মেন্যু
Allahor proti shudharona

আল্লাহর প্রতি সুধারণা

পৃষ্ঠা : 112, কভার : হার্ড কভার, সংস্করণ : 1st Published, 2020
আইএসবিএন : 9789843488619
জাবের রদ্বি. থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, “আমি রসূল ﷺ-কে মৃত্যুর তিনদিন আগে বলতে শুনেছি, “তোমরা অবশ্যই যেন আল্লাহর প্রতি সুধারণা নিয়ে মৃত্যুবরণ করো।” একজন মুমিনের জন্য যেসব গুণে গুণান্বিত হওয়া অপরিহার্য,... আরো পড়ুন
পরিমাণ

129  175 (26% ছাড়ে)

পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন
পছন্দের তালিকায় যুক্ত করুন

- ৫৯৯ টাকা অর্ডারে ১টি ফ্রি আমল চেকলিষ্ট।

- ৮৯৯ টাকা অর্ডারে ১টি ফ্রি বই।

12 রিভিউ এবং রেটিং - আল্লাহর প্রতি সুধারণা

5.0
Based on 12 reviews
5 star
100%
4 star
0%
3 star
0%
2 star
0%
1 star
0%
 আপনার রিভিউটি লিখুন

Your email address will not be published.

  1. 5 out of 5

    sjcomputer2017:

    = আমার মাকে যদি কেয়ামতের মাঠে আমার দায়িত্ব দেওয়া হয় তাহলে তিনি কি করবেন?
    = অবশ্যই তোমাকে জান্নাতে পৌছিয়েই ক্ষান্ত হবেন।
    = তাহলে আর ভাবনা কিসে আমার রব তো আমাকে আমার মায়ের চেয়ে বেশি ভালোবাসেন তিনি তো আমায় জাহান্নামে দিতে পারেন না।

    “এটাই আল্লাহ্‌র প্রতি সুধারনা তবে শুধু সুধারনা করে বসে থাকলে হবে না পূঁজি ও তৈরি করতে হবে আখেরাতের”
    “বই থেকে নেওয়া”

    10 out of 10 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  2. 5 out of 5

    tonney23:

    মুমিনের মূল পুঁজিই হল অন্তরে আল্লাহর প্রতি ভাল ধারণা ও ভরসা।সবার মধ্যেই ভাল মন্দ আছে। কিন্তু অপরাধ বা ভুল করে আল্লাহর ক্ষমা পাওয়ার আশা অনেকেই করতে পারেনা, অন্তরে আল্লাহর প্রতি পজিটিভিটি না থাকায়।তারা হতাশারা বৃত্তেই ঘুরপাক খেতে থাকে। অনেকে ইবাদতও ছেড়ে দেয়, হতাশ হয়ে।

    অন্য দিকে, মুমিন,মুত্তাকী,মুহসিন ব্যক্তিগন আল্লাহর প্রতি খুবই উচ্চ ধারণা পোষণ করেন, আল্লাহর ক্ষমার ব্যাপারে আশাবাদী থাকেন, দুরুদুরু বুকে।

    আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসূল(সাঃ) বলেন,”আল্লাহ ইরশাদ করেছেন, “আমার প্রতি আমার বান্দার ধারণা অনুযায়ী আমি তার সঙ্গে আচরণ করি।সে যখন আমাকে স্মরণ করে আমি তার সঙ্গে থাকি। ”

    যেকোন বিশ্বাসী মানুষ (হতাশ/আশাবাদী) এই বইটি পড়ে উপকৃত হবে, ইন শা আল্লাহ।

    সারা দুনিয়ায় এখন মহামারী চলছে। সবাই করোনায় অসুস্থ হয়ে যাওয়ার ভয়ে কিছুটা হলেও আতঙ্কিত। অবিশ্বাসীরা নিরাময়ের জন্য তাকিয়ে আছে বিজ্ঞানের দিকে, মৃত্যুর পর ক্ষমা পাবে কিনা, তার খেয়াল নেই। কিছু হলেই মানুষ ভয় পেয়ে যাচ্ছে। সৃষ্টিকর্তার প্রতি বিশ্বাস নেই বিধায়, এখনো দিন রাত বিনোদনেই মত্ত। করোনার ভয়ে, এতেই আশ্র‍য় খুঁজে বেরাচ্ছে।

    অন্যদিকে,যেহেতু আল্লাহ প্রতি আমার বিশ্বাস আছে, তাই আমি ইবাদত করে মানসিক অশান্তি দূর করছি। বিজ্ঞানে নয়,আল্লাহর দিকেই আশ্রয় খুঁজছি। পরকালে ক্ষমা পাব কিনা, সেই চিন্তায় আছি। এমন সময়, এমন একটি বই, যা পড়লে আশাবাদী হওয়া যায় আখিরাতের ব্যাপারে, সত্যি খুব দরকার ছিল।
    বইটি আমার প্রয়োজন ও জানার ইচ্ছা মিটিয়েছে।
    আলহামদুলিল্লাহ।

    বইটিতে একই বিষয়ের হাদিসগুলো সহজে খুঁজে পাওয়ার জন্য একটি সাধারণ বিষয়সূচি দেয়া আছে; যেমন,

    সুধারণার পরিচয়,
    সুধারণা উত্তম ইবাদত,দাবি দাওয়া,
    সুধারণার সুফল,
    মৃত্যুকালে সুধারণা রাখতেই হবে,
    ………….
    আল্লাহ শিরক ছাড়া সবই মাফ করেন,
    রহমত থেকে নিরাশ হতে নেই,
    বান্দার প্রতি আল্লাহর মমতা,
    ……………
    কেমন ছিল সালাফদের সুধারণা,
    কুধারনার পরিনতি,
    গুনাহ হয়ে গেলে করনীয় ইত্যাদি।

    প্রতিটি হাদিসের মান পৃষ্ঠার নিচে উল্লেখ করা হয়েছে।

    বইটি পড়লে
    আল্লাহর প্রতি ধারণা উচ্চ হবে। ভালবাসা বাড়বে।
    ইবাদতে ভাল লাগা আসবে।
    দুনিয়া ও আখিরাতে আশাবাদী হতে সাহায্য করবে।
    দুনিয়াবী অহেতুক ভয় ভ্রান্তি ফেলে পজিটিভ হতে শিখাবে।

    কিছু হাদিস পড়ে আমি এত খুশি আর আশাবাদী হয়ে গিয়েছিলাম,পরে দেখি নিচে ছোট্ট করে লিখা “সনদ দুর্বল”। : (
    যাই হোক, আল্লাহর ক্ষমা পাওয়ার ক্ষেত্রে ও জাহান্নামের আগুন হতে রক্ষা পাওয়ার জন্য,অন্তরে আশা ভয় দুইটাই থাকা উচিত। ^^

    বইটা সবাই পড়বেন, অবশ্যই পড়বেন। প্রতিটি মুসলিম ঘরে থাকা উচিত। যে কাউকে উপহার দিতে পারবেন।

    এত সুন্দর বইটি, বাংলায় অনুবাদ করে, আমার মত দুর্বল মুসলিমদের অশেষ উপকার করায়, অনুবাদকদ্বয় ও ওয়াফি পাবলিকেশনের প্রতি অনেক ভালবাসা রইল। আল্লাহ আপনাদের উত্তম প্রতিদান দিন। আমিন।

    11 out of 12 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  3. 5 out of 5

    Marium Rakib:

    আল্লাহর প্রতি সুধারণা’ বইটি অনুবাদ করা হয়েছে ‘হুসনুয-যন বিল্লাহ’ নামক একটি সুপ্রসিদ্ধ আরবি কিতাব থেকে। কিতাবটি রচনা করেছিলেন ইমাম ইবনু আবিদ দুনইয়া।

    কিতাবটির মূল বিষয়বস্তু খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কিভাবে আল্লাহর প্রতি সুধারণা সবসময় ধরে রাখা যায়, সালাফগন কিভাবে আল্লাহর প্রতি সুধারনা পোষন করতেন, এ সম্পর্কিত হাদীস, সালাফদের বহু ঘটনা এবং স্বপ্নের উল্লেখ আছে।

    বতর্মান সময়ে তরুন প্রজন্মের মনের মধ্যে যে হতাশা, তার মূল কারণ হল আল্লাহর প্রতি সুধারণা না থাকা। সব কিছু পাওয়ার পরও মনে হয় কি যেন একটা নেই- এটাই হল আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞতা না থাকা, আল্লাহর প্রতি সুধারনা না থাকার কারনে। আসলে, সুখের মূল রহস্য হল একটা কৃতজ্ঞ অন্তর। অন্তর যদি আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞ না হয়, তাহলে পৃথিবীর সবকিছু পেলেও কোন মানুষ সুখী হতে পারে না। এজন্য, আল্লাহর প্রতি সুধারনা শুধু দুনিয়ার জন্যই নয়, বরং আখিরাতের জীবন সম্পর্কে ও আল্লাহর প্রতি সুধারনা রাখা খুবই জরুরী। এমনকি, মৃত্যুর মুহুর্তেও আল্লাহর প্রতি সুধারণা জারি রাখতে বলা হয়েছে।

    বইটা পড়ার সময়ে ভরসার শীতল বাতাস যেন বইছিলো আমার অন্তরে। যেন গুনাহগার অন্তর নিয়েও প্রশান্তির ছায়া বিছানো অনুভুতি। দুনিয়ার জীবনে যত না পাওয়ার হতাশা, নিজের গুনাহের কারণে আখিরাতের জীবন নিয়ে আতঙ্ক, সব মিটে যায় অন্তরে আল্লাহর প্রতি সুধারনা থাকলে। সালাফগণ যেভাবে সুধারনা রাখতেন আল্লাহর প্রতি, ঠিক সেভাবেই যাতে সারা জীবন আল্লাহর প্রতি সুধারনা রাখতে পারি, সেজন্য এই বইটি সবারই পড়া উচিত বলে আমার মনে হয়।

    ভাললাগার বিষয়ঃ
    ১. বইটি হার্ডকভার। হার্ডকভার বই আমার এমনিতেই খুব প্রিয়।
    ২. মূল বইয়ের শুরুতে কোন সূচিপত্র ছিল না। এই বইটির শুরুতে পাঠকদের সুবিধার জন্য সূচিপত্র যুক্ত করা হয়েছে।
    ৩. এই বইটি গতানুগতিক কোন অনুবাদ নয়, বরং রীতিমত একটা তাহকীক। হাদিসশাস্ত্রের একাধিক দক্ষ গবেষকের সহায়তায় প্রতিটি বর্ননার যথাসাধ্য তাহকিক করে উপস্থাপন করা হয়েছে।
    ৪. বইটির শেষে ‘পরিশিষ্ট’ নামে একটি অধ্যায় যুক্ত করা হয়েছে, যা মূল কিতাবে ছিল না।

    বইটির সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে আল্লাহ উত্তম প্রতিদান দিন।

    8 out of 9 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  4. 5 out of 5

    মোঃ মাসুদুল ইসলাম:

    আলহামদুলিল্লাহ!
    “আল্লাহর প্রতি সুধারনা” বইটির ক্ষেত্রে ৩টি কথা বলতে চাইঃ
    প্রথমত, জীবনের চরমতম দুর্যোগের মুহুর্তে যখন সব কিছুই এলোমেলো ঠিক সেই সময় “আল্লাহ সবকিছু ঠিক করে দিবেন তিনি এর মধ্যেই কল্যান রেখেছেন” এই এতটুকু বিশ্বাস মনের গহীনে জম্মানো চারটিখানি কথা নয়। আর এই বিশ্বাসটা কিভাবে মনের মধ্যে একটু একটু করে গাঁথা যায় সেটার একতা সুন্দর সাবলীল উপস্থাপন এই বইটাতে করা হয়েছে।
    দ্বিতীয়ত, বইটির হাদিসগুলোর তাহক্বীক ও তাখরীজ ও অনুবাদের ভাষাশৈলী বইটিকে কিভাবে পরে বুঝে বিশ্বাস করতে হবে সেটার একটা নতুন মাত্রা যোগ করেছে, কেননা এখানে মূল লিখক এমন কিছু তথ্য উপস্থাপন করেছেন যা সবার ক্ষেত্রে আম-ভাবে বুঝার জন্য উপযুক্ত নয়।
    তৃতীয়ত, বইটির প্রচ্ছদ “একটা মৃত গাছের ডাল-পালা থেকে রঙ্গিন ফুল ঝড়ে পড়ছে” মা শা আল্লাহ অতন্ত্য চমৎকার ও ভাবমূলক।
    মহান আল্লাহ মূল লিখক, অনুবাদক, এই বইটির সাথে সংশ্লিষ্ট সবাইকে উত্তম জাযা দিন আমীন।
    7 out of 8 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
  5. 5 out of 5

    M. Hasan Sifat:

    #ওয়াফিলাইফ_পাঠকের_ভাল_লাগা_মার্চ_২০২০
    .
    বই– আল্লাহর প্রতি সুধারনা
    •••••••••••••••••••••••••••••••••••••••••
    .
    বইয়ের নাম শুনে যে কেউই বুঝতে পারবে বইটির বিষয়বস্তু কি । জ্বী – প্রিয় পাঠক, ঠিকই ধরেছেন বইটির মূল বিষয়বস্তু হচ্ছে, কিভাবে আমরা আল্লাহর প্রতি সুধারনা রাখতে পারি সে বিষয়ে । “আল্লাহর প্রতি সুধারনা” নামক এই গ্রন্থটি মূলত ‘হুসনুয-যন বিল্লাহ’ নামক আরবী কিতাবের ভাষান্তর । বইটি প্রকাশিত হয়েছে, “ওয়াফি পাবলিকেশন” থেকে ।

    ❒ বইটি সম্পর্কে—
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    আল্লাহর প্রতি সুধারণা বলতে কী বোঝায় ? কীভাবে সুধারণা রাখতে হয় ? কেন রাখতে হয় ? কিভাবে সালাফগণ আল্লাহর প্রতি সুধারনা রাখতেন — সে বিষয়গুলো নিয়েই ইমাম ইবনু আবিদ দুনইয়া (রহ:) – চমৎকার এই বইটি রচনা করেছেন । বইটিতে আল্লাহর প্রতি সুধারণা নিয়ে নবীজি ﷺ-এর হাদীস, সাহাবী এবং পরবর্তী প্রজন্মের উক্তি সংকলন করা হয়েছে । দেখানো হয়েছে কীভাবে আমরাও আল্লাহর প্রতি সুধারণা রাখতে পারি ।

    ❒ পাঠ্যানুভূতি—
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    বইটি যখন পড়ছিলাম, মনে হচ্ছিল ভরসার শীতল বাতাস বইছে আমার অন্তরে । এ ভরসা আল্লাহর প্রতি । আল্লাহর প্রতি সুধারণার ভরসা । এ যেন গুনাহগার হতাশ হৃদয়ে প্রশান্তির ছায়া বিছানো অনুভূতি । “আল্লাহর প্রতি সুধারণা”— এই জিনিসটা একজন মুমিন বান্দার জন্য যে কতোটা গুরুত্ব বহন করে, তা এই বইটি পড়লেই একজন পাঠক অনুধাবন করতে পারবে । যেদিন এই বইটার নাম শুনেছিলাম সেদিন থেকেই, বইটার প্রেমে পড়ে গিয়েছিলাম । এরপর প্রচ্ছদ দেখে আরো মুগ্ধ হলাম । মুখিয়ে রইলাম দিনের পর দিন । অবশেষে হাতে এলো । অসংখ্য মণিমুক্তো জড়ানো বইটি পড়ে আমি খুবই উপকৃত হয়েছি ।

    ❒ ভাললাগা–
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    [১]. আমরা অধিকাংশ পাঠকরাই বইয়ের সম্পাদকের কথা, অনুবাদকের কথা, লেখকের কথা অংশগুলো পড়িনা । অথচ এসব অংশেও অনেক সময় গুরুত্বপূর্ন কথা অালোচিত হয় । এই বইয়ের ” সম্পাদকীয়” অংশটি ভাল লেগেছে । অল্প আলোচনায় চমৎকার ও শিক্ষনীয় কিছু কথা খুঁজে পেয়েছি ।
    .
    [২]. মূল বইয়ে সূচীপত্র না থাকলেও, পাঠকের সুবিধার্থে বইয়ে একটি সূচীপত্র সংযুক্ত করা হয়েছে । সূচীপত্রের প্রতিটি শিরোনামও ভাল লেগেছে ।
    .
    [৩]. বইয়ের শেষে একটি ‘পরিশিষ্ট’ অংশ যুক্ত করা হয়েছে । পাঠকরা সেখানে হাদিস- ভান্ডার থেকে বাছাইকৃত কিছু সংগতিপূর্ণ রেওয়াত খুঁজে পাবে ।
    .
    [৪]. বইটি হার্ডকভার । হার্ডকভার বই পড়তে এবং সেলফে সাজিয়ে রাখতে যে সুবিধা তা আলাদা করে বলার অপেক্ষা রাখে না ।

    খারাপ লাগার মতো বা ভুল কিছু পাইনি । অবশ্য এত এত আলিমদের স্পর্শ পেয়ে বইটি বাজারে এসেছে, সেখানে ভুলখোঁজার মতো কোনো যোগ্যতাই আমার নেই ।
    বইটি অনুবাদ ও তাখরীজ করেছেন:– মাওলানা রাশেদুল ইসলাম এবং মাওলানা নূরুল আমীন আল-হারুনী ।
    সম্পাদনা করেছেন:– মুফতি মাহমুদুল হক ।

    ❒ শেষ কথা—
    ▔▔▔▔▔▔▔▔▔▔
    একজন মুমিনের জন্য যেসব গুণে গুণান্বিত হওয়া অপরিহার্য, তারমধ্যে অন্যতম হচ্ছে ‘আল্লাহর প্রতি সুধারণা’ । তাই সালাফদের মতো করে আল্লাহর প্রতি সুধারনা রাখতে, এই বইটি সহায়ক হবে বলে মনে করি ।
    ==============================
    বইটির পৃষ্ঠা সংখ্যাঃ– ১১২ ।
    প্রচ্ছদ মূল্যঃ–১৭৮ টাকা ।
    11 out of 11 people found this helpful. Was this review helpful to you?
    Yes
    No
Top