মেন্যু
১০০০ টাকার পণ্য কিনলে সারা দেশে ডেলিভারি একদম ফ্রি।

ধূলিমলিন উপহার রামাদান

পরিমার্জন এবং ভাষা সম্পাদনা: সাজিদ ইসলাম
শর’ঈ সম্পাদনা: মুনীরুল ইসলাম ইবনু যাকির
পৃষ্ঠা সংখ্যা: ২২৪ পৃষ্ঠা

রামাদানের আগমনধ্বনি শুনলে একজন মুসলিমের মনে আবেগ আর খুশির জোয়ার বয়ে যাওয়ার কথা ছিলো। কথা ছিলো উৎসাহ আর প্রস্তুতি নিয়ে মুসলিমরা উন্মুখ হয়ে বসে থাকবে। রামাদান চলে যাবে, কিন্তু রামাদানের ঔজ্জ্বল্য আমাদের মাঝে ছাপ রেখে যাবে — তাক্বওয়া।
.
কথা থাকলেও আমরা কথা রাখিনি। যে মাসকে আল্লাহ সুবহানাহু ওয়া তা’আলা আর সবক’টা মাসের ওপর মর্যাদা দিয়েছিলেন, সেই মাসকে আমরা যথেষ্ট কদর করিনি। যদি কোনো মাসকে ‘বরণ’ করে নেওয়ার থাকে তবে সেটা রামাদান, বৈশাখ নয়। অর্থহীন নাটুকেপনা আর মেকি বাঙ্গালিত্বের দিনভিত্তিক উদযাপনে মুসলিমরা বিশ্বাস করে না। মুসলিমরা বিশ্বাস করে পবিত্র মাসে, যে মাস তাদেরকে আল্লাহ তাআলার কাছাকাছি আসবার সুযোগ করে দেয়।
.
রামাদান আজ আমাদের কাছে ‘সাওম’ নয়, রামাদান আজ আমাদের কাছে উপবাস — সারাটি দিন না-খেয়ে-কাটিয়ে দেওয়া, আর সন্ধ্যাবেলা পেটপুরে খেয়ে সেটা পুষিয়ে নেওয়া। আমাদের রামাদানে তাই না-খেয়ে-থাকা আছে, ইফতার পার্টি আছে, তারাবীহ আছে, শপিং আছে — কিন্তু যেটা থাকা সবচাইতে জরুরি ছিলো, সেই তাক্বওয়া নেই। রামাদান আমাদের বদলাতে পারেনি, আমরাই রামাদানকে বদলে ফেলেছি। এমন তো কথা ছিলো না।
.
তবে কেমন কথা ছিল? কেমন হতে পারতো রামাদান? কেমন করে আমরা তাক্বওয়া অর্জন করতে পারতাম? কেমন করে রামাদান আমাদের বদলে দিতে পারতো? কেমন করে আনুষ্ঠানিকতার বেড়াজাল ভেঙ্গে রামাদান আমাদের অন্তরে দাগ কাটতে পারতো? আমাদের চরিত্রে প্রভাব রাখতে পারতো? কেমন করে রামাদান হতে পারতো আমাদের বদলে যাবার মাস?
.
এসব নিয়েই শাইখ আহমাদ মুসা জিবরীলের বিখ্যাত লেকচার সিরিজ ‘Gems Of Ramadan’ অবলম্বনে ‘ধূলিমলিন উপহারঃ রামাদান’

পরিমাণ

225.00  300.00 (25% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

6 রিভিউ এবং রেটিং - ধূলিমলিন উপহার রামাদান

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    রমজান মাস বান্দার প্রতি আল্লাহর অশেষ অনুগ্রহ। এই মাসে প্রবিত্র কুরআন মাজিদ নাযিল হয়েছে।। বান্দার নাযাতের মাস, পরিশুদ্ধতার মাস।এই মাসের আমল অন্যান্য মাসের আমলের চেয়ে হাজার গুণ উত্তম।
    এই ব‌ইটা রমজান মাসের ফজিলত, সিয়াম পালন,আমল সম্পর্কে বিস্তারিত এবং সোহী হাদীস দ্বারা প্রমাণিত ইবাদত গুলো খুব সতর্কতার সাথে যুক্ত করেছে।
    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
  2. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    বইটির বিষয়বস্তুঃ
    বইটি মূলত শাইখ আহমাদ মূসা জিবরীলের একটি বিখ্যাত লেকচার সিরিজ “Gems of Ramadan” এর বাংলা অনুবাদ, যা এক রমাদানব্যাপী তিনি আলোচনা করেছেন। প্রতিটি লেকচারে রমাদানের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তিনি আলোচনা করতেন। বিষয়ভিত্তিক আলোচনাগুলো এত সুন্দর, যে পুরো রমাদান মাসের জন্য একটা চমৎকার গাইডলাইন।

    বইটি পড়লে আপনি ভালভাবে আমলের প্রস্তুতি নিয়ে রমাদান শুরু করতে পারবেন। চাইবেন না রমাদানের একটি মুহূর্ত ও অপচয় হোক। রমাদানের সাওমের মধ্য দিয়ে আল্লাহর সাথে ভালবাসার গভীরতা, কুরবানী, সাওমের সময় দু’আর গুরুত্ব, দু’আ কবুলের সময়গুলো, রমাদানে কুরআনের সাথে সম্পর্ক তৈরী করা, রমাদানের রাতে কিয়ামুল লাইল আদায় করা- এসব কিছু খুব সুন্দরভাবে উঠে এসেছে বইটিতে। রমাদানের শেষ দশ দিনকে আল্লাহ আমাদের জন্য সবচেয়ে উত্তম দিন বানিয়েছেন।
    এই দশদিনের মধ্য আছে এমন একটি আকাঙ্খিত রাত, যা হাজার রাত অপেক্ষা উত্তম।

    “আল্লাহর পথে যাত্রা”, “শুধু আমার রব জানেন”, “শুরু হোক প্রতিযোগিতা”, “সাওমের মিষ্টতা”, “ই’তিকাফ”, “জিহ্বার সংযম” – এমন আরও অনেক লেখা আছে যা রমাদানে আল্লাহর সাথে সম্পর্ক তৈরী করতে সাহায্য করে।

    পাঠ প্রতিক্রিয়াঃ
    আমাদের প্রিয় নবীজি (সঃ) রমাদানকে মৃদু শীতল বাতাসের সাথে তুলনা করেছেন। যে বাতাস নিমিষেই আমাদের মন ভালো করে দেয়, যে একবার এই বাতাস গায়ে মাখে সে আর কখনো দুঃখী হবে না। রমাদান আসে আমাদের জন্য রহমত, মাগফিরাত এবং নাযাত নিয়ে, যাওয়ার সময় এমনভাবে যায় যে- আমাদের গুনাহগুলো সব মাফ করিয়ে নিয়ে যায়।

    প্রতিবছর রমাদান আসে, আবার চোখের পলকে চলেও যায়। পুরো রমাদানজুড়ে একটা উৎসব উৎসব ভাব থাকে আমাদের মধ্যে। সাহরি, ইফতার, ঈদের শপিং – এসব নিয়েই ব্যাস্ত সবাই।এর মধ্য কয়জন মানুষ আছে যারা রমাদানের মধ্যেই নিজেদের গুনাহগুলোকে মাফ করিয়ে নিতে পারে?

    এই বইটি সেই সৌভাগ্যবানদের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হওয়ার এক অসাধারন ম্যানুয়াল। শাইখ আহমাদ মুসা জিবরীলকে তুলনা করা যায় ইলমের এক জাহাজের সাথে। রমাদানের মত বরকতপূর্ন সফরে যদি এমন এক জাহাজে ভ্রমনের সুযোগ হয়, তবে সেটা মনে রাখার মত উপভোগ্য এক সফরে রূপ নিবে নিঃসন্দেহে।

    বইটি কাদের জন্য?
    বইটি সব মুসলিমের পড়া উচিত বলে আমার মনে হয়।

    বইটির যে বিষয় ভালো লেগেছেঃ
    ১. বইটির অনুবাদের ভাষা যথেষ্ট প্রাঞ্জল।
    ২. বইটির প্রায় প্রত্যেকটি লেখায় বিষয়ের সাথে সম্পর্কিত কুরআনের আয়াত জুড়ে দেয়া হয়েছে।

    বইটির প্রচ্ছদ, বাইন্ডিং, পেজ মেকাপ খুবই উন্নতমানের।

    বই থেকে কয়েক লাইনঃ
    “এই রমাদানে আপনার লক্ষ্য হবে আল্লাহর আরশ যেন জান্নাতে আপনার ছাদ হয়, আপনার ছাদের উপর যেন আল্লাহর সিংহাসন থাকে। আল্লাহ যেন আপনাকে ওয়াসিলার সবচেয়ে নিকটবর্তী করে নেন। প্রিয় নবীজির সাথে, সাহাবীদের সাথে, রাহমানের বান্দাদের সাথে আল্লাহ যেন আপনাকেও জান্নাতুল ফিরদাউসের অধিবাসী করে নেন।”

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
  3. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    Alhamdulillah…One of my favourite books I have ever read. I will recommend it to everyone. It has topic on ramadan,,but it will cheer up you total year. May Allah except everyone related to this books. Jazakumullahu khairun.
    Was this review helpful to you?
  4. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    Alhamdulillah…One of my favourite books I have ever read. I will recommend it to everyone. It has topic on ramadan,,but it will cheer up you total year. May Allah except everyone related to this books. Jazakumullahu khairun.
    Was this review helpful to you?
  5. 5 out of 5
    Rated 5 out of 5

    :

    Alhamdulillah..awsome book…when u feel like u r loosing your track, read this book…it will get u back to the straight path to your Lord..it is just like a medicine for the soul when it tends to get disease..a tonic when it needs inspiration..May Allah accept the effort of the author,publisher and all those who are behind this and reward them with the highest rank in jannah..ameen.

    (please try to publish it im english as well..)

    Was this review helpful to you?
  6. 4 out of 5
    Rated 4 out of 5

    :

    It’s Nice
    Was this review helpful to you?