মেন্যু
amar namaji sontan

আমার নামাজি সন্তান

পৃষ্ঠা : 124, কভার : পেপার ব্যাক, সংস্করণ : 1st Published 2020
অনুবাদক: সদরুল আমীন সাকিব প্রতিটি পিতামাতার মনেই সৎ বংশধর লাভের বাসনা থাকে। যেমন, কুরআনে উল্লেখিত হজরত যাকারিয়্যা (আলাইহিস সালাম)-এর দোয়ায় আমরা ব্যাপারটির ইঙ্গিত পাই, হে আল্লাহ, আপনি আমাকে সুসন্তান দান করুন। নিশ্চয় আপনি প্রার্থনা... আরো পড়ুন
পরিমাণ

124  170 (27% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
- ১,৪৯৯+ টাকার অর্ডারে সারাদেশে ফ্রি শিপিং!

প্রসাধনী প্রসাধনী প্রসাধনী

2 রিভিউ এবং রেটিং - আমার নামাজি সন্তান

5.0
Based on 2 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published. Required fields are marked *

  1. 5 out of 5

    :

    #বুক রিভিউ
    বইঃ আমার নামাজি সন্তান
    সংকলকঃ হানা বিনতে আব্দুল আযিয
    প্রকাশকঃ হাসানাহ পাবলিকেশন।

    পাঠ্যানুভূতি—
    শিশুরা হচ্ছে একটি চারাগাছের মতো— আমরা যদি ছোট থেকে’ই তাদের খেয়াল রাখি, যত্ন করি, তবে তারা সফল হবে। কিন্তু তখন যদি তাদের যাচ্ছে তাইভাবে ছেড়ে দেই, তবে তারা নষ্ট হয়ে যাবে আর পরবর্তী সময়ে তাদের সংশোধন হওয়াও কষ্টের ব্যাপার হয়ে দাঁড়াবে।

    হযরত আলি ( রাদিয়াল্লাহু আনহু) বলেছেন,
    “ যে ব্যক্তি ইচ্ছা করে এক ওয়াক্ত সালাতও ছেড়ে দিলো, তখনই আল্লাহ তার সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে গেলো।”
    আর আল্লাহর সাথে সম্পর্ক ছিন্ন হওয়া মানেই জাহান্নামের আগুনের পথে ধাপে ধাপে অগ্রসর হওয়া।
    আর আপনার গর্ভজাত সন্তান; যারা কী-না ছোট ছোট পায়ে দৌড়ঝাপ করতে করতে আপনারই চোখের সামনে বেড়ে উঠছে,যাদের হাতে আগুনের ভাপ লাগতে পারে ভেবে, চুলোর কাছে পর্যন্ত ঘেষতে দেননা। পারবেন কী তাদের জাহান্নামে পথে ঠেলে দিতে?!
    পারবেন কী সেই আদুরে মুখগুলোকে জাহান্নামের উত্তপ্ত কড়াইয়ে ভাজা হওয়া দেখতে?!
    তবে কেন তাদের দশ- এগারো- বারো বছর পেরিয়ে যাচ্ছে অথচ নামাজের ব্যাপারে শতর্ক করছেন না?
    যদি সতর্ক করেনও তবুও কেন তারা সালাতকে অভ্যাসে পরিণত করতে পারছে না?

    বইটিতে যা আছে—
    বইটিতে সেসব বাবা- মায়ের অভিজ্ঞতা তুলে ধরা হয়েছে, যারা অধৈর্য্য হলেও; একবারে আশা ছেড়ে না দিয়ে অধ্যবসায়ের সাথে তাদের ছোট্ট সোনামণিদের সালাতে অভ্যস্ত করে তুলেছেন। হালকা শাসন করে, কখনো দুনিয়ার বাহ্যিক উপকরণ দিয়ে লোভ দেখিয়ে, কখনো বা সহপাঠীদের সাথে নামাজে নেতৃত্বদান করার মানসিকতা গড়ে তুলে। শুধু মাত্র মা-বাবা নয় অনেক ক্ষেত্রে বাচ্চার দাদা- বড় ভাই কিংবা শিক্ষকও হয়ে উঠেছেন সালাতকে দৈনন্দিন রুটিনে সহায়ক।

    যে কারণে বইটি পড়বেন—
    আমরা যারা মা-বাবা হয়েছি বা হতে যাচ্ছি কিংবা সন্তানদের সলাতকে অভ্যস্ততায় পরিণত করতে চাচ্ছি।
    যেন সলাত তাদের ‘অশ্লীল ও মন্দকাজের রক্ষাকবচ হয়। এবং সে বিষয়ে মানসিক ও শারীরিকভাবে প্রচেষ্টা চালাচ্ছি, তারা সবাই বইটিতে উল্লেখিত সফল বাবা- মায়ের অভিজ্ঞতার বর্ণনা পড়ে উদ্দীপিত হতে পারি। এসব বাস্তব অভিজ্ঞতা গুলোই আমাদের চালিকাশক্তি হিসেবে কাজ করতে সক্ষম হবে ইন শা আল্লাহ । যার মাধ্যমে শ্রমসাধ্য কর্মের প্রতিও সাহসী হয়ে ওঠা যাবে।
    তখন দক্ষভাবে ব্যর্থতার প্রাচীর ডিঙিয়ে আত্মবিশ্বাসের সাথে আপন লক্ষ্যপানে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব ইনশাআল্লাহ।

    চম্বুক বাক্য—
    > শিক্ষকের অবদান কখনো কখনো
    পিতার চেয়েও বেশি হয়।’ – পৃষ্টা নং-৭২.

    > এক মায়ের ভাষ্যে-
    ‘ এক রাতের ঘটনা।আমার এক মেয়ে তাহাজ্জুদের সময় আমার সাথে জায়নামাজে বসে গেলো।এরপরনামাজ পড়ল। নামাজের পর ইসতেগফার পড়ে দোয়ায় বারবার বলতে লাগল,
    ‘ হে আল্লাহ, জান্নাত দিন; হে আল্লাহ, জান্নাত দিন।’ ’ – পৃষ্টা- ৯০।

    বইটি সম্পর্কে মন্তব্য—
    বইটির সংকলন ভালো লেগেছে।বিশেষ করে বইটির শেষ দিকের সন্তানকে নামাজে অভ্যাস করার ৯২টি টেকনিক আকর্ষণীয় ছিলো। অনুবাদকও বইটি সহজ- সাবলিল ভাবে ভাষান্তর করেছেন। বইটি পেপারব্যাকে বাঁধানো। প্রচ্ছদ ও পৃষ্ঠাসজ্জাও দৃষ্টিনন্দন। সর্বপরি হাসানাহ পাবলিকেশন চমৎকার একটি বই পাঠকদের হাতে তুলে দিতে সক্ষম হয়েছে। আলহামদুলিল্লাহ
    বইটির সাথে সম্পৃক্ত সকলকে আল্লাহ সুবাহানাহু তা’লা জাযায়ে খায়ের দান করুক 💚।

    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    :

    আমার নামাজি সন্তান বইটি অসাধারণ একটি বই
    বইটি যখন পড়েছি মনে হয়েছে সন্তানদেরকে ঈমানের উপর ও নামাজি সন্তান রুপে গড়ে তুলতে হলে ছোট বয়স থেকেই গড়ে তুলতে হবে এক্ষেত্রে অলসতা করলে বা অবহেলা করলে পরে শত আফসোস করলেও আর কাজ হয় না তেমন একটা কারণ বাচ্ছাদের মন কাদা মাটির মত নরম থাকে তখন যেভাবে গড়ে তুলবে সেভাবেই গড়ে উঠবে, ছোটদেরকে নামাজের উপর গড়ে তোলার জন্য আমার নামাজি সন্তান বইটি অত্যন্ত উপকারী, বইটি পড়ে মনে হয়েছে যদি সকল বাবা মা বইটি একবার হলেও পড়ে নেয় তা হলে সন্তানদেরকে দ্বীনের উপর গড়ে তোলা সহজ হবে।
    1 out of 1 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top