মেন্যু
chintaporadh

চিন্তাপরাধ

পৃষ্ঠা - ১৯২ 'যতক্ষণ সাম্রাজ্যের সার্বভৌমত্ব স্বীকার করে নিচ্ছ, ইচ্ছায় কিংবা অনিচ্ছায় ততক্ষণ তোমাকে সহ্য করা হবে। যা করার সিস্টেমের ভেতরে ঢুকে করো, কিন্তু কোনোভাবেই সিস্টেমের বিরোধিতা করা যাবে না। প্রশ্ন... আরো পড়ুন
পরিমাণ

190 

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

34 রিভিউ এবং রেটিং - চিন্তাপরাধ

4.9
Based on 34 reviews
Showing 32 of 34 reviews (5 star). See all 34 reviews
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    ইকবাল আহমেদ:

    মাশাআল্লাহ। বর্তমান সময়ে মুসলিম দের দুরবসথা থেকে উত্তরণের জন্য এই বই টি সবার পড়া দরকার। আল্লাহ আমাদের সকলকে উম্মার ঐক্য ও শান্তির জন্যে কাজ করার সুযোগ দান করুন আমীন।
    8 out of 8 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    Montasir Mamun:

    বইঃ চিন্তাপরাধ
    লেখকঃ আসিফ আদনান (Asif Adnan)
    প্রকাশকঃ Ilmhouse Publication
    পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ ১৯১
    নির্ধারিত মূল্যঃ ১৯০ টাকা
    বাইন্ডিংঃ পেপারব্যাক

    শুরুতেই চমক! উৎসর্গ তে লেখা ৩৩:২৩ । পড়ে আসুন আল কুরআনের ৩৩ তম সূরা আল আহযাবের ২৩ নং আয়াত

    পূর্বকথা হলো লেখকের কথা। এখানে বইয়ের শুরুতে তিনি এই বইয়ের মূল কথা বলেছেন। এটি মুসলিমদের জন্য লেখা বই। তাদের চিন্তার জট খুলতে ও চিন্তার জগতকে নাড়া দিতে চেষ্টা করেছেন তিনি। অবশ্যই সফলও হয়েছেন।

    মোট ১৬ টি টপিকে মিডিয়ার প্রোপাগান্ডা, পশ্চিমা আগ্রাসন, ষড়যন্ত্র, তাদের অসারতা ইত্যাদি প্রকাশ করে দিয়েছেন অত্যন্ত সাবলীলভাবে অলংকারিক ভাষার মাধ্যমে, গবেষণার ফলাফল হিসাবে।

    প্রথম টপিক ‘সহস্র সূর্যের চেয়ে উজ্জ্বল’ এ মূলত আমেরিকান সম্রাজ্যবাদ, আধিপত্যবাদ ও আগ্রাসন এর কথা উঠে এসেছে। ইউরোপের কিছু আগ্রাসী মনোভাব তুলে ধরা হয়েছে ফিরিঙ্গিসেন্ট্রিক অধ্যায়ে। চিন্তার জট প্রবন্ধে লেখক পশ্চিমা ধ্যান ধারনা ও আমাদের চিন্তার মূলে গিয়ে চিন্তা করার জন্য উদ্বুদ্ধ করেছেন। আমাদের চিন্তার দাসত্বের বিষয়টি তুলে এনেছেন নিপূন দক্ষতায়।

    ‘পূজারি ও পূজিত’, ‘গোঁড়ায় গলদ’ দুটিতে সেকুলার দর্শনের অসারতা প্রমান করে তাদের দৈন্যতাকে হাতে কলমে ধরিয়ে বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে। ‘শুভঙ্করের ফাঁকি’ চ্যাপ্টারে নারীবাদ ও ফেমিনিজম সম্পর্কে তীব্র যুক্তি প্রমান ও খন্ডন করা হয়েছে। বক্তব্যের পিছনের লুকায়িত রহস্য বের করতে লেখকের পারদর্শিতার প্রশংসা করতেই হয়।
    স্থিতিস্থাপকতা অধ্যায়ে ড্রাগ এর ভয়াবহতা ও এর পিছনে বিরাট শক্তির ইন্ধন চোখে আঙ্গুল দিয়ে ধরিয়ে দেয়া হয়েছে। ভুল মাপকাঠিতে আমাদের চিন্তার দৈণ্যতার কথাটা বার বার মনে হয়েছে। ‘সমকামী এজেন্ডাঃ ব্লু-প্রিন্ট এ সমকামীতার ভয়াবহতা এসেছে ভয়াল রূপে। ‘মরীচিকা’য় আবার পাশ্চাত্য সভ্যতার পিছনে ছুটে চলার কাহিনী শেষ হতেই ‘বালির বাধ’ অধ্যায়ে সমকামিতা, ট্রান্সজেন্ডার ইস্যু।

    মানসিক দাসত্ব টপিক আপনাকে ভাবাবে, চিন্তা করতে শেখাবে। প্রশ্ন করতে উৎসাহী করবে। ‘হাউস নিগার’ এ মুসলিমদের বুদ্ধিবৃত্তিক দাসত্ব নিয়ে আলোচনা হয়েছে বিস্তর। সম্রাজ্যের সমাপ্তি অধ্যায়টা বেশ ভাল লেগেছে। একটি সম্রাজ্যের উত্থান, পতনের চিত্র, পরিনতি ও ভবিষ্যতবানী বেশ আকর্ষনীয় লেগেছে। অবক্ষয়কাল অধ্যায়টি সভ্যতার সাথে যৌনতার সম্পর্কে বিশ্লেষন করা হয়েছে বেশ যুক্তি ও রেফারেন্সসহ।

    শেষ অধ্যায় শ্বেত সন্ত্রাসে সাদা চামড়ার মানুষদের সন্ত্রাসের আদ্যোপান্ত বিশ্নেষনের প্রয়াস পেয়েছেন লেখক। তাদের মূলনীতি, কারন, এর ফলাফল ইত্যাদি অনেক গভীরভাবে বিশ্লেষন করা হয়েছে এখানে।

    বেশিরভাগ অধ্যায়েই লেখক পশ্চিমা সভ্যতার অসারতা প্রমান করেছেন, আগ্রাসান সম্পর্কে বলেছেন কিন্তু এ থেকে বাঁচার উপায় আমাদের করনীয় সম্পর্কে খুব বেশি বলেন নি। হয়তো তিনি আমাদের চিন্তার সুযোগ দিয়েছেন। শেষে এসে ইসলামের মূলে ফিরে যেতে তিনি আহবান জানিয়েছেন। পশ্চিমা লাইনে চিন্তা করে ইসলামকে তাঁর আদলে না সাজিয়ে ইসলামের মূল স্পিরিট অনুযায়ী তাকে মানার ও প্রতিষ্ঠার চেষ্টা করার দিকে গুরুত্ব দিয়েছেন।

    মূল কথা হলো এই বইটি চিন্তার খোরাক হিসাবে অনন্য। যারা একটু গভীর ও দার্শনিক চিন্তার মাল মশলা সমৃদ্ধ বই চান তাদের জন্য অবশ্যপাঠ্য একটি বই।

    রেটিং ৯/১০।

    12 out of 12 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    মোহাম্মদ ওমর:

    “বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম”

    বইয়ের নাম:চিন্তাপরাধ
    লেখক:আসিফ আদনান
    প্রকাশক:ইলমহাউস পাবলিকেশন
    প‍রিবেশক:দারূন-নাহদা
    মূল‍্য:১৯০ টাকা (নির্ধারিত)
    পৃষ্ঠা সংখ‍্যা:১৯২
    প্রকাশকাল:মে,২০১৯

    “মুমিনদের মধ্যে কতক আল্লাহর সাথে কৃত ওয়াদা পূর্ণ করেছে। তাদের কেউ কেউ মৃত্যুবরণ করেছে এবং কেউ কেউ প্রতীক্ষা করছে। তারা তাদের সংকল্প মোটেই পরিবর্তন করেনি।”
    [ সুরা আল-আহযাব ৩৩, আয়াত ২৩ ]

    বই প‍রিচিতি:
    পঞ্চদশ শতাব্দীর শুরুর ভাগ থেকে একবিংশ শতাব্দীর পূর্ব পর্যন্ত প্রায় পুরো পৃথিবী ছিল পশ্চিমাদের ঔপনিবেশিকতার অন্ধকারে নিমজ্জিত।কথিত সভ‍্য জাতি ইউরোপীয়রা সভ‍্যতা শিখানোর অযুহাতে পুরো পৃথিবীতে চালায় তাদের হত‍্যা,লুণ্ঠন,জুলুমের রাজত্ব।সভ‍্যবেশি এসব শেতাঙ্গ জালিমদের বিরুদ্ধে একসময় উপনিবেশগুলো গর্জে ওঠে এবং স্বাধীনতা লাভ করে।
    কিন্তু স্থানীক ঔপনিবেশিকতা থেকে স্বাধীনতা অর্জন করলেও পশ্চিমাদের আদর্শিক এবং সাংস্কৃতিক উপনিবেশ এখনো রয়েই গেছে।এমনকি মুসলিমরাও পশ্চিমাদের আদর্শিক ঔপনিবেশিকতা মেনে নিয়েছে!একসময় সুদৃঢ় ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আবদ্ধ থাকা এক জাতি মুসলিমরা আজ নানান দেশের পরিচয়ে খন্ড বিখন্ড।কেউ বলছে আমি আরবি,কেউ বলছে আমি তুর্কি,কেউ বলছে আমি পাকিস্তানি আবার কেউ বলছে আমি বাংলাদেশি ইত্যাদি।
    সর্বত্র মিডিয়ার প্রপাগন্ডা,প্রথাগত প্রথাবিরুদ্ধতা,সাংস্কৃতিক আগ্রাসন এবং আদর্শিক ঔপনিবেশিকতার এই কালে মুসলমানদের চিন্তার জট খুলতে,সত্যকে উপলব্ধি করতেই লেখক শ্রদ্ধেয় আসিফ আদনান ভাই রচনা করেছেন চিন্তাপরাধ বইটি।
    বইটিতে লেখক অন্য কয়েকজন লেখকের লেখার অনুবাদ যেমন এনেছেন,তেমনি কিছু অনুবাদের সাথে নিজের চিন্তাও যোগ করেছেন।পাশাপাশি নিজের কিছু লেখাও তুলে ধরেছেন।

    লেখক ষোলটি অনুচ্ছেদে ভাগ অতীত এবং বর্তমানের প্রেক্ষাপটে বইটি রচনা করেছেন।নিচে পাঠকদের সুবিধার্থে অনুচ্ছেদগুলির নাম তুলে ধরা হলো:
    ১.সহস্র সূর্যের চেয়ে উজ্জ্বল
    ২.ফিরিঙ্গিসেন্ট্রিক
    ৩.চিন্তার জট
    ৪.পূজারি ও পূজিত
    ৫.গোড়ায় গলদ
    ৬.শুভঙ্করের ফাঁকি
    ৭.স্থিতিস্থাপকতা,না-মানুষ ও অন‍্যান‍্য
    ৮.ভুল মাপকাঠি
    ৯.সমকামী এজেন্ডা:ব্লু-প্রিন্ট
    ১০.মরীচিকা
    ১১.বালির বাঁধ
    ১২.মানসিক দাসত্ব
    ১৩.হাউস নিগার
    ১৪.সাম্রাজ্যের সমাপ্তি
    ১৫.অবক্ষয়কাল
    ১৬.শ্বেত সন্ত্রাস

    পাঠ প্রতিক্রিয়া:
    পৃথিবীর দিকে দিকে চলছে আজ মানবতা ধ্বংসের অপ-মহড়া।আর এই অপ-মহড়া চালাচ্ছে সভ‍্য নামধারী,ভুয়া শান্তিবাদের পতাকাধারী সেক‍্যুলারিজম নামক ধর্মহীনতায় আক্রান্ত পশ্চিমা বিশ্ব।অথচ তারাই নিজেদের মানবতার ধ্বজাধারী বলে চেচাচ্ছে।নিজেদের মিডিয়া শক্তি আর পেশি শক্তির দ্বারা তারা মানুষকে এই মিথ‍্যা বুঝাতেও সক্ষম হচ্ছে।অথচ সাধারণ মানুষ তাদের এই অপপ্রচার ধরতে না পেরে অন্ধের মতো বিশ্বাস করছে।
    এমনকি মুসলমানরাও এই রোগে আক্রান্ত।উপরন্তু মুসলিম সমাজে এমন অনেক ব‍্যক্তিরও আবির্ভাব হয়ে গেছে যারা পশ্চিমা সভ‍্যতাকে মাপকাঠি মেনে শাশ্বত বিধান ইসলামে পরিবর্তন ঘটানোর চেষ্টা করছে।মুসলিমদের এই অধঃপতনের সময়ে উম্মাহর জন‍্য দরদী কিছু ব‍্যক্তি উম্মাহকে সঠিক ইসলাম বুঝানোর,তা মেনে চলার এবং সেক‍্যুলার পশ্চিমাদের ভ্রান্ত প্রচার-প্রচারণা পরিহার করার জন‍্য কাজ করছেন।এমনই একজন ব‍্যক্তি শ্রদ্ধেয় আসিফ আদনান ভাই তার দাওয়াহর অংশস্বরুপ রচনা করেছেন “চিন্তাপরাধ”‌।

    বইটি পাঠ করছি আর অভিভূত হচ্ছি।মনে হচ্ছে একটা টপিক বার বার পড়ি।বইটির পাঠ যেমন আমাকে পশ্চিমাদের বিভ্রান্তি আর ভ্রান্ত প্রচারণা সম্পর্কে জানাচ্ছে তেমনি মুসলমানদের অধঃপতন আর তা থেকে উত্তরণের পথ সম্পর্কেও অবহিত করছে।

    বইটির প্রচ্ছদ,পৃষ্ঠার মান,বানান মাশাআল্লাহ সবকিছুই চিত্তাকর্ষক।আর ভিতরে যা আছে তা সম্পর্কে মতো ভাষা আমার জানা নেই।আশা করি মুসলিমদের চিন্তার জট খুলতে বইটি দারুনভাবে সাহায‍্য করবে ইনশাআল্লাহ।

    বইটি কাদের পড়া উচিত এবং কেন পড়া উচিত:
    “চিন্তাপরাধ” বইটি ধনী-দরিদ্র,শিক্ষক-ছাত্র,মুসলিম-সেক‍্যুলার,সাদা-কালো,উচ্চ শিক্ষিত-স্বল্প শিক্ষিত সকলের জন‍্যই পড়া উচিত।
    কারণ,বইটি সকলের জন‍্যই লেখা এবং সকলের জন‍্যই সমান গুরুত্বপূর্ণ।

    বইটি মুসলমানদের চিন্তার জট খুলে দিয়ে,সঠিকভাবে চিন্তা করতে উৎসাহিত করবে।পশ্চিমকে মাপকাঠি না মেনে ইসলামকে মাপকাঠি মেনে ভাবতে সাহায্য করবে এই বইটি।বইটি আমাদের চিন্তার দুয়ার খুলে দিবে এবং ভ্রান্তদের ভ্রান্তি সম্পর্কে অবহিত করবে।

    পশ্চিমাদের অপপ্রচারের এই সময়ে “চিন্তাপরাধ”-এর মতো একটা বই খুবই প্রয়োজন ছিল।আলহামদুলিল্লাহ আল্লাহ তাআলা তা আমাদের দিয়েছেন।
    তাই আর দেরি না করে আমাদের সকলেরই উচিত বইটি অধ‍্যয়ন করা আর তা নিয়ে ভাবনা-চিন্তা করা।

    আল্লাহ তাআলা আমাদের সকলকে দ্বীনের জন‍্য কবুল করুন।আমিন।

    লেখকের সংক্ষিপ্ত পরিচিতি:
    শ্রদ্ধেয় আসিফ আদনান ভাই ১৯৮৮ সালে চট্টগ্রামে জন্মগ্রহণ করেন।ঢাকায় বেড়ে ওঠেন এবং পড়াশোনাও এখানেই সম্পন্ন করেন।ঢাকা বিশ্ববিদ্যাল থেকে অর্থনীতিতে অনার্স-মাস্টার্স করেন ।

    তিনি এখন লেখালেখির সাথে যুক্ত আছেন।
    “চিন্তাপরাধ” উনার প্রথম রচনা।এছাড়াও সম্পাদনা করেছেন পাঠক নন্দিত সত‍্যকথন,মুক্ত বাতাসের খোঁজে,ইসলামি ব‍্যাংক:ভুল প্রশ্নের ভুল উত্তর বইতিনটি।

    আল্লাহ উনাকে দ্বীনের পথে অটল রাখুন এবং হায়াতে বারাকাহ দান করুন‌‌।আমিন।

    8 out of 8 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  4. 5 out of 5

    ফাহমিদা সুলতানা:

    অসাধারণ একটি বই। মা শা আল্লাহ, বারাক’আল্লাহ। আল্লাহ রাব্বাল আলামীন লেখকের ইলমে এবং কলমে বারাকাহ দান করুন, আমীন।
    8 out of 8 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  5. 5 out of 5

    siafulszx:

    বইটা আমাদের মতো ভোগবাদী মুসলিমদের জন্য খুবই প্রয়োজনীয় বলে আমি মনে করি।
    13 out of 13 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top