মেন্যু
bandar dake Allahor shara

বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া

অনুবাদক : শায়খ জিয়াউর রহমান মুন্সী
পৃষ্ঠা : 360, কভার : হার্ড কভার
 দুআ, যিকর ও রুকইয়ার উপরে বিশ্বে সর্বাধিক পঠিত 'আয যিক্‌র ওয়াদ দুআ, ওয়াল ইলাজ বির রুকা মিনাল কিতাবি ওয়াস সুন্নাহ' বইটির পূর্ণাঙ্গ বাংলা অনুবাদ 'বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া'। বইটির বৈশিষ্ট্য : •... আরো পড়ুন
পরিমাণ

370  500 (26% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

10 রিভিউ এবং রেটিং - বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া

5.0
Based on 10 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published.

  1. 5 out of 5

    মো জসিম উদ্দীন:

    বই পর্যালোচনাঃ
    “হিসনুল মুসলিম” ব‌ইটির নাম শুনেছেন? নিশ্চয়ই শুনে থাকবেন! দোয়ার ব‌ইয়ের মধ্যে শ্রেষ্ঠ ব‌ই আর এটা সম্পর্কে জানে না এমন মানুষ কম‌ই আছেন!

    হিসনুল মুসলিম ছিল, দোয়ার ব‌ই একটা অনন্যা ব‌ই!যার কোন তুলনা চলে না।এই ব‌ইতে সকল প্রকার দোয়া আছে একসাথে!প্রত্যেকের কাছে ই এমন একটা ব‌ই থাকা উচিত,যেটাই সকল দোয়া একসাথে থাকে।
    কিন্তু,এই দোয়াগুলোর বিস্তারিত আলোচনা না জানলে,ফযিলত না জানলে কেমন জানি আমলের প্রতি আগ্রহ আসে না!হয়তো আসলেও তেমন আসে না যেমন আগ্রহ আসে ফযিলত জানার পর। রাসূল সাঃ কখন কিজন্য কি উদ্দেশ্যে কোন দোয়াটি পড়েছেন, এগুলো জানা আমাদের সবার ই দরকার! আছে কি এমন কোন ব‌ই!যেটায় দোয়ার সাথে সাথে আছে সেসকল দোয়ার ফযিলত,হাদিস অনুযায়ী দলিল?

    •হ্যা আছে!!সেই ব‌ইটার নাম- ” বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া”
    ব‌ইটির লেখক”হিসনুল মুসলিম” ব‌ইয়ের ই লেখক! লেখক,হিসনুল মুসলিম ব‌ইটি লেখার পর,দোয়াগুলোর ফযিলত সহ, কোথায় কিভাবে দোয়া করতেন রাসূল সাঃ,সেইসব একসাথে দেওয়ার প্রয়োজন বোধ করলেন। অতঃপর নিয়ত অনুযায়ী কাজ!!,
    সকল দোয়া একসাথে দিয়ে সেগুলো কখন কিভাবে কোন জায়গায় পড়তে হবে, রাসূল (সা:) কিভাবে পড়েছেন, সবকিছু একসাথে এই ব‌ইয়ে লিখেছেন!
    “বান্দার বাঁকে আল্লাহর সাড়া” ব‌ইটি,বিশ্বে অনেক শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছে দোয়ার ব‌ই হিসেবে!এটি একটি পূর্ণাঙ্গ দোয়ার ব‌ই!

    ব‌ই সম্পর্কে আমার ধারণা:

    “বান্দার বাঁকে আল্লাহর সাড়া” ব‌ইটি প্রতিটি মুসলিম পরিবারে ই থাকা উচিত। একসাথে সকল দোয়া সংরক্ষণ করতে এই ব‌ইটি ই সংরক্ষণ করা উচিত। এই ব‌ইটির প্রতিটা অংশ খুব সাবলীল ভাবে লেখা ও সাজানো হয়েছে।তাতে সহজেই সবাই পড়তে পারবে।প্রতিটি দোয়ার অর্থসহ দেওয়া হয়েছে,ফযিলত ও ।এতে করে সবাই গুরুত্ব ও অনুধাবন করতে সক্ষম হবে।এতে করে আমল করা অনেক সহজ হবে।

    ব‌ইয়ের গুণমান:

    •কিতাবটির একটি বিশেষ দিক হলো, এখানে প্রতিটি দুআ ও যিকির প্রেক্ষাপট-সহকারে অনুবাদ করা হয়েছে।প্রিয় নবী (সা:) কখন,কেন ও কোন বিষয়কে সামনে রেখে সাহাবায়ে কেরামদের দুআটি বলার নির্দেশ দিয়েছিলেন,সেই সোনালী মুহূর্তগুলোর এক বাস্তব চিত্র আমাদের সামনে ফুটে উঠবে।যার ফলে
    দুআগুলো বলার সময় আমরা অন্যরকম এক শক্তি অনুভব করব ইনশাআল্লাহ।

    • দুআ কবুলের সময়,শর্ত ও দুআ কবুল না হওয়ার কারণ এবং যিকির,ওযীফা,রুক‌ইয়া ইত্যাদি বিষয়ের বিশদ বর্ণনা উল্লেখ করা হয়েছে; যার কারণে ব‌ইটি পুরো বিশ্বে একটি পূর্ণাঙ্গ দুআর ব‌ই হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে।

    • ব‌ইটি মুসলিম উম্মাহর কাছে এতটাই সমাদৃত হয়েছে যে,এ যাবৎ বিশ্বের প্রায় ৪০টি ভাষায় অনুবাদ করা হয়েছে।

    Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    জাবির:

    অসাধারণ একটি বই!!
    3 out of 3 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    SUMMA JAHAN:

    #ওয়াফিলাইফ_পাঠকের_ভাল_লাগা_জুন_২০২০

    **ব‌ই পরিচিতি**
    ––––––––––
    ব‌ই:বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া
    লেখক : সাঈদ ইবনে আলী আল কাহতানী
    প্রকাশনী : মাকতাবাতুল বায়ান
    বিষয় : নামায ও দোয়া-দরুদ, ইসলামী চিকিৎসা
    অনুবাদক : শাইখ জিয়াউর রহমান মুন্সী
    পৃষ্ঠা : ৩৬০
    মূল্য:৫০০টাকা-৩০% ছাড়=৩৫০ টাকা

    **লেখক পরিচিতি**
    ––––––––––––
    সাঈদ ইবনু আলি কাহ্‌তানি রহ.-একজন প্রসিদ্ধ লেখক ছিলেন। তিনি শতাধিক ব‌ই রচনা করেছেন। লেখকের ‘আয-যিকর ওয়াদ দুআ ওয়াল ইলাজ বির রুকা মিনাল কিতাবি ওয়াস সুন্নাহ’ গ্রন্থের নির্বাচিত কিছু হাদীস নিয়ে ‘হিসনুল মুসলিম’ বইটি সংকলন করেছেন। যেখানে দুআ কবুলের শর্ত, নিয়মকানুন, স্থান, দুআ কবুল না হওয়ার কারণ এবং কুরআনি-চিকিৎসা নিয়ে লেখা বিস্তর অধ্যায়-সহ অনেক কিছুই বাদ পড়েছে।আলহামদুলিল্লাহ, সে দিকটা বিবেচনায় রেখে ড. কাহতানি’র ‘আয-যিকর ওয়াদ দুআ ওয়াল ইলাজ বির রুকা মিনাল কিতাবি ওয়াস সুন্নাহ’ গ্রন্থটির পূর্ণাঙ্গ অনুবাদ ‘বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া’।

    **ব‌ই সম্পর্কিত কিছু কথা**
    _________________________
    কোরআন সুন্নাতে বর্ণিত যিকর ও এর মহত্ত্ব এবং ইসলামের অত্যাবশ্যক ফরজ ওয়াজিব বাদে,একজন মুসলিমের জীবনে ঘুম থেকে উঠে পরবর্তী রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগ পর্যন্ত যেসব দুআ পাঠ করা জরুরী, এর মধ্যে রয়েছে সকাল সন্ধ্যার জিকির,ঘুম থেকে জেগে ওঠা, ঘরে ঢোকা, সেখান থেকে বের হওয়া ও অন্যান্য সময়ের দুআ এরপর উল্লেখ করা হয়েছে দুআ কবুলের শর্ত, যে সকল কারণে দু’আ কবুল হয়না, দুআর শিষ্টাচার দুআ কবুলের সময়,অবস্থা ও জায়গা এবং দুয়া কবুলের কারণসমূহ।নবী-রাসূলগণের দুআ,এরপর তুলে ধরা হয়েছে রুকাইয়া ভিত্তিক চিকিৎসার গুরুত্ব সম্পর্কে আলোচনা, যেগুলো আল্লাহর কিতাব ও রাসূল সাঃ এর থেকে প্রমাণিত।
    আবু মুসা আশআরী থেকে বর্ণিত নবী (স:)বলেন “যে ব্যক্তি তার রবকে স্মরণে রাখে আর যে ব্যক্তি তার রবকে স্মরণে রাখেনা তাদের উদাহরণ হলো জীবিত ও মৃত মানুষের মত”।নবী (সাঃ) আরও বলেন “তোমার জিব্বা যেন আল্লাহর যিকর ও সরণে সর্বদা ভেজা থাকে”।

    **ব‌ইটির বৈশিষ্ট্য**
    __________________
    এই বইটির বিশেষ দিক হল বইটিতে প্রতিটি দোয়া ও জিকির এর প্রেক্ষাপট সহকারে অনুবাদ করা হয়েছে। প্রিয় নবী কখন,কেন, কোন বিষয়কে সামনে রেখে সাহাবায়ে কেরামদের দোয়াটি বলার নির্দেশ দিয়েছিলেন সেই সোনালী মুহূর্তগুলোর এক বাস্তব চিত্র আমাদের সামনে ফুটে উঠবে। যার ফলে দোয়াগুলো বলার সময় আরো অন্য রকম এক শক্তি অনুভব করব ইনশাল্লাহ।দোয়া কবুলের শর্ত ও দোয়া কবুল না হওয়ার কারন এবং ইত্যাদি বিষয়ে বিশদ বর্ণনা উল্লেখ করা হয়েছে। যার কারণে ব‌ইটি পূর্ণাঙ্গ হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। মুসলিম উম্মাহর কাছে এতটাই সমাদৃত হয়েছে যে এ যাবৎ বিশ্বের প্রায় চল্লিশটি ভাষায় অনুবাদ করা হয়েছে।
    ঈমানদার বান্দার পরিচয় হলো আল্লাহর ইবাদত করা। নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন”দুআই হলো ইবাদত”
    দুবার শক্তি অপরিসীম।কেবল দুআই পারে ভাগ্য পরিবর্তন করতে।
    কুরআন সুন্নাহ অনুযায়ী ‘বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া’ ৩৫৩ পৃষ্ঠার এই ব‌ইটিতে একসঙ্গে পাবেন: যিকর,দুআ ও রুক্ইয়া।

    4 out of 4 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  4. 5 out of 5

    Khaleda Mubasshera:

    সকল প্রশংসা আল্লাহর।শান্তি ও করুণা বর্ষিত হোক তাঁর রাসূল মুহাম্মদ (সা:) এর উপর।
    “বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া ”
    বইটি ভাবলেই মনে সাড়া জাগিয়ে তোলে।মানুষের জীবনে সমস্যা আসেই,অতি স্বাভাবিক।কিন্তু মহান রাব্বুল আলামিন সে সকল সমস্যার সমাধান আমাদের সামনে অতি সহজভাবে দিয়ে দিয়েছেন।রাসুল (সা:) তার জীবদ্দশায় যেসব কাজ করেছেন তা ই আজ আমাদের জন্য নির্ধারিত সমাধান হয়ে গিয়েছে।তার জীবনী আমাদের জীবন বিধান।এলোমেলোহয়ে আছে অনেক হাদিস যা আমাদের চোখে ই পড়ে না।এরকমই জীবনের যত সমস্যার সমাধান নিয়ে ছোট বড় অনেক হাদিসের সমন্বয়ে একটি মানসম্মত বই “বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া”

    কেন পড়ব:বইয়ের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত রয়েছে দুয়া ও যিকরে ঠাসা,শুধু তাই নয় রয়েছে প্রত্যেকটির প্রেক্ষপট ও।রাসুল (সা:) সাহাবায়ে কেরামদের কখন,কেন,কোন বিষয়ে দুয়া গুলো বলার নির্দেশ দিয়েছিলেন তা যেন আমাদের সামনে ফুটে ওঠে বইটির মাধ্যমে।বইটিতে রয়েছে সকাল-সন্ধ্যার যিকির,কুরআন -সুন্নাহতে বর্ণিত যিকর,রয়েছে সকল প্রকার দুআ, দুআ কবুলের সময়গুলোর বিবরন,যেসব কারণে দুআ কবুল হয় না, কিছু লোকের নমুনা যাদের দুআ কবুল হয়, রুকইয়া, নবি-রাসুলগনের দুআ।বইটিতে সব দুআ ই খুঁজে পেয়েছি, আলহামদুলিল্লাহ।

    কিছু কথা:”আমার বান্দা আমার সম্পর্কে যেমন ধারণা করে,আমি তেমনি;যখন সে আমাকে স্মরণ করে, আমিও তাকে মনে মনে স্মরণ করি;যদি সে আমাকে কোনও জমায়েতে স্মরণ করে, আমি তাকে তাদের চেয়ে উত্তম জমায়েতে স্মরণ করি;সে যদি আমার দিকে এক বিঘত পরিমাণ এগিয়ে আসে,আমি তার দিকে এক হাত পরিমাণ এগিয়ে যাই;সে যদি আমার দিকে এক হাত এগিয়ে আসে, আমি তার দিকে প্রসারিত বাহু পরিমাণ এগিয়ে যাই;আর সে যদি আমার দিকে হেঁটে আসে,আমি তার দিকে দ্রুত এগিয়ে যাই”
    (বান্দার ডাকে আল্লাহর সাড়া, হাদিস নং,৩৮৬।
    শেষ কথা: সারাজীবন চলতে একটি বিশেষ পাথেয় হবে বইটি।
    সুন্নাহ দিয়ে সাজবে জীবন।

    4 out of 4 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  5. 5 out of 5

    Istiak Uddin Sajib:

    আলহামদুলিল্লা, অসাধারণ একটা বই । সারাজিবন চলার পথে পাথেয় হবে বইটা। আল্লাহ লেখক,প্রকাশক এবং ওয়াফিলাইফ কে উত্তম প্রতিদান দান করুন।আমিন।।।।।
    2 out of 2 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top