ব, ফজিলত, উপায় ইত্যাদি বিষয় নিয়ে লেখা। লেখক মূলত হাদিস এবং কুরআনের আলোকে তাওবার মহত্ত্ব আলোচনা করেছেন। তাওবা কোন সময় করা উচিত। আর করলে কীভাবে করব? এইসব বিষয়ের উত্তর নিয়েই ছোট্ট পুস্তিকাটি।

    #কার_লেখাঃ
    বইটি এক হাজার বছর পূর্বে লেখা। ইমাম ইবনু আবিদ দুনইয়া ছোট্ট পুস্তিকাটি সংকলন করেছেন। তার অনুবাদের কাজ করেছেন মুহাম্মাদ ইউসুফ আলী সমর্পন প্রকাশন থেকে৷

    #কারা_পড়বেন?
    যারা তাওবা করার মহত্ব সম্পর্কে, তাওবা করার উপায় এবং কোন সময় করা উচিত বিষয়গুলো যারা জানেন না তাদের বইটি পড়া উচিত। বইটিতে লেখক যেভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন তাতে সাধারণ পাঠকের বুঝতে কোন অসুবিধা হওয়ার কথা না। পাঠকমাত্রই বুঝতে পারবেন।

    #আমার_মতামতঃ
    বইটি পড়ে তাওবা সংক্রান্ত বিশেষ কিছু বিষয় জানতে পারি। বিষয়গুলো মুসলিমের জন্য জানা প্রয়োজন। কিন্তু বেশকিছু হাদিসের মান যয়িফ এব কিছু দুর্বল চোখে পড়ল। আবার কিছু ইসরাইলী বর্ণনা রয়েছে বইটিতে। কয়েকটি হাদিসের মান নির্ণিত নয়৷ যদিও যয়িফ হাদিসের উপর আমল করা জায়েজ। আমি বলব সব মিলিয়ে বইটি সম্পর্কে মিশ্র প্রতিক্রিয়া আমার।

    Was this review helpful to you?
  3. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    একটি দৃশ্যপট নিয়ে চিন্তা করা যাক–

    – ভাইয়া, আমি তো অনেক বেশি গুনাহ করে ফেলেছি। আল্লাহ কি আমাকে ক্ষমা করবেন?

    – ভাইয়া, আপনি কি জানেন না আল্লাহ তা’আলা সূরা যুমারে কি বলেছেন? আল্লাহ তা’আলা বলেন – “হে আমার বান্দারা! তোমরা যারা নিজেদের ওপর যুলুম করেছ, তারা আল্লাহর করুণা হতে নিরাশ হয়ো না; নিশ্চয় আল্লাহ সব গুনাহ মাফ করে দেবেন। নিশ্চয় তিনি খুব বেশি ক্ষমাশীল, অনেক মেহেরবান।”

    – ভাইয়া, কিন্তু আমিতো ‘এই এই’ কাজের মতো জঘন্য গুনাহও করেছি। তাও কি আল্লাহ আমায় মাফ করবেন?

    – ভাইয়া, এক হাদীসে কুদসীতে আল্লাহ তা’আলা কি বলেছেন তাইলে শুনেন। আমাদের রব বলেন, হে আদম সন্তান! যতক্ষণ আমাকে তুমি ডাকতে থাকবে এবং আমার হতে (ক্ষমা পাওয়ার) আশায় থাকবে, তোমার গুনাহ যত বেশিই হোক, তোমাকে আমি ক্ষমা করব, এতে কোন পরওয়া করব না। হে আদম সন্তান! তোমার গুনাহ্‌র পরিমাণ যদি আসমানের কিনারা বা মেঘমালা পর্যন্তও পৌছে যায়, তারপর তুমি আমার নিকট ক্ষমা প্রার্থনা কর, আমি তোমাকে ক্ষমা করে দেব, এতে আমি পরওয়া করব না। হে আদম সন্তান! তুমি যদি সম্পূর্ণ পৃথিবী পরিমাণ গুনাহ নিয়েও আমার নিকট আস এবং আমার সঙ্গে কাউকে অংশীদার না করে থাক, তাহলে আমিও তোমার কাছে পৃথিবী পূর্ণ ক্ষমা নিয়ে হাযির হব।
    [জামে’ আত-তিরমিজি, হাদিস নং ৩৫৪০]
    .
    প্রত্যেক নতুন দ্বীনে ফেরা মুসলিম বান্দার অবস্থাই অনেকটা দৃশ্যপটের প্রশ্নকারীর অবস্থার মতো। সে নিজের পূর্বের করা পাপসমূহ নিয়ে খুবই চিন্তিত। তার মনে হয়, আল্লাহ হয়তো তাকে কোনোদিনও ক্ষমা করবেন না।
    .
    তো, আল্লাহর এইসব বিশ্বাসী বান্দাদের অন্তরে আশার আলো জাগাতে ইমাম ইবনু আবিদ দুনিয়া রাহিমাহুল্লাহ রচনা করেছেন ‘কিতাবুত তাওবাহ’ নামের পুস্তিকা। যেটাকে বাংলায় রুপ দিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবী বিভাগের ছাত্র এম.এ ইউসুফ আলী। সমর্পণ প্রকাশন অনূদিত পুস্তকটির নাম দিয়েছে– ‘দরজা এখনও খোলা’।

    • লেখক সম্পর্কে:

    ইমাম ইবনু আবিদ দুনিয়া। এই মহান ইমাম সম্পর্কে কিছু বলার যোগ্যতাই আমি রাখিনা। তাই, ইমাম ইবনু কাসীর রাহিমাহুল্লাহ এর বক্তব্যই নকল করছি। তিনি বলেন– “তিনি (ইবনু আবিদ দুনিয়া) ছিলেন অত্যন্ত ব্যক্তিত্বসম্পন্ন ও হাদীসশাস্ত্রের ইমাম। জ্ঞানের সব শাখায় তিনি গ্রন্থ রচনা করেছেন।”

    • বইয়ের বিষয়বস্তু:

    বইটিতে পয়েন্ট আকারে আলোচনা করেছেন মূল লেখক৷ ধাপে ধাপে আলোচনা এনেছেন গুনাহের স্বরুপ, গুনাহের ফলে অন্তর মরে যাওয়া, গুনাহ থেকে বাঁচার পদ্ধতি, শয়তানের ধোঁকায় পড়ে তাওবা না করা, তাওবার স্বরুপসহ আরো বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিক নিয়ে। বইটির পরতে পরতে পাঠকের উদ্দেশ্যে রয়েছে– নবীজি সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম, সাহাবাগণ এবং সালাফে সালেহীনের নসীহাহ’র সমাহার। যা পড়ে পাঠকের চিন্তার জট খুলবে। গুনাহ ছেড়ে তাওবার দিকে পা বাড়াতে উৎসুক হয়ে উঠবে পাঠক।

    • মন্তব্য:

    বইটির অনুবাদ ছিল বেশ ঝরঝরে ও সাবলীল। অনুবাদক সাহেব তার প্রথম অনুবাদ এত সুন্দর করেছেন যা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। আরেকটা জিনিস যা ভালো লেগেছে সেটা হলো, উল্লেখিত হাদীসগুলোর উৎসস্থল উল্লেখের পাশাপাশি হাদীসের মানও বলে দেয়া হয়েছে। যা সন্ধানী পাঠককে তৃপ্ত করবে ইনশাআল্লাহ।

    • বইটিতে থাকা প্রিয় একটি কথা:

    ⟨⟨পাপ কাজ অন্তরকে মেরে ফেলে
    এবং অবিরত পাপাচার লাঞ্ছনার কারণ হয়ে দাঁড়ায়। অন্তরের চালিকাশক্তি হলো পাপ
    কাজ পরিহার করা। প্রবৃত্তির বিরুদ্ধে চলাটাই তোমার আত্মার জন্য কল্যাণকর।⟩⟩

    • ইতিকথা:

    আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছি যারা হয়তো নিজেদের জীবনের বেশিরভাগ সময়টাই কাটিয়েছি আল্লাহর নাফরমানীতে। হয়তো সেই সময়টাতে এমন এমন কিছু নাফরমানী করেছি যেটা আসলেই ক্ষমার যোগ্য নয়। কিন্তু আমাদের রব তো আল-গফূর। আর-রহীম। বান্দা যতই গুনাহ করুক না কেনো, সে যদি সত্যিকার অর্থে অনুতপ্ত হয়ে আল্লাহর কাছে ফিরে আসে আল্লাহ অবশ্যই তাকে ক্ষমা করে দেন।
    .
    তাই, প্রত্যেক দ্বীনি ভাই ও বোনকে ছোট্ট এই বইটি পড়তে হাইলি রেকমেন্ড করছি। স্পেশালী, আমার মতো নতুন দ্বীনে ফেরা ভাই ও বোনদের। এই বইটা হবে আমাদের জন্য একটা রিমাইন্ডার। আমরা যখনই কোনো পাপে জড়িয়ে যাবো তখন এই বইটি আমাদের কানেকানে এসে বলে যাবে, হতাশ হয়ো না, তোমার মেহেরবান রবের দিকে ফিরে এসো, তোমার জন্য তোমার রবের দরজা এখনও খোলা…

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
  4. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    বই : দরজা এখনও খোলা
    লেখক : ইমাম ইবনু আবিদ দুনইয়া (রহিমাহুল্লাহ)
    অনুবাদক : মুহাম্মাদ ইউসুফ আলী
    প্রকাশনী : সমর্পণ প্রকাশন (Somorpon Prokashon)
    সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য : ১১০ টাকা
    মোট পৃষ্ঠা : ৭২

    বইটি কেন পড়বেন?
    ********************
    বুকের উপর হতাশার পাথর চেপে আছে? নিরাশার দোলাচলে দুলছে শান্তির, সুখের জীবনের তরি? মনে হচ্ছে হেরে গিয়েছেন?পাপ করে দূরে সরে গেছেন, আপনার ভুল আর শোধরাবার নয়? তাহলে এই বইটি আপনার জন্য। ঘন অন্ধকারের শেষে আলোর রেখা ফুটিয়ে নতুন দিনের সূর্যের অপেক্ষায় রাখবে এই বইয়ের প্রতিটি লাইন। ভুলের সাগরে হাবুডুবু খাওয়া অবস্থায় বার বার আশ্রয়ের সন্ধান দিবে ভেলার মত ভেসে থাকা তাওবা, অনুশোচনা, প্রাপ্তির কথাগুলো। আপনি ভাবছেন যে দরজা থেকে কোন কল্যান আসতে পারবে না, সে দরজা এখনো খোলা, আপনারই অপেক্ষায়।

    বই সম্পর্কেঃ
    *************
    গুনাহ, পাপ থেকে বেঁচে এসে তাওবা করে ফিরে আসার এক গাইডলাইন বুক বলা যেতে পারে বইটিকে। পাপ করার নানা কারন, শয়তানের প্ররোচনা, পাপ এর নানা প্রকারভেদ, পাপ থেকে দূরে থাকার কৌশল, ভুলের শাস্তি ইত্যাদি সম্পর্কে আলোকপাত করা হয়েছে বইতে। চেষ্টা করা হয়েছে যথাযম্ভব পাপ থেকে দূরে রাখার জন্য অনুপ্রেরণা দিতে। পরে একান্ত পাপ যদি হয়েই যায় তাহলে তাওবা করার পদ্ধতি, তাওবার মর্যাদা, তাওবাকারী মর্যাদা ইত্যাদি বর্ননা করে আশাবাদী করা হয়েছে পাঠককে।

    বই এর অনন্য দিকগুলোঃ
    **************************
    ছোট ছোট প্যারা করে লেখাগুলো বেশ সহজবোধ্য ও হৃদয়গ্রাহী হয়েছে যার ফলে মনে সহজেই দাগ কাটছে। রেফারেন্স সমৃদ্ধ বই হওয়ায় অথেনটিসিটির ব্যাপারে কোন চিন্তা নেই। পাপ থেকে দূরে থেকে তাওবা করার ক্ষেত্রে এই বইয়ের পাঠক অন্যদের থেকে এগিয়ে থাকবেন যোজন যোজন। বই পড়ে উপলব্ধির জায়গায় দাঁড়িয়ে আনমনেই দোয়া চলে আসবে, হাত উঠবে আল্লাহর দরবারে এর কথক, লেখক, প্রকাশক ও এই বইয়ের সাথে যারা জড়িত সকলের জন্য।

    বইয়ের উপযোগিতাঃ
    **********************
    সব ধরনের মানুষের জন্য বইটি উপকারী কারন পাপ ছাড়া আমরা কেউই নেই। বাড়িতে এমন একটি বই থাকলে তা আলোকিত করে তোলে পুরা পরিবার।। উপহার হিসাবেও দারুন হবে বইটি। যেকোন লাইব্রেরীতে আলো ছড়াবে উজ্জ্বলভাবে, পাপ দূরীকরণে আলোকবর্তিকার মত কাজ করবে। তো দেরি কেন? আজই পরিচয় হয়ে যাক বইটির সাথে? হাতে থাকুক আপনার, আপনার প্রিয়জনের।

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
  5. 4 out of 5
    Rated 4 out of 5

    :

    কখনো সাঁতার না জানা কেউ যদি গভীর সমুদ্রের পানিতে হাবুডুবু খেতে থাকে তখন যেমন তাকে বাঁচানোর জন্য প্রয়োজন একটি লাইফ-জ্যাকেটের, যা তাকে কোনো তীরে পৌঁছে দিবে। ঠিক তেমনি পাপের সমুদ্রে নিমজ্জিত থাকা আমাদের জন্য লাইফ-জ্যাকেটের কাজ করে তাওবা, যা আমাদের পাপের অতল গহ্বর থেকে বাঁচিয়ে আল্লাহর নিকটবর্তী করে দেয়।
    .
    আর তাওবা’র কার্যপ্রণালী বলে দিতে ‘ইমাম ইবনু আবিদ দুনইয়া রাহিমাহুল্লাহ’ রচনা করেছেন ‘কিতাবুত তাওবাহ’। যেটাকে বাংলায় অস্তিত্ব দিয়েছেন এম.এ ইউসুফ আলী ভাই। অনূদিত পুস্তিকাটির নাম “দরজা এখনও খোলা”।
    .
    ‖বিষয়বস্তু‖
    ‘ইমাম ইবনু আবিদ দুনইয়া’ তাঁর অন্য সকল বইয়ের মতো এই বইটিতেও তাওবা সম্পর্কিত বিষয়গুলোকে পয়েন্ট পয়েন্ট করে তুলে ধরেছেন। বইটিকে এক কথায় ‘গুনাহ ও তাওবা’র বিষয়ভিত্তিক কুরআনের আয়াত, হাদিস ও সালাফদের কথামালার সংকলন বলা যেতে পারে। আমরা কেন গুনাহ করি, শয়তানের প্ররোচনা, গুনাহ থেকে বাঁচার পদ্ধতি, তাওবা করার ফজিলত, তাওবাকারীর মর্যাদা, প্রতিনিয়ত গুনাহের ফলে কিভাবে অন্তরে মরিচা পড়ে যায়— এসকল বিষয় নিয়ে কুরআন, হাদিস এবং সালাফদের সুন্দর সুন্দর বাণীর উদ্বৃতি দিয়ে সাজানো হয়েছে বইটি। গুনাহ নিয়ে সালাফদের মনোভাব উল্লেখ করে লেখক নিপুণভাবে তাওবার গুরুত্ব ফুটিয়ে তুলেছেন। একজন গুনাহগার বান্দা কিভাবে তার অশ্রুসিক্ত, অনুতপ্ত মনকে আল্লাহর দিকে ধাবিত করতে পারে সেসকল উপায়ন্তর বলে দেওয়া হয়েছে।
    .
    ‖ভালোলাগা‖
    বইটির অনুবাদ সরল এবং সহজেই বোধগম্য। সংকলিত হাদীসের রেফারেন্স ও সেগুলোর মানও পাদটীকায় উল্লেখ করা হয়েছে। ছোট ছোট শিরোনাম দিয়ে সেই ক্যাটাগরির হাদীসগুলোকে একত্রে সংকলন করা হয়েছে, যেন লেখকের দৃশ্যপট বুঝতে পাঠকের অসুবিধে না হয়। তেমন কোনো ভুল পরিলক্ষিত হয়নি।
    .
    ‖পাঠ্যনুভূতি‖
    বইটির নামই মনের মধ্যে আশার আলো জ্বালিয়ে দেয়। প্রতিনিয়ত গুনাহে লিপ্ত হওয়া হচ্ছে আমাদের রোগ।আর এই রোগের একমাত্র ওষুধ হচ্ছে তাওবা। যতবার রোগাক্রান্ত হবো ততবারই এই ওষুধ সেবন করতে হবে। গুনাহ এবং তাওবা নিয়ে বিখ্যাত মনীষীদের চিন্তাধারা এমনভাবে তুলে ধরা হয়েছে যা আমাকে করেছে ভীত। আবার পরক্ষণেই আল্লাহর কাছে তাওবাকারীর মর্যাদা বর্ণনা করা হয়েছে দেখে হয়েছি অনুপ্রাণিত। গুনাহের সাগরে হাবুডুবু খাওয়া অবস্থায় জাহাজের মত আশ্রয়ের সন্ধান বাতলে দিবে বইটি। বারবার মনে করিয়ে দিবে তুমি যত বড় গুনাহগারই হও না কেন তোমার জন্য তোমার রবের “দরজা এখনও খোলা”।
    4 out of 5 people found this helpful. Was this review helpful to you?